• আজ সোমবার। গ্রীষ্মকাল, ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ১৯শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। সকাল ৯:১৯মিঃ

‘বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল; অনেকে বলেন, ম্যাজিকটা কি?’

২:৫৮ অপরাহ্ন | সোমবার, মার্চ ১৫, ২০২১ জাতীয়
pm shekh hasina

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আমাদের দেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল। অনেকে বলেন, ম্যাজিকটা কি? আমি বলি, এটা কোনো ম্যাজিক নয়। ম্যাজিকটা হচ্ছে, দেশপ্রেম। দেশ ও দেশের মানুষের প্রতি দায়িত্ব ও কর্তব্যবোধ। আমার চিন্তা দেশের মানুষকে দুপায়ে দাঁড় করিয়ে তাদের স্বাবলম্বী করে তোলা।’

সোমবার (১৫ মার্চ) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশ অবকাঠামো উন্নয়ন তহবিলের উদ্বোধন এবং তহবিল থেকে পায়রা বন্দরের রাবনাবাদ চ্যানেলের ক্যাপিটাল ও মেইনটেনেন্স ড্রেজিং শীর্ষক স্কিমে অর্থায়নের লক্ষ্যে ত্রিপক্ষীয় ঋণচুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন।

প্রধানমমন্ত্রী বলেন, ‘আজকে আমাদের অত্যন্ত আনন্দের দিন। উন্নয়নের ক্ষেত্রে নিজেদের অর্থায়নের সুযোগ সৃষ্টি করতে পারলাম। রাবনাবাদ চ্যানেলের ক্যাপিটাল ও মেইনটেনেন্স ড্রেজিংয়ের মাধ্যমে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের জীবনে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে। এর মাধ্যমে আমাদের উন্নয়নের ছোঁয়া সারাদেশে পড়বে।’

আগের সরকারগুলোর সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘উন্নয়ন তখনই হবে, দেশকে যখন চিনতে পারবে, ভালোবাসতে পারবে। চিন্তা চেতনায় বিষয়টি আসবে। দেশটি সবসময় গণতান্ত্রিক ধারায় থাকেনি। তারপরও আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর বিভিন্ন পরিকল্পনা নিয়ে নানান পদক্ষেপ নিয়েছি। আওয়ামী লীগ ছাড়া যারাই ক্ষমতায় আসছে, তাদের মাথায় ছিল অন্যের কাছে হাত পাতা। নিজের পায়ে দাঁড়াতে হবে। এটা তাদের চিন্তায় ছিল না।’

তিনি বলেন, ‘আমরা আজ উন্নয়নশীল দেশ। জাতির পিতা যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ থেকে বাংলাদেশ গড়ে স্বল্পোন্নত দেশ রেখে গিয়েছিলেন। ২০১৫ সালে নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশ, আর ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশ বা উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে আমরা স্বীকৃতি পেয়েছি।

‘উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে আমাদের নিজের আয়ে চলতে হবে। নিজেদের অর্থায়নে কাজ করতে হবে। আমরা আমাদের দেশকে উন্নত করব, এটাই আমাদের লক্ষ্য। আর সে লক্ষ্য বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে আমাদের অনেক কাজ করার দরকার আছে।’

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে তৈরির অপেক্ষায় থাকা সমুদ্রবন্দরগুলোর কার্যকারিতাও তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘পায়রা বন্দরের বিষয়টা আমি নিজেই চিন্তা করেছিলাম যে, আমাদের একটা বন্দর প্রয়োজন। আর আমাদের গভীর সমুদ্রবন্দরও করতে হবে।

‘ইতিমধ্যে মোংলা বন্দরও আমরা চালু করেছি, যেটা বিএনপি সরকারের আমলে বন্ধ করে দিয়েছিল। তা ছাড়া আমাদের আরেকটা বন্দর প্রায় তৈরি হয়ে গিয়েছে বা ভবিষ্যতে এটা আরও উন্নত হবে, সেটা হচ্ছে মহেশখালী-মাতারবাড়ী। সেখানেও একটা সমুদ্রবন্দর হচ্ছে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘পায়রা বন্দরটা আমরা নিজেদের উদ্যোগেই করি। ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে বাংলাদেশের কিছু সুবিধা রয়েছে। যেমন ভারত, নেপাল, ভুটানকে আমরা ইতিমধ্যে আমাদের বন্দর ব্যবহার করার সুযোগ দিয়েছি। হয়তো আরও বেশি দেশ আমাদের এই বন্দর ব্যবহার করতে পারবে। আমরা গভীর সমুদ্রবন্দরও তৈরি করব। এই পায়রা বন্দরকে কেন্দ্র করেই সমুদ্রবন্দর গড়ে উঠতে পারে ভবিষ্যতে।

‘এসব কথা চিন্তা করেই আমাদের একটি নিজস্ব ফান্ড অবকাঠামো উন্নয়ন বা সার্বিক উন্নয়নের জন্য তৈরি করেছি। এটাই বাংলাদেশ অবকাঠামো উন্নয়ন তহবিল। স্বাভাবিকভাবেই একটু ইংরেজিতে নাম দিলে আবার একটু গালভরা নাম হয়। আন্তর্জাতিকভাবেও সেটা সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করে। এ চিন্তা করেই আমরা নামটা দিলাম “বাংলাদেশ ইনফ্রাস্ট্রাকচার ফান্ড”।’