• আজ সোমবার। গ্রীষ্মকাল, ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ১৯শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। সন্ধ্যা ৬:১৫মিঃ

প্রধানমন্ত্রী আপনাদের পাশে আছেন: রোহিঙ্গা ক্যাম্পে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

৫:৫৬ অপরাহ্ন | বুধবার, মার্চ ২৪, ২০২১ চট্টগ্রাম, জাতীয়
kamal

শাহীন মাহমুদ রাসেল, কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী রোহিঙ্গা শিবিরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি।

বুধবার (২৪ মার্চ) দুপুরে তিনি হেলিকপ্টারে করে বালুখালীতে পৌঁছেন। এরপর পুড়ে যাওয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান (এমপি) ক্ষতিগ্রস্থ ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে র‌্যাব-১৫ এর উদ্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ রোহিঙ্গাদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ করেন।

এসময় তিনি ক্ষতিগ্রস্ত রোহিঙ্গাদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা অনেকে স্বজন হারিয়েছেন, অনেকের সর্বস্ব পুড়ে গেছে। আমরা আপনাদের সমবেদনা জানাতে এখানে এসেছি।

‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আপনাদের আশ্রয় দিয়েছেন। তিনি আপনাদের পাশে আছেন। আপনাদের পূর্বের অবস্থায় ফিরে যেতে সরকার সবকিছু ব্যবস্থা করছে।’

মন্ত্রী বলেন, যারা আগুনে ঘরবাড়ি হারিয়েছেন, তাদের ভাসানচর নেওয়ার কোনো পরিকল্পনা নেই। তবে কেউ যদি নিজের ইচ্ছায় ভাসানচর যেতে চান তাহলে তাদের সেখানে প্রেরণ করা হবে। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা ঘুরে দেখেছি। এসব ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পদক্ষেপ নিচ্ছে সরকার।

তিনি আরও বলেন, এই আগুনে অনেক স্থানীয় পরিবারও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাদেরকেও সহযোগিতার আওতায় আনা হবে। যাতে তারাও দ্রুত ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে পারে।

এসময় কক্সবাজার সদর ৩ আসনের সাংসদ সাইমুম সরোয়ার কমল এমপি, সিনিয়র সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দিন, জননিরাপত্তা বিভাগ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়, র‌্যাব-১৫ এর অধিনায়ক উইং কমান্ডার আজিম আহমেদ সহ প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, সোমবার (২২) মার্চ বিকাল ৪টার দিকে উখিয়ার বালুখালী ৮ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার ১১ জন নিহত হয়েছেন, এছাড়া বসত ঘরসহ সব কিছু হারিয়ে নিঃস্ব হয়েছে প্রায় ৪৫ হাজার রোহিঙ্গা। বর্তমানে এদের অধিকাংশই তাঁবু খাটিয়ে এবং অনেকেই খোলা আকাশের নিচে বাস করছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দুর্যোগ ব্যবস্হাপনা মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মহসিন জানিয়েছিলেন, ৩৮০০ রোহিঙ্গা পরিবারকে বিভিন্ন জায়গায় আশ্রয় দেওয়া হয়েছে। বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি ও রেডক্রিসেন্টসহ সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থা গতকাল দুপুর থেকে রোহিঙ্গাদের খাদ্য সহায়তা দিচ্ছে।

ত্রাণ মন্ত্রণালয় সচিব মোহাম্মদ মহসিন জানিয়েছেন, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা তদন্তে সাত সদস্যের কমিটি কাজ শুরু করে দিয়েছে। তিন দিনের মধ্যেই তারা রিপোর্ট জমা দেবে। ত্রাণ মন্ত্রণালয় জরুরি সহায়তা হিসেবে ১০ লাখ টাকা ও ৫০ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দিয়েছে বলে জানান তিনি।