🕓 সংবাদ শিরোনাম

করোনাকালে নার্সদের উৎসাহ-অনুপ্রেরণা দিতে বিভিন্ন হাসপাতালে ছুটে যাচ্ছেন মহাপরিচালকপ্রকাশ্যে একই পরিবারের ৩ জনকে গুলি করে হত্যা, হামলাকারী এএসআই আটকযমুনা নদীর তীররক্ষা বাঁধের নির্মাণ কাজ শুরু হবে ৬ মাসের মধ্যেপাবনার চাটমোহরে সড়ক দুর্ঘটনায় বৃদ্ধের মৃত্যুআশুলিয়ায় মহাসড়ক থেকে শ্রমিকদের সরাতে পুলিশের টিয়ার শেল-জলকামান, নিহত ১দিনেদুপুরে প্রকাশ্যে গুলি করে একই পরিবারের ৩ জনকে হত্যানেতানিয়াহুর জন্য ১০ বছরের কারাদণ্ড অপেক্ষা করছে: আইনজীবীদক্ষিণ কেরানীগঞ্জে ১৯ কেজি গাঁজাসহ আটক ৩শায়েস্তাগঞ্জে ২৪ ঘন্টার মধ্যে ট্রেনে কাটা পড়ে ২ যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যুটিকার ঘাটতি দূর না হলে সামনে বিপদ: জাতিসংঘ মহাসচিব

  • আজ রবিবার, ৩০ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৩ জুন, ২০২১ ৷

বাবার ঈদ ছিলো আজ, ছেলের ঈদ কাল!

Chadpur news
❏ বৃহস্পতিবার, মে ১৩, ২০২১ চট্টগ্রাম

মাহফুজুর রহমান, চাঁদপুর প্রতিনিধি: দেশের আকাশে পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে। ফলে আগামীকাল শুক্রবার (১৪ মে) সারাদেশের ন্যায় যথাযোগ্য ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও উৎসাহ-উদ্দীপনায় পবিত্র ঈদুল ফিতর পালন করবেন চাঁদপুরের মতলব উত্তরের এনায়েতনগর এলাকার ঢাবি শিক্ষার্থী আবদুর রহমান মুন্না।

তবে চট্রগ্রামের মির্জাখীল দরবার শরীফের অনুসারী মুন্নার বাবা আমান উল্যাহ বেপারী সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে বৃহস্পতিবার (১৩ মে) সালাত আদায়ের মধ্য দিয়ে ঈদের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেছেন আজ।

তিনি জানান, ‘যুগ যুগ ধরে দরবারের হুজুরদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমরা সহ কয়েক গ্রামের মানুষ প্রতিবছর আগাম ঈদসহ ধর্মীয় অনুষ্ঠানগুলো পালন করে আসছি। এটাই আমাদের রেওয়াজ’

ছেলে আবদুর রহমান মুন্না জানান, ‘আমি পীরের মুরিদ হইনি, তাই আমি দেশে চাঁদ দেখার পরেই সবার সাথে ঈদ পালন করি। আমি আসলে এসবে বিশ্বাসী নই।’

চট্রগ্রামের মির্জাখিল দরবার শরীফের অনুসারী হিসেবে বহু আগ থেকেই চাঁদপুরের মতলব উত্তরের দেওয়ানকান্দি,পাঁচানী, সাড়ে পাঁচানী, বাহেরচর পাঁচানী, এনায়েতনগর, মাথাভাঙা, লতরদী ও আমিয়াপুর সহ কয়েকটি গ্রামের আংশিক সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে আগাম ঈদ পালন করে আসছে।

শুধু তাই নয় চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ, ফরিদগঞ্জ,, কচুয়া ও শাহরাস্তিসহ পাঁচ উপজেলার প্রায় ৪০ টি গ্রামে আগাম ঈদ উদযাপিত হয়েছে। হাজীগঞ্জের সাদ্রা মাদরাসা মাঠে আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টায় ঈদের জামাতে ইমামতি করেন মাওলানা আরীফ চৌধুরী। এ সময় আরীফ চৌধুরীর অনুসারী মুসল্লিরা ঈদের জামাতে অংশ নেন। পরে ক্রমান্বয়ে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

মাওলানা আরীফ চৌধুরী বলেন, মঙ্গলবার (১১ মে) সোমালিয়া, নাইজার ও পাকিস্থানে চাঁদ দেখে গেছে বলে খবর ছড়িয়ে পড়ে। এ খবর নির্ভরযোগ্য ছিল না। তাই বুধবার (১২ মে) আমরা ঈদুল ফিতর উদযাপন করিনি। তিনি বলেন, যারা দুই দিন আগে ঈদ করেছে তারা ভুল তথ্যের মধ্যে দিয়ে ঈদ পালন করেছে। আর সেই সংখ্যা খুবই কম।

মাওলানা আরীফ চৌধুরী জানান, চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার সাদ্রা, শমেষপুর, প্রতাপপুর, বলাখাল, অলিপুর এবং ফরিদগঞ্জ উপজেলার সুরাঙ্গচাইল, বাসারা, উভারামপুর, উটতলী, বাছপাড়া, কাইতাড়া, নুরপুর, সাচন মেঘ, ভূলাচোঁ, বদরপুর, আইটপাড়া গ্রামে ঈদের নামাজ আদায় করা হয়েছে।

এর আগে বুধবার (১২ মে) সোমালিয়া, নাইজার ও পাকিস্থানে চাঁদ দেখে গেছে- এমন খবরের ভিত্তিতে চাঁদপুরের কয়েকটি গ্রামে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে উৎসবমুখর পরিবেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হয়।এ নিয়ে আগাম ঈদ উদযাপনকারীদের মধ্যেই মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

১৯২৮ সাল থেকে মুফতি আল্লামা ইসহাক (রহ.) কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত চাঁদপুর জেলার সাদ্রা ঐতিহাসিক দরবার শরিফের ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা সর্বপ্রথম চাঁদ দর্শনের নির্ভরযোগ্য সংবাদের ভিত্তিতে প্রতিবছরই ঈদুল ফিতর, ঈদুল আজহাসহ ধর্মীয় সকল উৎসব পালন করেন। তবে এবার তাদের মাঝে দ্বন্দ্বের কারণে বুধবার ও বৃহস্পতিবার দুইদিন আগাম ঈদ উদযাপিত হয়।

দুদিন আগে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হওয়ার বিষয়ে সাদ্রা দরবার শরীফের বড় পীর ড. বাকী বিল্লা মিসকাত চৌধুরী বলেন, ‘পৃথিবীর যেকোনো স্থানে চাঁদ দেখার ভিত্তিতে আগাম ঈদ উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম।’