🕓 সংবাদ শিরোনাম

যমুনা নদীর তীররক্ষা বাঁধের নির্মাণ কাজ শুরু হবে ৬ মাসের মধ্যেপাবনার চাটমোহরে সড়ক দুর্ঘটনায় বৃদ্ধের মৃত্যুআশুলিয়ায় মহাসড়ক থেকে শ্রমিকদের সরাতে পুলিশের টিয়ার শেল-জলকামান, নিহত ১দিনেদুপুরে প্রকাশ্যে গুলি করে একই পরিবারের ৩ জনকে হত্যানেতানিয়াহুর জন্য ১০ বছরের কারাদণ্ড অপেক্ষা করছে: আইনজীবীদক্ষিণ কেরানীগঞ্জে ১৯ কেজি গাঁজাসহ আটক ৩শায়েস্তাগঞ্জে ২৪ ঘন্টার মধ্যে ট্রেনে কাটা পড়ে ২ যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যুটিকার ঘাটতি দূর না হলে সামনে বিপদ: জাতিসংঘ মহাসচিববেইজ্জতিতে পড়েছে বিসিবি, ভয়ে ফোন ধরছেন না পাপনএবার ৬০ হাজার সৌদি নাগরিক ও প্রবাসী নিয়ে হজ পালনের ঘোষণা

  • আজ রবিবার, ৩০ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৩ জুন, ২০২১ ৷

হিলি ইমিগ্রেশন দিয়ে ফিরতে পারবেন ভারতে আটকেপড়া বাংলাদেশিরা

HILI PIC-1
❏ রবিবার, মে ১৬, ২০২১ রংপুর

আব্দুল আজিজ, দিনাজপুর প্রতিনিধি: দিনাজপুরের হিলি ইমিগ্রেশন দিয়ে আজ থেকে দেশে ফিরতে পারবেন ভারতে চিকিৎসা ও অন্যান্য প্রয়োজনে গিয়ে আটকেপড়া বাংলাদেশি পাসপোর্টযাত্রীরা।

অবশ্য এসব যাত্রীদের কলকাতায় বাংলাদেশের উপ-হাইকমিশন থেকে এনওসি (নো অবজেকশন সার্টিফিকেট বা অনাপত্তিপত্র) নিয়ে তারপরে দেশে আসতে পারবেন। এরপর তাদের ইমিগ্রেশন, কাষ্টমস এবং স্বাস্থ্য বিভাগের আনুষ্ঠানিকতা শেষে স্থানীয় দুইটি আবাসিক হোটেলে ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে। সেখানে তারা নিজ খরচে অবস্থান করবেন।

এদিকে হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেকেন্দার আলী জানান, করোনার কারণে গত বছরের মার্চ থেকে হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পাসপোর্টযাত্রী পারাপার পুরোপুরি বন্ধ আছে। সম্প্রতি গত ১২ মার্চ সরকার ভারতে অবস্থান করা বাংলাদেশি পাসপোর্টযাত্রীদের দুর্ভোগ লাঘবে দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তারই আলোকে আজ রোববার থেকে ভারতে অবস্থান করা বাংলাদেশি পাসপোর্টযাত্রীরা কলকাতায় বাংলাদেশের উপ-হাইকমিশনের এনওসি নিয়ে হিলি চেকপোস্ট দিয়ে দেশে ফিরে আসতে পারবেন। ফিরে আসা এসব যাত্রীদের ইমিগ্রেশন কার্যক্রম সম্পন্ন করে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হবে। এদের মধ্যে অনেকে চিকিৎসা ও অন্যান্য প্রয়োজনে ভারতে গিয়ে আটকা পড়েন।

তিনি আরও জানান, শুধুমাত্র ভারতে অবস্থান করা বাংলাদেশি পাসপোর্টযাত্রীরা দেশে ফিরতে পারবেন। কিন্তু বাংলাদেশী কোন পাসপোর্টযাত্রী বা বাংলাদেশে অবস্থান করা ভারতীয় কোন পাসপোর্টযাত্রী ভারতে প্রবেশ করতে পারবেন না। প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে।

এদিকে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে দুই দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম স্বভাবিক রয়েছে। ভারতীয় ট্রাকগুলো আমদানিকৃত পণ্য নিয়ে বন্দরে প্রবেশের পর জীবানুনাশক স্প্রে করা হচ্ছে। সেই সাথে ট্রাকের চালককেও স্যানিটাইজ করা হচ্ছে। চালকরা যাতে বন্দরের বাইরে যেতে না পারেন সেজন্য পানামা পোর্ট কর্তৃপক্ষ নজরদারী বাড়িয়েছেন। প্রতিদিন এই বন্দর দিয়ে দুই শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক প্রবেশ করছে।