🕓 সংবাদ শিরোনাম

যমুনা নদীর তীররক্ষা বাঁধের নির্মাণ কাজ শুরু হবে ৬ মাসের মধ্যেপাবনার চাটমোহরে সড়ক দুর্ঘটনায় বৃদ্ধের মৃত্যুআশুলিয়ায় মহাসড়ক থেকে শ্রমিকদের সরাতে পুলিশের টিয়ার শেল-জলকামান, নিহত ১দিনেদুপুরে প্রকাশ্যে গুলি করে একই পরিবারের ৩ জনকে হত্যানেতানিয়াহুর জন্য ১০ বছরের কারাদণ্ড অপেক্ষা করছে: আইনজীবীদক্ষিণ কেরানীগঞ্জে ১৯ কেজি গাঁজাসহ আটক ৩শায়েস্তাগঞ্জে ২৪ ঘন্টার মধ্যে ট্রেনে কাটা পড়ে ২ যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যুটিকার ঘাটতি দূর না হলে সামনে বিপদ: জাতিসংঘ মহাসচিববেইজ্জতিতে পড়েছে বিসিবি, ভয়ে ফোন ধরছেন না পাপনএবার ৬০ হাজার সৌদি নাগরিক ও প্রবাসী নিয়ে হজ পালনের ঘোষণা

  • আজ রবিবার, ৩০ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৩ জুন, ২০২১ ৷

‘বলাৎকারের শিকার’ শিশুর ৯৯৯-এ ফোন, ত্রিশালে মাদ্রাসার পরিচালক আটক

atok
❏ সোমবার, মে ১০, ২০২১ ময়মনসিংহ

মামুনুর রশিদ, ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি- ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার সদর ইউনিয়নের পূর্ব পাঁচপাড়া (ফায়ার সার্ভিস সংলগ্ন) অবস্থিত মারকাজুল হিদায়াহ মাদ্রাসার পরিচালক মুফতি ফরিদ আহম্মেদ (৪০) কে শিশু বলাৎকারের অভিযোগে আটক করছে ত্রিশাল থানা পুলিশ।

এ বিষয়ে ওসি মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন বলেন, হালুয়াঘাট উপজেলার ১২ বছরের এক শিশু মারকাজুল হিদায়া মাদ্রাসা থাকতো। লকডাউন চলাকালীন মাদ্রাসা বন্ধ ছিল। এসময়য় মাদ্রাসা পরিচালক মুফতি ফরিদ আহম্মেদ মাদ্রাসায় থাকতেন। মাদ্রাসা ছাত্র ওই শিশু গত ২১ এপ্রিল থেকে উক্ত মাদ্রাসায় থাকাকালীন সময়ে মুফতি ফরিদ আহম্মেদ প্রায় দিনই তাকে বলাৎকার করতেন।

ঘটনার দিন গত ৮ মে রাত আনুমানিক ১১টার দিকে মুফতি ফরিদ আহম্মেদ ভিকটিমকে বলাৎকার করতে চাইলে বাধা দিলে হুজুর তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে বলাৎকার করেন। ঘটনার পর আসামি কাউকে কিছু না বলার জন্য ভিকটিমকে ভয়ভীতি দেখায়।

পরে শিশুটি ঘর থেকে বের হয়ে ৯৯৯ এ কল দিলে ত্রিশাল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (নিঃ) মোঃ আমিনুল হক সঙ্গীয় ফোর্সসহ মাদ্রাসা ছাত্রকে উদ্ধার করে ত্রিশাল থানায় নিয়ে আসেন। ভিকটিমের জবানবন্দি অনুযায়ী উপ-পরিদর্শক (নিঃ) মোহাম্মদ আমিনুল হক এর নেতৃত্বে ত্রিশাল থানা পুলিশের একটি টিম উক্ত মাদ্রাসা থেকে মুফতি ফরিদ আহম্মেদকে আটক করতে সক্ষম হয়।

পরবর্তীতে ভিকটিমের মা হালুয়াঘাট থেকে সংবাদ পেয়ে এসে ত্রিশাল থানায় মামলা দায়ের করেন। ত্রিশাল থানার মামলা নং ১১, তাং ০৯/০৫/২০২১, ধারাঃ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশা/০৩) এর ৯ (১)।

আসামী মুফতি ফরিদ আহম্মেদকে ময়মনসিংহ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে আসামি ফৌজদারি কার্যবিধি ১৬৪ ধারা মোতাবেক জবানবন্দি প্রদান করে অপরাধ স্বীকার করেছেন।