• আজ ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সোমবার থেকে স্থগিত অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট, পূর্ব নির্ধারিত থাকবে আন্তর্জাতিক

১১:১১ পূর্বাহ্ন | রবিবার, এপ্রিল ৪, ২০২১ আলোচিত বাংলাদেশ
biman

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ করোনার দ্বিতীয় দফা সংক্রমণ ঝুঁকি প্রতিরোধে সোমবার থেকে দেশের সব অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিভিল এভিয়েশন অথরিটি অব বাংলাদেশ (সিএএবি)।

শনিবার সিভিল এভিয়েশন চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মোহাম্মদ মফিদুর রহমান গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, সরকারের প্রজ্ঞাপনের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পূর্ব নির্ধারিত সময় অনুযায়ী চলবে এবং এই আদেশের আওতায় পড়বে না বলেও জানান তিনি।

করোনার সংক্রমণরোধে লকডাউন ঘোষণা করা হলে অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চলাচলও বন্ধ থাকবে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জারিকৃত আদেশে যেদিন থেকে লকডাউন শুরু হবে সেদিন থেকেই অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চলাচল বন্ধ থাকবে। বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) এমন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

বেবিচকের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. সোহেল কামরুজ্জামান শনিবার রাতে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে জানান, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় সরকারের লকডাউন বিধির ওপর ভিত্তি করে বেবিচক থেকে এ-সংক্রান্ত নোটিশ জারি করা হবে।

এর আগে শনিবার (৩ এপ্রিল) সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানান, আগামী সোমবার থেকে দেশে এক সপ্তাহের লকডাউন চলবে। এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ও নির্দেশনা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় জানাবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

একই দিন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, আগামী দু-তিন দিনের মধ্যে সাতদিনের লকডাউনের আদেশ জারি হতে পারে।

সম্প্রতি দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আশঙ্কাজনকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকার লকডাউনের এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এক সপ্তাহের ব্যবধানে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু, নমুনা পরীক্ষা, নতুন রোগী শনাক্ত এবং সুস্থ রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। এপিডেমিওলজিক্যাল ১২তম সপ্তাহের (২১ থেকে ২৭ মার্চ) সঙ্গে এপিডেমিওলজিক্যাল ১৩ম সপ্তাহের (২৭ মার্চ থেকে ৩ এপ্রিল) তুলনামূলক বিশ্লেষণে দেখা গেছে, বিগত সপ্তাহের তুলনায় চলতি সপ্তাহে মৃত্যু ৭১ দশমিক ১৪ শতাংশ, নমুনা পরীক্ষা ৪ দশমিক শূন্য ৮ শতাংশ, শনাক্ত ৬৬ দশমিক ৫৪ শতাংশ এবং সুস্থ রোগীর সংখ্যা ২০ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ বেড়েছে।

প্রসঙ্গত,  এর আগে, বাংলাদেশসহ বিশ্বজুড়ে করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে থাকলে ইউরোপের ২৫টি দেশসহ মোট ৩৭টি দেশের সঙ্গে ফ্লাইট বন্ধ ঘোষণা করে বেবিচক। তবে যুক্তরাজ্য এই তালিকায় ছিল না। যদিও এর মধ্যে যুক্তরাজ্যই বাংলাদেশ থেকে যাত্রীদের প্রবেশ করতে দেবে না বলে জানিয়েছে।

স্বাস্থ্য ও এভিয়েশন খাতের বিশেষজ্ঞরা বলছিলেন, এ পরিস্থিতিতে বিভিন্ন দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের আকাশপথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেওয়া উচিত। তবে বেবিচক কর্মকর্তাসহ বেসরকারি বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলীও জানিয়েছিলেন, তারা আপাতত আকাশপথে যোগাযোগ বন্ধ করার কথা ভাবছেন না।