সংবাদ শিরোনাম

কুড়িগ্রামের সবগুলো নদ-নদী শুকিয়ে গেছে, হুমকীতে জীব-বৈচিত্রহেফাজতের আরেক কেন্দ্রীয় নেতা গ্রেপ্তারমধুখালীতে বান্ধবীর সহায়তায় অচেতন করে দফায় দফায় ধর্ষণের শিকার নারী!বাসস্ট্যান্ডে প্রকাশ্যে চায়ের স্টলে ইতালি প্রবাসীকে কুপিয়ে হত্যাগোবিন্দগঞ্জে মর্মান্তিক সড়ক দূঘর্টনায় স্কুল শিক্ষকসহ একই পরিবারের ৪ জন নিহতময়মনসিংহে ব্রহ্মপুত্র নদের পানিতে ডুবে মারা গেলো ৩ শিশুমুহুর্তেই ভয়াবহ আগুন! স্কুলেই পুড়ে মরলো ২০ শিশু শিক্ষার্থী!সাবেক আইনমন্ত্রী আব্দুল মতিন খসরু আর নেইসব রেকর্ড ভেঙে চুরমার, একদিনেই ৯৬ জনের মৃত্যুকরোনায় মারা গেলেন টাঙ্গাইল বিএনপির সাবেক সম্পাদক বুলবুল

  • আজ ১লা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ঘাটাইলে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে নির্মাণাধীন বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

৬:১৮ অপরাহ্ন | রবিবার, মার্চ ১৪, ২০২১ ঢাকা
gatail

খাদেমুল ইসলাম মামুন, ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে কলাগাছ কাটা এবং নির্মাণাধীন একটি বাড়িতে ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ উঠেছে। প্রতিপক্ষের হুমকির মুখে বর্তমানে বাড়িতে বসবাস করতে পারছেন না ভুক্তভোগীর পরিবারের লোকজন।

ঘাটাইল উপজেলার লক্ষিন্দর ইউনিয়নের কাজলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে শনিবার (১৩ মার্চ) রাতে ঘাটাইল থানায় একই এলাকার হাসমত আলীকে প্রধান আসামি করে ১০ জনের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ভুক্তভোগী আ: মালেক বলেন, আমার বোন জামাই একটি জমি ক্রয় করে। জমিটি প্রতিপক্ষের বাড়ির পাশের হওয়ায় তারা জমিটি ক্রয় করার চেষ্টা করে নিতে না পেরে আমার এবং বোন জামাইয়ের উপর ক্ষিপ্ত হয়।

অভিযোগ থেকে জানা যায়, আ: মালেকের বোন জামাই রুস্তম আলী স্থানীয় নাছিমা বেগমের নিকট থেকে একটি জমি ক্রয় করে। জমিটি হাসমত আলী ক্রয় করার চেষ্টা করে ব্যর্থ হলে মালেক এবং তার বোন জামাই’র উপর ক্ষিপ্ত হয়। মালেককে নানাভাবে হুমকি ধামকি দিয়ে আসতে থাকে। গত ১১ মার্চ মালেকের নির্মাধীন বাড়িতে হাসমত আলী গংরা সন্ত্রাসী কায়দায় দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়, বসত ঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়। আ: মালেকের কলাবাগানের প্রায় দুইশত কলাগাছ ভেঙে ফেলে, এবং বাড়ির লোকজনদের মারপিট করে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য নুরুল ইসলাম বলেন, ঘটনাটি সত্য। আমি দশ বারোজন লোককে লাঠি দিয়ে মালেকের বাড়িতে ভাংচুর দৃশ্য দেখেছি। পরে আমিসহ স্থানীয় কিছু লোকজন তাদেরকে থামিয়েছি।

এ ব্যাপারে হাসমত মিয়া বলেন, ঘটনা সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং বানোয়াট। ভাংচুরের বিষয়ে আমি কিছু জানিনা।

ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাকসুদুল আলম বলেন, ভুক্তভোগী পরিবারের একটি অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনা তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।