সুবর্ণচরে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ যুবলীগ নেতার  বিরুদ্ধে

noakhali rape trai news
❏ বৃহস্পতিবার, মে ২০, ২০২১ চট্টগ্রাম

মো: ইমাম উদ্দিন সুমন, স্টাফ রিপোর্টার:  নোয়াখালী সুবর্ণচরে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টা ও লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে। নির্যাতিতা গৃহবধূ বাদী হয়ে স্থানীয় চর জব্বর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। ভুক্তভোগী নারী সাতাশদ্রোন  গ্রামের সফি মিয়ার প্রবাসী পুত্র ইব্রাহিম বিটুর স্ত্রী। বিটু দীর্ঘদিন সৌদি আরবে থাকেন।

ঘটনাটি ঘটে ১৮ মে মঙ্গলবার রাত ২টা ৩০ মিনিটে সুবর্ণচর উপজেলার ৬নং চর আমান উল্যাহ ইউনিয়নের চরবজলুল করিম গ্রামের প্রবাসী ইব্রাহিম বিটুর বাড়ীতে। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চ্যল্যের সৃষ্টি হয়েছে এবং এলাকায় থমথমে পরিবেশের সৃস্টি হয়েছে। এমন ন্যাক্কার জনক ঘটনার বিচারের দাবীও তোলেন এলাকাবাসী।

অভিযুক্ত সাহাদাত হোসেন একই গ্রামের মৃত গোলাম মাওলা খোনারের পুত্র ৫ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি মো সাহাদাত হোসেন(৩৮)।

গৃহবধূ তাসলিমা (ছন্দনাম) জানান, আমার স্বামী প্রবাসে থাকায় মঙ্গলবার গভীর রাতে মৃত গোলাম মাওলা খোনারের পুত্র ৫ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি মো: সাহাদাত হোসেন কৌশলে তার ঘরের দরজার লক খুলে ঘরে প্রবেশ করে এবং তাকে ছুরি দিয়ে জিম্মি করে ধর্ষণের চেষ্টা করে এবং শরীরের স্পর্শ কাতর বিভিন্নস্থানে হাত দিয়ে শ্লিলতাহানী করে পরে তার শোর চিৎকারে নির্যাতিতা নারীর বড় মেয়ে রিয়া আক্তার(১২) ঘুম থেকে উঠে মায়ের সাথে ধস্তাধস্তি অবস্থায় সাহাদাতকে দেখে চিৎকার দিলে অভিযুক্ত সাহাদাত গৃহবধূর গলায় থাকা ১ ভরি ওজনের স্বর্ণের নেকলেস ও নগদ অর্থ নিয়ে দৌঁড়ে পালিয়ে যায় এসময় এলাকাবাসী সাহাদাতকে ধরার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন ।

পরে ভুক্তভোগী গৃহবধু বাদী হয়ে যুবলীগ নেতা সাহাদাতকে আসামি করে চরজব্বার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী  একই এলাকার রশিদ চৌকিদারের পুত্র  মো সাহাদাত এবং  স্থানীয় আলী মেম্বারের নাতী  সহিদ  জানান, আমরা গৃহবধূর শোর চিৎকার শুনে এসে দেখি সাহাদাত পালিয়ে যাচ্ছে , আমরা তাকে দৌড়ে ধরার চেষ্টা করলে সাহাদাত আমাদেরকে ছুরি দেখিয়ে ভয় দেখায়।

এলাকাবাসী বলেন অভিযুক্ত সাহাদাত এলাকায় এরকম আরো অনৈতিক কাজে জড়িত রয়েছে, গত ৩ বছর আগে একই এলাকায়   হিন্দু সম্প্রদায়ী  এক প্রবাসীর স্ত্রীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টার অভিযোগে থানায় সাধারন ডায়রি করা হয়েছে ।

অভিযুক্ত সাহাদাত বলেন, “তার বিরুদ্ধে করা অভিযোগ মিথ্যা, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আমাকে ফাঁসানো হচ্ছে”।

এক হিন্দুধর্মালম্বী প্রবাসীর স্ত্রীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টার অভিযোগে থানায় সাধারন ডায়রি বিষয়ে জানতে চাইলে সাহাদাত বলেন, ওই নারী বিএনপি করে স্থানীয় একটি দোকানের সামনে কথাকাটাকাটি হয় পরে শুনেছি সে আমার নামে জিডি করেছে কিন্তু আমার কাছে কোন কপি আসেনি”

লিখিত অভিযোগ বিষয়ে স্বিকার করে চরজববার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়াউল হক তরিক খন্দকার বলেন “অভিযুক্ত সাহাদাতকে আটকের চেষ্টা চলছে, বিষয়টি তদন্ত করে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।