সংবাদ শিরোনাম

ছাত্রলীগ নেতার প্যান্ট চুরির ভিডিও ভাইরাল!পাটগ্রামে ইউএনও’র উপর হামলা, আটক ৬আগের সব রেকর্ড ভেঙ্গে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ৮৩ জনেরশফী হত্যা মামলা: মামুনুল-বাবুনগরীসহ ৪৩ জনকে অভিযুক্ত করে প্রতিবেদনখালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় সারাদেশে দোয়া কর্মসূচিরোহিঙ্গা শিবিরে ফের অগ্নিকান্ডসালথায় তান্ডব: এসিল্যান্ডের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগের সত্যতা মিলেনিশাহজাদপুরে কৃষকদের মাঝে হারভেস্টার মেশিন বিতরণচাঁদপুরে গণমাধ্যম সপ্তাহের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পেতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপিশ্রমিকদের যাতায়াতের ব্যবস্থা না করলে আইনি পদক্ষেপ : শ্রম প্রতিমন্ত্রী

  • আজ ৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মুক্তি দাবি হেফাজতের

৬:০৩ অপরাহ্ন | বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৫, ২০২১ জাতীয়
atok

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে মতিঝিল এলাকায় বিক্ষোভ ও সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের হাতে আটক ‘শিশুবক্তা’ হিসেবে পরিচিত রফিকুল ইসলামের মুক্তি দাবি করেছেন হেফাজত ইসলামের মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলাম জেহাদি।

আজ বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) বিকেলে এক বিবৃতিতে তিনি এ দাবি জানান।

বিবৃতিতে হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব বলেন, ‘নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আগমনের বিরোধিতা করে যুব অধিকার পরিষদের বিক্ষোভ মিছিল থেকে তরুণ বক্তা রফিকুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। আমরা অনতিবিলম্বে তাঁর নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করছি। মোদির মতো ইসলামের শত্রুর আগমনের বিরোধিতা করায় একজন আলেমকে আটক করার ঘটনা কোনোভাবেই দেশবাসী মেনে নেবে না।’

ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর মতিঝিল এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করে নুরুল হকের যুব অধিকার পরিষদ। অন্তত তিন শতাধিক ব্যক্তি এই বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেয়। দুপুর ১২টায় মতিঝিলে পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় সাত পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে গুরুতর আহত অবস্থায় চার পুলিশ সদস্য রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স হাসপাতালে ভর্তি।

এছাড়াও মিছিলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের ১০/১৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ ৩৪ জন কর্মীকে আটক করেছে বলে জানা গেছে। এরমধ্যে শিশুবক্তা রফিকুল ইসলামও রয়েছেন।

রফিকুলকে আটক করার পর তাঁকে প্রিজন ভ্যানে তোলা হয়। তখন রফিকুল ফেসবুকে লাইভ করেন। পরে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

এ সময় রফিকুল ইসলাম ফেসবুক লাইভে বলেন, আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ। সম্মানিত দেশবাসী! আপনার দেখছেন, পুলিশ আমাদেরকে গ্রেপ্তার করে প্রিজনভ্যানে নিয়ে এসেছে।

রফিকুল ইসলাম আরও বলেন, আমরা বলতে চাই, আমরা দেশের বিরুদ্ধে নই এবং ইসলামের বিরুদ্ধে না। আমাদেরকে পুলিশ ভাইয়েরা আঘাত করেছে। আমরা তাদেরকে বলবো, আমাদের আঘাত করা আর দেশকে আঘাত করা একই কথা। আমরা দেশের বিরুদ্ধে নই এবং ইসলামের বিরুদ্ধে নয় আমরা মোদির বিরুদ্ধে।