বগুড়ার তুচ্ছ ঘটনায় বাড়িঘর ভাঙচুর-লুটপাট, আহত ৪

ahoto
❏ রবিবার, এপ্রিল ১৮, ২০২১ রাজশাহী

সাখাওয়াত হোসেন জুম্মা, বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ার শেরপুরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী কায়দায় বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনায় ৪ জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।

শনিবার (১৭ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ইফতারের পূর্বে মহিপুর বারইপাড়া কালীতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় মহিপুর বারইপাড়া কালীতলা এলাকার দিনারের ছেলে আশিক (১৮) স্ত্রী রাশেদা খাতুন (৪০) প্রতিবেশী বেলাল(৪২) ও তার স্ত্রী সাহানা খাতুন (৩৫) আহত হয়েছে।

অভিযোগ ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়, শেরপুর উপজেলার গাড়িদহ ইউনিয়নের মহিপুর (বারইপাড়া) এলাকায় গত চার দিন পূর্বে করতোয়া নদীর পারের জমিতে দাঁড়িয়ে মাছ ধরছিল। ওই নদীর পাড়ে জমির ধান নষ্ট হওয়াকে নিয়ে দুজনের মাঝে কথা কাটাকাটি হয় হাজিপুর এলাকার মনসের আলী ও দিনারের সাথে।

এ ঘটনায় পৌর শহরের হাজীপুর এলাকার মনছেরের ছেলে হেলালসহ নাহিদ, জাকারিয়া, আলিফ, আরিফ, রাখি আরো ৬ জন চারটি মোটর সাইকেল নিয়ে ইফতারের পূর্ব মূহুর্তে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে দিনারের বাড়িতে সন্ত্রাসী কায়দায় হামলা চালায়। সন্ত্রাসীরা দিনারের ছেলে আশিক ও স্ত্রী রাশেদা খাতুনকে পেয়ে বেধড়ক মারপিট এবং ভাংচুর করে।

এসময় তার বাড়িতে থাকা নগদ ১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা লুট করে নেয় তারা। সন্ত্রাসীদের মারপিটের সময় প্রতিবেশী বেলাল ও তার স্ত্রী সাহানা খাতুন এগিয়ে আসলে তাদেরও মারপিট করে। এসময় তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে প্রতিরোধ তৈরীর চেষ্টা করলে একটি মোটরসাইকেল রেখে পালিয়ে চলে যায় সন্ত্রাসীরা।

এ বিষয়ে রাশেদা খাতুন বলেন, আমি ইফতারের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি এ সময় দশ-বারোজন ছেলে এসে আমাদের উপর হামলা চালিয়ে বেদম মারপিট করে ১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে দিনার বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করে।

এ বিষয়ে শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত আবুল কালাম আজাদ জানান, বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।