বাসার দরজা ভেঙে তারেক শামসুর রেহমানের মরদেহ উদ্ধার

tarek samsur
❏ শনিবার, এপ্রিল ১৭, ২০২১ ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক, কলাম লেখক ও রাজনীতি বিশ্লেষক ড. তারেক শামসুর রেহমানের বাসা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার (১৭ এপ্রিল) দুপুরে ঢাকায় রাজউকের উত্তরা অ্যাপার্টমেন্ট প্রজেক্টে নিজের বাসায় তার মরদেহ পাওয়া যায়।

তুরাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদি হাসান জানান, ডাকাডাকি করে কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে পুলিশে খবর দেন শামসুর রেহমানের প্রতিবেশীরা। পরে পুলিশ গিয়ে দরজা ভেঙে মরদেহ উদ্ধার করে।

রাজউক উত্তরা অ্যাপার্টমেন্ট প্রজেক্ট দোলনচাঁপা ভবন-১, ১৩০৪ নম্বর ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন রেহমান। তার পরিবারের সদস্যরা আমেরিকায় থাকেন, ভাই থাকেন পিরোজপুর।

রাজউকের উত্তরা অ্যাপার্টমেন্ট প্রজেক্টের প্রকল্প পরিচালক মো. মোজাফফর আহমেদ বলেন, ‘সকালে তারেক শামসুর রেহমানের কাজের বুয়া বাসায় যান। কলিংবেল দিলেও তিনি দরজা খোলেননি। পরে বুয়া নিচে সিকিউরিটিকে বিষয়টি জানান। এরপর আশপাশের সবাই ফ্লাটে গিয়ে তাকে ডাকাডাকি করেন, ফোনে কল দেন।

‘রিংটোন শোনা যাচ্ছিল, কিন্তু ভেতর থেকে শামসুর রেহমান সাহেবের কোনো সাড়াশব্দ পাওয়া যায়নি। কোনো সাড়া না পেয়ে তুরাগ থানার ওসিকে জানাই। উনাদের টিম এসে দরজা ভেঙে মরদেহ উদ্ধার করেছে।’

মোজাফফর জানান, তারেক শামসুর রেহমানের মরদেহটি বাথরুমের সামনে পরে ছিল। সেখানে বমি দেখা যায়।

তুরাগ থানার আরেক কর্মকর্তা জানান, অধ্যাপক রেহমানের মরদেহ ফ্ল্যাটের টয়লেটের সামনে পড়েছিল। মৃত্যুর আগে তিনি বমি করেছেন বলে প্রাথমিক আলামতে মনে হচ্ছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর তারেক শামসুর রেহমান আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রিধারী।

আন্তর্জাতিক রাজনীতি, আন্তরাষ্ট্রীয় সম্পর্ক ও বৈদেশিক নীতি এবং তুলনামূলক রাজনীতি নিয়ে লেখালেখিতে সুনাম রয়েছে তার। এসব বিষয়ে রয়েছে তার একাধিক গ্রন্থ। এর মধ্যে ‘বিশ্ব রাজনীতির ১০০ বছর’ অন্যতম।

অধ্যাপনার পাশাপাশি ড. রেহমান পত্রপত্রিকায় সমকালীন বিশ্ব পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত কলাম লিখতেন।