🕓 সংবাদ শিরোনাম

রোজিনার সঙ্গে যারা অন্যায় করেছে, তাঁদের জেলে পাঠান: ডা. জাফরুল্লাহকেরানীগঞ্জে ফ্ল্যাট থেকে যুবতীর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধারপাটগ্রাম সীমান্তে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের দায়ে নারী ও শিশুসহ ২৪জন আটকসাংবাদিকদের ভয় দেখিয়ে সরকার গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করতে চায়: ভিপি নুরসাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা নয়, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন: হানিফআর এমন ভুল হবে না: নোবেলস্বেচ্ছায় কারাবরণের আবেদন নিয়ে থানায় অনুসন্ধানী সাংবাদিকেরাইসরায়েলি আগ্রাসনের প্রতিবাদে রাস্তায় ঢাবি শিক্ষক সমিতিযমুনা নদীতে ডুবে তিন কলেজ ছাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু‘বাংলাদেশে সাংবাদিকতাকে তথ্য চুরি বলা হচ্ছে, এর চেয়ে দুঃখ আর নেই’

  • আজ বুধবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৯ মে, ২০২১ ৷

চিরকুট লিখে হাসপাতালের ১১তলা থেকে লাফিয়ে করোনা রোগীর আত্মহত্যা!

করোনা রোগী
❏ শনিবার, এপ্রিল ১৭, ২০২১ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক-রাজধানীর মুগদা জেনারেল হাসপাতালের ১১তলার ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে হাসিব ইকবাল (৫০) নামে করোনা আক্রান্ত এক রোগী আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, নিহত আসিফ ইকবালের বয়স ৫০ বছর। তিনি অবিবাহিত ছিলেন। তার বাসা রাজধানীর ইস্কাটনে। তার আত্মীয়-স্বজনরা বেশিরভাই যুক্তরাষ্ট্রে থাকেন।

হাসপাতালের একজন স্টাফ জানিয়েছেন, আত্মহত্যার আগে একটি চিরকুট রেখে গেছেন আসিফ ইকবাল। ওই চিরকুটে লেখা ছিল, ‘আমার মৃত্যুর পর মরদেহ যেন ইসলামি শরিয়ত অনুযায়ী দাফন করা হয়।’

তিনি জানান, চিরকুটে তিনি তার স্বজনদের কয়েকজনের মোবাইল নম্বরও লিখে রেখেছিলেন। তবে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও কেউ লাশ নিতে আসেননি।

মুগদা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রলয় কুমার সাহা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, হাসিব ইকবাল করোনা আক্রান্ত হয়ে মুগদা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১১ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, হাসিব ইকবাল হাসপাতালের ১১তলায় করোনা ইউনিটে ভর্তি ছিলেন। কী কারণে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে সে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

মুগদা জেনারেল হাসপাতালের পরিচালক সাংবাদিকদের বলেন, হাসপাতালে ১১তলার ১১০৬ নম্বর কেবিনে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন হাসিব ইকবাল। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

ঘটনাস্থল থেকে মুগদা থানার উপ-পরিদর্শক এসআই) শরিফুল ইসলাম বলেন, হাসিব ইকবাল হাসপাতালের ১১তলায় করোনা ইউনিটে ভর্তি ছিলেন। প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি ১১তলা থেকে তিনি লাফিয়ে পড়ে আত্মহত্যা করেছেন। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

মুগদা জেনারেল হাসপাতালের পরিচালক ডা. অশিন কুমার নাথ বলেন, ওই রোগী হাসপাতালে ১১তলার ১১০৬ নম্বর কেবিনে করোনা আক্রান্ত হয়ে ভর্তি ছিলেন। এখন সেই রোগী বেলকনি থেকে পড়ে মারা গেছেন নাকি অন্য কিছু জানি না। আমরা পুলিশকে বিষয়টি জানিয়েছি। তারা তদন্ত করে বিষয়টি বের করবে।

আরও পড়ুনঃ

বিয়ে না দেয়ায় চিরকুট লিখে যুবকের আত্মহত্যা