• আজ ২৯শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশে গিয়েও দাঙ্গা বাঁধিয়েছেন মোদি : মমতা

১০:২৪ পূর্বাহ্ন | মঙ্গলবার, এপ্রিল ৬, ২০২১ আন্তর্জাতিক
momota

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সাম্প্রতিক বাংলাদেশ সফরকে কেন্দ্র করে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য রাজনীতিতে চলছে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা। এ সফর নিয়ে তর্ক-বিতর্ক চরমে পর্যায়ে উঠেছে। খবর- বিবিসি বাংলার

ওই রাজ্যে নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর সময় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি অভিযোগ করেছেন, অল্প সময়ের জন্য বাংলাদেশে গিয়েও ‘নরেন্দ্র মোদি সেখানে দাঙ্গা বাঁধিয়ে দিয়ে এসেছেন।’

ওই সফরে গিয়ে মোদি আসলে পশ্চিমবঙ্গের ভোটের প্রচার চালিয়েছেন বলেও মমতা ব্যানার্জি অভিযোগ করেছিলেন।

বিজেপি অবশ্য যথারীতি এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে এবং প্রকাশ্যেই বলছে, বাংলাদেশের অত্যাচারিত হিন্দুদের জন্য সহমর্মিতা দেখানোতে কোনো অন্যায় নেই।

মাত্র দু’দিনের রাষ্ট্রীয় সফর সেরে নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশ থেকে ফিরে এসেছেন তাও দিনদশেক হতে চলল। কিন্তু, ওই সফরকে ঘিরে এখনো আলোড়িত হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনী রাজনীতি।

মোদির সফরের সময় বাংলাদেশের নানা প্রান্তে যে সহিংস বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ হয়েছে, তার প্রতি ইঙ্গিত করে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেসের নেত্রী মমতা ব্যানার্জি রোববার বিকেলে হুগলী জেলার খানাকুলে এক জনসভায় প্রধানমন্ত্রীকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আপনি আগে দিল্লি গিয়ে দিল্লিটা সামলান তো! দিল্লির তো সর্বনাশ করে দিয়ে এসেছেন! তিন দিনের জন্য বাংলাদেশ গিয়েছিলেন। ওখানে গিয়েও দাঙ্গা লাগিয়ে দিয়ে এসেছেন। আগে নিজেকে সামলান!

আর আপনি নিজেকে কী ভাবেন? অতিমানব না ঈশ্বর? দাঙ্গা করে, খুন করিয়ে আবার আপনাদের চোখ দিয়ে জল পড়ে! ভালো নাটকও করতে জানেন আপনারা!’

এর আগেও মমতা ব্যানার্জি অভিযোগ করেছিলেন, বাংলাদেশ সফরে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদি আসলে পশ্চিমবঙ্গের ভোটের প্রচার চালাচ্ছেন – তাই তার সে দেশের ভিসা বাতিল করা উচিত।

যশোর ও গোপালগঞ্জে হিন্দুদের দু’মন্দিরে মোদির সফরের পটভূমিতেই তিনি ওই মন্তব্য করেন।