🕓 সংবাদ শিরোনাম

পরীক্ষা এক বছর না দিলে বিরাট ক্ষতি হবে না : শিক্ষামন্ত্রীকর্মীদের আন্দোলনের দিবাস্বপ্ন দেখাচ্ছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদেরকরোনাকালে নার্সদের উৎসাহ-অনুপ্রেরণা দিতে বিভিন্ন হাসপাতালে ছুটে যাচ্ছেন মহাপরিচালকপ্রকাশ্যে একই পরিবারের ৩ জনকে গুলি করে হত্যা, হামলাকারী এএসআই আটকযমুনা নদীর তীররক্ষা বাঁধের নির্মাণ কাজ শুরু হবে ৬ মাসের মধ্যেপাবনার চাটমোহরে সড়ক দুর্ঘটনায় বৃদ্ধের মৃত্যুআশুলিয়ায় মহাসড়ক থেকে শ্রমিকদের সরাতে পুলিশের টিয়ার শেল-জলকামান, নিহত ১দিনেদুপুরে প্রকাশ্যে গুলি করে একই পরিবারের ৩ জনকে হত্যানেতানিয়াহুর জন্য ১০ বছরের কারাদণ্ড অপেক্ষা করছে: আইনজীবীদক্ষিণ কেরানীগঞ্জে ১৯ কেজি গাঁজাসহ আটক ৩

  • আজ রবিবার, ৩০ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৩ জুন, ২০২১ ৷

ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক অনেকটাই ফাঁকা

road
❏ বৃহস্পতিবার, মে ১৩, ২০২১ ঢাকা

মোল্লা তোফাজ্জল, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি- আগামীকাল শুক্রবার পবিত্র ঈদুল ফিতর। ঈদের আগের দিন অন্যান্য বছর এই মহাসড়কে যানজট থাকলেও এবছর ভিন্ন চিত্র। ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক অনেকটাই ফাঁকা হয়ে গিয়েছে। এ মহাসড়ক দিয়ে স্বাভাবিক গতিতেই চলছে যানবাহন।

বৃহস্পতিবার (১৩মে) সকালের মহাসড়কের করটিয়া, তারটিয়া, আশেকপুর, ঘারিন্দা, রসুলপুর, পৌলি, এলেঙ্গাসহ বিভিন্ন এলাকায় কোথাও গাড়ির ধীরগতি বা যানজট দেখা যায়নি। স্বাভাবিক গতিতে চলে যানবাহন।

তবে বুধবার (১২ মে) বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্বপার থেকে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার করটিয়া পর্যন্ত ৩০ কিলোকিমটার এলাকায় থেমে থেমে যানজটের সৃষ্টি হয়েছিলো।

পুলিশ জানায়, কঠোর বিধিনিষেদের মধ্যে গণপরিবহন ও ট্রেন বন্ধ রয়েছে। এ জন্য ট্রাক, পিকআপভ্যান, প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস, হাইস ও মোটরসাইকেলযোগে ফিরছে বাড়িমুখো মানুষ।তবে এ মহাসড়কে ঈদে ঘরমুখো মানুষের ভিড়ে যানবাহনের জট নেই। স্বাভাবিক গতিতেই চলছে যানবাহন। করোনা সংক্রমণ ও দুর্ঘটনার ঝুঁকি গাদাগাদি করে বাড়ি ফিরছেন ঘরমুখো মানুষ।

এদিকে গণপরিবহন বন্ধ থাকায় যাত্রীরা পড়েন চরম বিপাকে। মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে যাত্রীদের গাড়ির জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। বঙ্গবন্ধু সেতুর উপর দিয়ে গত তিন দিন রেকর্ড সংখ্যক যানবাহন পারাপার হয়েছে।

টাঙ্গাইল জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) সঞ্জিত কুমার রায় বলেন, ‘মহাসড়কে যানবাহন চলাচল আজকে একেবারেই স্বাভাবিক রয়েছে। কোথাও যানবাহন আটকে নেই। তবে গত দুইদিন প্রচুর গাড়ীর চাপ দেখা যায়। এক ঘন্টার রাস্তা ৪-৫ ঘন্টায় পার হয়েছে। কিন্তু গতকাল বিকেল থেকেই ধীরে ধীরে গাড়ির চাপ কমতে থাকে। এখন স্বাভাবিকভাবেই গাড়ি চলাচল করছে মহাসড়কে।