সংবাদ শিরোনাম

‘তালা ভেঙ্গে মসজিদে তারাবি পড়ার চেষ্টা্’‌, পুলিশের বাধায় সংঘর্ষে মুসল্লিরা‘লঘু পাপে গুরু দণ্ড’; তিনটি মুরগি চুরির দায়ে দেড়লাখ টাকার জরিমানা চার তরুণের!কুড়িগ্রামের সবগুলো নদ-নদী শুকিয়ে গেছে, হুমকীতে জীব-বৈচিত্রহেফাজতের আরেক কেন্দ্রীয় নেতা গ্রেপ্তারমধুখালীতে বান্ধবীর সহায়তায় অচেতন করে দফায় দফায় ধর্ষণের শিকার নারী!বাসস্ট্যান্ডে প্রকাশ্যে চায়ের স্টলে ইতালি প্রবাসীকে কুপিয়ে হত্যাগোবিন্দগঞ্জে মর্মান্তিক সড়ক দূঘর্টনায় স্কুল শিক্ষকসহ একই পরিবারের ৪ জন নিহতময়মনসিংহে ব্রহ্মপুত্র নদের পানিতে ডুবে মারা গেলো ৩ শিশুমুহুর্তেই ভয়াবহ আগুন! স্কুলেই পুড়ে মরলো ২০ শিশু শিক্ষার্থী!সাবেক আইনমন্ত্রী আব্দুল মতিন খসরু আর নেই

  • আজ ২রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মোদি বিরোধী মিছিলে ছাত্রলীগের হামলা, আহত ১২

৬:২৬ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, মার্চ ২৩, ২০২১ আলোচিত
du

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনের বিরোধিতা করে বামপন্থী ছাত্রসংগঠন আয়োজিত সমাবেশে ছাত্রলীগ হামলা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এতে অন্তত ১০ বাম ছাত্র নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে জানান তারা। এছাড়া হামলায় দুই সাংবাদিক আহত হন।

মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। আহতদের ঢাকা মেডিক্যাল পাঠানো হয়েছে।

প্রগতিশীল ছাত্রজোটের নেতাকর্মীরা জানান, মোদির আগমনের বিরোধিতা করে মঙ্গলবার তাদের পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি ছিল। তারা টিএসসি থেকে মিছিল বের করে শহীদ মিনার ঘুরে আবার টিএসসিতে আসেন। এরপর তারা মোদির কুশপুত্তলিকায় আগুন দেন। এ সময় ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী সেই আগুন নিভিয়ে ফেলতে যায়। তখন ছাত্রজোটের নেতাকর্মীদের সঙ্গে তাদের কথাটাকাটাটি হয়।

তারা আরো বলেন, এ সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাদের ওপর হামলা করেন। তারা ইটপাটকেল নিক্ষেপসহ লাঠি দিয়ে পেটাতে থাকেন। এতে বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হন। তাদের কয়েকজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

হামলায় আহত দেশ রূপান্তরের অলোকচিত্রী রুবেল রশিদ বলেন, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আমার তলপেটে বেশ কয়েকটি লাথি দেয়। তাদের হামলায় মানবজমিনের আলোকচিত্রী সাংবাদিক জীবন আহমেদও আহত হন।

এর আগে দুপুরে মোদির আগমনের প্রতিবাদে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের বিক্ষোভ মিছিল ও কুশপুত্তলিকা দাহ কর্মসূচিতে বাধা দেয় ছাত্রলীগ। দাহ করার আগেই মোদির কুশপুত্তলিকা কেড়ে নেয় তারা।

পরে কুশপুত্তলিকার পরিবর্তে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছবি পোড়ায় ছাত্র ফেডারেশনের নেতাকর্মীরা। ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে টিএসসি থেকে একটি মিছিল বের করে সংগঠনটি। মিছিলটি রাসেল টাওয়ার হয়ে ঘুরে রোকেয়া হল ও ভিসি চত্বর হয়ে পুনরায় টিএসসি চত্বরে এসে শেষ হয়।