দিনাজপুরে মাদ্রাসাছাত্রকে বলাৎকার, শিক্ষক আটক

১২:২২ অপরাহ্ন | শনিবার, মার্চ ১৩, ২০২১ রংপুর
Rape

আব্দুল আজিজ, দিনাজপুর প্রতিনিধি- দিনাজপুর সদর উপজেলায় ১৩ বছর বয়সী এক মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকারের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষক রবিউছ সানী (২৫) কে আটক করেছে পুলিশ।

দিনাজপুর শহরের পুলহাটে অবস্থিত কাশিমপুর হাফেজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানা থেকে শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টায় ওই অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করে পুলিশ। গত ৫ মার্চ রাতে ওই মাদ্রাসায় ১৩ বছর বয়সী এক শিশু ছাত্রকে বলাৎকারের ঘটনা ঘটে।

আটক শিক্ষক রবিউছ সানী জেলার চিরিরবন্দর উপজেলার গলাহার গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে।

আজ শনিবার (১৩ মার্চ) সকাল সাড়ে ১০টায় দিনাজপুর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোজাফফর হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, শুক্রবার রাতে বলাৎকারের শিকার শিশুর পিতা সদর উপজেলার যোগীবাড়ী গ্রামের মৃত তছলিম উদ্দীনের ছেলে মাহফুজ হোসেন উজ্জল বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, গত ৫ মার্চ দিবাগত রাতে মাদ্রাসায় ওই শিক্ষক তার ১৩ বছরের শিশু ছেলে আহাদ মাহমুদ তুষারকে বলাৎকার করে। বলাৎকারের পর ঘটনা বাইরে কাউকে না জানানোর জন্য ভয়ভীতি দেখায়। গত ১১ মার্চ মাদ্রাসা থেকে ছুটি নিয়ে বাসায় এসে বিষয়টি পরিবারের লোকজনদের জানায়।

ওসি আরও জানান, অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ইতিপূর্বে আরও ৩ জন ছাত্রকে বলৎকার করেছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় বলাৎকারের শিকার শিশুর বাবা মাহাফুজ হোসেন উজ্জল মাদ্রাসায় গিয়ে কমিটির লোকদের বিষয়টি জানায়।

এসময় উত্তেজিত জনতা অভিযুক্ত শিক্ষককে মারধর করে। পরে কোতয়ালী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। আজ শনিবার দুপুরে আটক শিক্ষক রবিউছ সানীকে আদালতে সোপর্দ করা হবে বলে তিনি জানান।