ইসরায়েলকে সন্ত্রাসী রাষ্ট্র বললেন এরদোয়ান, ফিলিস্তিনিদের পাশে থাকার ঘোষণা

এরদোয়ান
❏ সোমবার, মে ১০, ২০২১ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ফিলিস্তিনের জেরুজালেমে মুসলিমদের পবিত্র স্থাপনা আল-আকসা মসজিদে তারাবির নামাজরত মুসলিমদের সঙ্গে ইসরায়েলি পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনায় ইসরায়েলের তীব্র নিন্দা করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান।

গত শনিবার এক টুইট বার্তায় এরদোয়ান ইসরায়েলের এমন জঘন্য কাজের তীব্র নিন্দা জানান। এসময়য় এরদোয়ান ইসরাইলকে ‘নিষ্ঠুর ও সন্ত্রসী রাষ্ট্র’ হিসেবে ঘোষণা করেন। পাশাপাশি তিনি ফিলিস্তিনিদের পাশে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন।

এরদোয়ান বলেন, আমরা সব সময় আমাদের ফিলিস্তিনি ভাই-বোনদের পাশে রয়েছি।

এরদোয়ান বলেন, যে নিজেকে মানুষ মনে করে তিন ধর্মের পবিত্র স্থান জেরুজালেমের ওপর হামলা করার বিরোধিতা করা তাদের নৈতিক দায়িত্ব। চুপ করে থাকা আর ইসরায়েলের পক্ষে অবস্থান নেওয়া একই কথা এবং ফিলিস্তিনির ওপর হামলায় সায় দেওয়াও একই কথা।

তিনি বলেন, জেরুজালেম নিজেই একটি পৃথিবী এবং মুসলিমরা সেখানকার বাসিন্দা। পবিত্র জেরুজালেম সম্মান শ্রদ্ধা রক্ষা করা প্রত্যেক মুসলমানের দায়িত্ব ও কর্তব্য। সেখানকার মসজিদ আল-আকসায় হামলা করা মানে আমাদের ওপর হামলা করা।

এর আগে গত শুক্রবার ফিলিস্তিনে মুসলিমদের পবিত্র আলআকসা মসজিদে তারাবির নামাজের সময় হামলা চালায় ইসরাইলি পুলিশ। হামলায় অন্তত ২০০ জন আহত হয়েছেন। গ্রেপ্তার করা হয়েছে অনেককেই। এই হামলার পরই মুসলিম বিশ্বের নেতার প্রতিক্রিয়া জানাতে আহ্বান করেন। পাশাপাশি ইসরায়েলের এই নির্যাতন বন্ধে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এদিকে জেরুজালেমে ইসরায়েলি হামলার প্রতিবাদে গতকাল শনিবার ইস্তাম্বুলে ইসরায়েলি কনস্যুলেটের বাইরে ৩০০ বেশি মানুষ বিক্ষোভ করেন।