স্বাস্থ্যবিধির বালাই নেই লঞ্চে: করোনা ঝুঁকি নিয়েই ঘরে ফিরছেন দক্ষিণবঙ্গের মানুষ

ghat
❏ রবিবার, এপ্রিল ৪, ২০২১ ঢাকা, দেশের খবর

মেহেদী হাসান সোহাগ, স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর- স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্বের কোনো বালাই নেই মাদারীপুরের বাংলাবাজার ঘাটে। করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি নিয়েই ঘরে ফিরতে শুরু করেছেন দক্ষিণবঙ্গের মানুষ। সরকার কর্তৃক দেশব্যাপী লকডাউনের ঘোষণা দেওয়ায় শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌ-রুটে যেন পারাপারের প্রতিযোগিতায় নেমেছেন মানুষ।

দক্ষিণবঙ্গের ২১টি জেলার প্রবেশদ্বার হিসেবে পরিচিত বাংলা বাজারঘাট লঞ্চ ও স্পিডবোট ঘাটে গিয়ে দেখা যায়, পদ্মা পাড়ি দিচ্ছেন হাজার হাজার মানুষ। তবে লঞ্চে জনপ্রতি ২০ টাকা ভাড়া বাড়ানো হলেও কোন ধরণের স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না লঞ্চ কর্তৃপক্ষ ও যাত্রীরা। নেই কোন সামাজিক দূরত্ব।

বাংলাবাজার সি-বোট ঘাটে গিয়ে দেখা যায়, জনপ্রতি ২শত টাকা ভাড়া দিয়েই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পদ্মা নদী পাড়ি দিচ্ছেন অনেকে। বর্তমানে এই নৌরুটে ৮৭টি লঞ্চ ও ২শত স্পিডবোট চলাচল করছে।

ঢাকা থেকে খুলনাগামী যাত্রী রতন বলেন, কাল থেকে লকডাউন দিছে সরকার তাই বাড়ি যাচ্ছি, লঞ্চে আগের মতই গাদাগাদি করেই ছুটছে মানুষ। এতে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার ঝুঁকি রয়েছে।

বরিশালগামী যাত্রী হায়দার জানান, একসপ্তাহ লকডাইন এসময় ঢাকা থেকে কি করবো, তাই বাবা- মা ও পরিবারের সাথে সময় দিতেই এখন এতো কস্ট করে বাড়ী যাচ্ছি। করোনা নিয়ে এখন ভেবে কি হবে’ মৃত্যু যেদিন আসবে সেদিন হবে।’

বিআইডব্লিটিসিএ’র বাংলাবাজার ঘাটের ট্রাফিক ইনচার্জ আক্তার হোসেন বলেন, সকাল থেকে ঘরমুখো যাত্রীদের ভিড় বেশি। করোনা সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে তাদেরকে মাইকিং করে নিরাপদ দূরুত্বে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়। লঞ্চগুলোকে ট্রিপ শেষে ওয়াশ করা হয়। এছাড়া সকল যাত্রীদের মাস্ক বাধ্যতামূলকভাবে লঞ্চে ওঠানো হয়।