কক্সবাজারে দুর্বৃত্তদের গুলিতে ব্যবসায়ী নিহত, স্কুলছাত্রীসহ আহত ২

⏱ | সোমবার, মে ৩, ২০২১ 📁 Uncategorized
lsh

শাহীন মাহমুদ রাসেল, কক্সবাজার প্রতিনিধি:: কক্সবাজারের পেকুয়ায় বোরকা পরিহিত ছদ্মবেশী দুর্বৃত্তদের ধারালো অস্ত্রের কোপ ও বন্দুকের গুলিতে জয়নাল আবেদীন (৩৮) নামের এক ব্যবসায়ী মারা গেছেন। এ ঘটনায় নিহতের ব্যবসায়িক সহযোগী আলী আকবর (৩৬) ও স্কুলছাত্রী রিফা আক্তার (১৫) গুরুতর আহত হয়েছেন।

রোববার (২ মে) রাত ১০ টার দিকে উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের ফুলতলা স্টেশনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত জয়নাল আবেদীন মগনামা ইউনিয়নের আফজলিয়া পাড়া এলাকার মৃত নুরুন্নবীর ছেলে। তিনি চিংড়ী ঘেরের ব্যবসা করতেন। আহত আলী আকবর একই এলাকার রুস্তম আলীর ছেলে ও রিফা আক্তার নুর মোহাম্মদের মেয়ে ও নিহত জয়নালের ভাতিজি।

প্রত্যক্ষদর্শী আব্দুর রহিম বলেন, রাত সাড়ে ১০টার দিকে ফুলতলা স্টেশনে আশুর চায়ের দোকানের সামনে বসে জয়নাল আবেদীন ও তার ব্যবসায়ী সহযোগী আলী আকবর চা-নাস্তা খাচ্ছিলেন। এসময় ৩-৪ জন ব্যক্তি ফুলতলা স্টেশনের মাঝামাঝি দাঁড়িয়ে ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে ভীতি ছড়িয়ে লোকজনকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

একই সময় বোরকা পরিহিত ৮-১০ জন পুরুষ ঘিরে দাঁড়িয়ে তাদের ওপর গুলি ছুঁড়ে। গুলিবিদ্ধ হয়ে জয়নাল মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। আলী আকবর গুলিবিদ্ধ হয়ে সটকে পড়েন।

এসময় দুর্বৃত্তরা জয়নাল আবেদীনকে কিরিচ দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। বিষয়টি দেখতে পেয়ে ফুলতলা স্টেশনে মুদি পণ্যের জন্য আসা রিফা আক্তার চাচা জয়নালকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে তাঁকেও মাথায় কিরিচের কোপ ও কিল-ঘুষি মেরে আহত করে দুর্বৃত্তরা। পরে স্টেশনের ব্যবসায়ীরা এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা ফাঁকা গুলিবর্ষণ করতে করতে পালিয়ে যান। হামলাকারীরা ব্যাংকল ঘোনার (চিংড়ী ঘের) বাসায় গিয়ে অবস্থান করে।

নিহতের ভাই শাহাব উদ্দিন বলেন, আফজলিয়া পাড়া এলাকার আবু ছৈয়দ ও লঞ্চঘাট এলাকার মৃত নুরুল হোছেনের ছেলে নেজাম উদ্দিন ছোটন, সায়েদ, মোজাম্মেল, মোস্তাক, বুলু, আবুল কাশেম, আহমদ কবির, মকছুদ, নেছার, আবু হানিফ, শওকত আলম, জিয়াবুলসহ আরও ১০-১৫ জন সন্ত্রাসী সম্পূর্ণ পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়ে আমার ভাই জয়নাল আবেদীনকে হত্যা করেছ।

পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. তাহমিদুল ইসলাম বলেন, জয়নালের মাথায় ও ঘাড়ে ধারালো অস্ত্রের তিনটি গভীর ক্ষত এবং ডান হাতের বাহু ও বুকের ডানপাশে গুলির আঘাত আছে। আলী আকববের বুকের বামপাশে ও বাম হাতের বাহুতে গুলির আঘাত রয়েছে। রিফা আক্তারের মাথায় ধারালো অস্ত্রের গভীর ক্ষত রয়েছে। জয়নাল ও আলী আকবরের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মগনামা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরাফত উল্লাহ চৌধুরী ওয়াসিম বলেন, কিছুদিন আগে ফুলতলা স্টেশনে ফ্যানের বাতাসকে কেন্দ্র করে নেজাম উদ্দিন ছোটন ও জয়নাল আবেদীনের ছোট ভাই শাহাব উদ্দিনের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে। এই ঘটনার জের ধরে দুর্বৃত্তরা জয়নাল ও আলী আকবরের উপর পরিকল্পিতভাবে হামলা করে। হামলায় আহত জয়নাল ও আলী আকবরকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে নেওয়ার পথে মারা যায়। আহত আলী আকবরকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এদিকে জয়নাল আবেদীনের মৃত্যুর খবর জানাজানি হলে এলাকাবাসীরা হামলাকারীদের ধরতে তাঁদের ডেরার (ব্যাংকল ঘোনা) দিকে অগ্রসর হয়। এসময় হামলাকারীরা ঘেরের বাসায় আগুন দিয়ে সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

এব্যাপারে পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুর রহমান মজুমদার বলেন, দুর্বৃত্তদের হামলায় গুরুতর আহত জয়নাল আবেদীন মারা গেছে বলে খবর পেয়েছি। এ ঘটনায় জড়িদের ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।