🕓 সংবাদ শিরোনাম

চুয়াডাঙ্গায় ৬ বছ‌রের শিশুকে ধর্ষণ, অভিযুক্ত যুবক গ্রেফতারলাথি দেওয়া সেই শিক্ষক ছেলের আইনানুগ বিচার চান বাবামানিকগঞ্জে ধর্ষণ মামলায় চেয়ারম্যান গ্রেফতারহামলা ঠেকাতে প্রশাসন ব্যর্থ নাকি গাফিলতি, প্রশ্ন ইনুরগোপালগঞ্জে পিকআপ ভ্যান ও নসিমনের মধ্যে সংঘর্ষে নিহত ২লিটারে ৭ টাকা বাড়ল সয়াবিন তেলের দামযুবলীগ চেয়ারম্যানের নম্বর ক্লোন করে প্রতারণা, মূলহোতাসহ গ্রেফতার ২ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর বিকৃত ছবি শেয়ার করায় সাংবাদিক গ্রেপ্তারহিন্দু ভাই-বোনদের ভয় নাই, পাশি আছি: ওবায়দুল কাদেরসহিংসতায় দায়ীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

  • আজ মঙ্গলবার, ৩ কার্তিক, ১৪২৮ ৷ ১৯ অক্টোবর, ২০২১ ৷

মাঝরাতে মাদ্রাসা পড়ুয়া ভাগ্নিকে অশ্লীল ভিডিও দেখিয়ে ধর্ষণচেষ্টা! আটক লম্পট খালু

মাদরাসাছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা
❏ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ৮, ২০২১ ঢাকা, দেশের খবর

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ অষ্টম শ্রেণির এক মাদরাসাছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে তার আপন খালুর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় পুলিশ শওকত মিয়া (৪৫) নামে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে।

গত ২৯ মার্চ রাতে ধর্ষণচেষ্টার এ ঘটনাটি ঘটে। পরে এ ব্যাপারে মাদরাসাছাত্রীর বাবা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করলে শওকতকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ঘটনার স্থান, নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলা। মামলার প্রাথমিক অভিযোগসুত্র মতে, ঘটনার রাতে অভিযুক্ত খালু মাদ্রাসাছাত্রীকে ঘুম থেকে ডেকে উঠিয়ে মোবাইল ফোনে জরুরী কিছু দেখানোর ছলে একসময় অশ্লীল ভিডিও দেখানো শুরু করে! কিছু বুঝে উঠার আগেই লম্পট খালু ধর্ষণ চেষ্টা চালায়। তবে কৌশলে সেসময় নিজেকে রক্ষা করে ঘটনার শিকার মাদ্রাসা ছাত্রী।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা গেছে, গত ২৯ মার্চ রাতে মামলার বাদীর মেয়ে মাদরাসাছাত্রীর সঙ্গে বিবাদীর মেয়ে আপন খালাতো বোন হওয়ায় শবে বরাতের নামাজ আদায় করে বিবাদীদের ঘরে ঘুমিয়ে পড়ে। রাত সাড়ে ১২টার দিকে শওকত মিয়া ওই ছাত্রীকে ঘুম থেকে জাগিয়ে অশ্লীল ভিডিও দেখিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। পরে মাদরাসাছাত্রী বিষয়টি তার বাবা-মাকে জানালে এ ঘটনায় ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে বন্দর থানায় মামলা দায়ের করেন।

এ ঘটনায় বুধবার (৭ এপ্রিল) পুলিশ ওই ছাত্রীর খালু শওকত মিয়াকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠিয়েছে। সেইসঙ্গে ভুক্তভোগীকেও জবানবন্দির জন্য আদালতে পাঠায়।

নারায়ণগঞ্জ বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকার্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এরকম আরও সংবাদ

কলেজছাত্রীর আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে ব্লাকমেইল, আটক ২ কলেজছাত্র

প্রকাশঃ  ৮:১২ পূর্বাহ্ন | বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ৮, ২০২১

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ চট্টগ্রাম নগরের পাঁচলাইশ থানা এলাকার এক কলেজছাত্রীর আপত্তিকর ভিডিও ধারণ ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়ানোর অভিযোগে দুই কলেজ ছাত্রকে আটক করেছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কাউন্টার টেররিজম ইউনিট।এছাড়াও এ ঘটনায় জড়িত আরও এক প্রহরীর ছেলেকে আটক করার চেষ্টা চলছে বললে জানিয়েছে পুলিশ।

বুধবার (৭ এপ্রিল) নগরের পাঁচলাইশ ও নন্দনকানন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়েছে। আটক ছাত্ররা হলেন- চট্টগ্রাম ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির ছাত্র অভিষেক সেন শর্মা (১৯) ও সেন্টপ্লাসিড স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্র আদিত্য বড়ুয়া (১৮)। তারা আপন খালাতো ভাই বলে জানা গেছে।

পুলিশ জানায়, গত ২৯ মার্চ ভুক্তভোগী কলেজছাত্রীর কাপড় পাল্টানোর একটি ভিডিও তারই ফেসবুক মেসেঞ্জার ও হোয়াটস অ্যাপে পাঠান অভিষেক। এরপর ভিডিওটি অন্যান্য ওয়েবসাইটে আপলোড করার হুমকি দিয়ে তিনি টাকা দাবি করেন। বিষয়টি ভুক্তভোগীর পরিবার পুলিশের কাছে জানালে পাঁচলাইশ এলাকায় অভিযান চালিয়ে অভিষেককে আটক করে পুলিশ।

পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অভিষেক স্বীকার করেন, তিনি এক প্রহরীর ছেলের মাধ্যমে গোপনে কলেজছাত্রীর আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে তার খালাতো ভাই আদিত্যকে দেন। আদিত্য এসব ভিডিও বিভিন্ন ওয়েবসাইটে আপলোড করেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে নন্দনকানন এলাকা থেকে আদিত্য বড়ুয়াকেও আটক করে।

নগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার আসিফ মহিউদ্দীন বলেন, আপত্তিকর ভিডিও ধারণ ও বিভিন্ন ওয়েবসাইটে ছড়ানোর অভিযোগে দুই শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত আরও এক প্রহরীর ছেলেকে আটক করার চেষ্টা চলছে। তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা করা হচ্ছে।

গত ৬ এপ্রিল প্রকাশিত এরকম আরও সংবাদ

নওগাঁ প্রতিনিধি | ০৬ এপ্রিল, ২০২১
নওগাঁর মহাদেবপুরে এক কলেজছাত্রীর অনৈতিক সম্পর্কের গোপন ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়ার হুমকির অভিযোগে দুজনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার একটি কলেজের একাদশ শ্রেণির এক ছাত্রীর (১৭) সাথে একই কলেজের ছাত্র ও রাইগাঁ গ্রামের মধ্যপাড়ার বাসিন্দা রায়হান সিদ্দিকির ছেলে সাইদিস হাসান সনির (১৯) দুই বছর আগে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

ওই সম্পর্কের সূত্র ধরে সাইদিস হাসান কলেজছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভনে শারীরিক সর্ম্পক গড়ে তোলে। এই শারীরিক সর্ম্পক গড়ে তোলার সময় সনি গোপনে মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করে রাখে।

সম্প্রতি ওই কলেজ ছাত্রী তাকে বিয়ের প্রস্তাব দিলে সাইদিস তার প্রস্তাব প্রত্যাখান করে এবং পুনরায় তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করতে চায়। গত ২৮ মার্চ সনির মোবাইলে ধারণকৃত ওই ভিডিওটি তার বন্ধু রাইগাঁ বাজারের কালিদাসের ছেলে অভিজিৎ এর মোবাইলে শেয়ার করে। অভিজিৎ ওই ভিডিওটি ছাত্রীকে দেখিয়ে তার প্রেমিক সনির সাথে পুনরায় শারীরিক সম্পর্ক করার কথা বলে। এ প্রস্তাবে ওই কলেজ ছাত্রী রাজি না হলে ভিডিওটি ইন্টারনেট ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয় প্রেমিক সাইদিস।

গত ৪ এপ্রিল ওই কলেজ ছাত্রী তার পরিবারের লোকজনকে বিষয়টি জানায়। এ ঘটনায় কলেজ ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মঙ্গলবার থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ও পর্নোগ্রাফি আইনে সাইদিস হাসান সনি ও তার বন্ধু অভিজিৎ এর বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় পুলিশ প্রেমিক সাইদিস হাসান সনিকে গ্রেফতার করেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজম উদ্দিন মাহমুদ সাংবাদিকদের বলেন, প্রধান আসামিকে আটক করা হয়েছে এবং ভিকটিমকে ২২ ধারায় জবানবন্দীর রেকর্ডের জন্য আদালতে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন

অশ্লীল ভিডিওসহ মেসেঞ্জারে আপত্তিকর ছবি মিললো ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে!

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন