মহানবী (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তি, ওষুধ ব্যবসায়ীকে গণধোলাই


❏ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৯, ২০২১ দেশের খবর

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মুসলমানদের হৃদয়ের স্পন্দন মহানবী হযরত মোহাম্মাদ (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তি করায় মো. রেজাউল করিম আকন্দ নামের এক ওষুধ ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার দিবাগত রাতে স্থানীয় জনতা তাকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। এ ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দা মো. মিরাজ হোসেন বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলায় রেজাউল করিম আকন্দ ছাড়াও আরও পাঁচ-ছয়জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে। ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আজ বৃহস্পতিবার তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নের চরআলগী এলাকার রহিমগঞ্জ বাজারে জনতার হাতে আটক হয় রেজাউল করিম (৪৭)। তিনি গৌরনদী উপজেলার দক্ষিণ পালরদী গ্রামের বাসিন্দা।

বর্তমানে তিনি বাবুগঞ্জ উপজেলার বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নের রহিমগঞ্জ এলাকায় বসবাস করেন এবং রহিমগঞ্জ বাজারে তার ‘ফ্যামিলি ওয়ার্ল্ড ফার্মেসী’ নামের একটি ওষুধের দোকান রয়েছে। পুলিশ তাকে ওই ফার্মেসি থেকেই গ্রেপ্তার করেছে।

বাবুগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিজানুর রহমান মামলার বরাত দিয়ে বলেন, বুধবার সকাল ৮টার দিকে রেজাউল করিম আকন্দ তার নিজ ফেসবুক আইডি থেকে মহানবী (সা.)-কে উদ্দেশ্যে করে অশালীন এবং মানহানিকর লেখা ও ছবি পোস্ট করেন।

ওসি বলেন, নিজের ফেসবুক আইডি থেকে মহানবীকে নিয়ে মানহানীকর এমন পোস্ট করার পর পরই স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এমনকি এ নিয়ে তাদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি বুঝতে পেরে অভিযুক্ত রেজাউল করিম ফেজবুক আইডি থেকে ওই পোস্ট ডিলেট করেন।

কিন্তু স্থানীয়রা ওই পোস্টটি মোবাইলে স্কিনশর্ট দিয়ে রাখেন এবং রাতেই রেজাউলকে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অবরুদ্ধ করে মারধর করেন।

ওসি মিজানুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে আগরপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের একটি টিম ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়। পরে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে আসে। রাতেই এই ঘটনায় ইউনিয়নের আলগীর চর গ্রামের মো. নুরুল হক চৌকিদারের ছেলে মো. মিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা করেছেন।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন