🕓 সংবাদ শিরোনাম

যেকোনো সময় সারা দেশে ‘শাটডাউন’ ঘোষণা : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রীসারা দেশে ১৪ দিনের ‘শাটডাউনের’ সুপারিশশাহজাদপুরে আনসার সদস্যের বিরুদ্ধে আদিবাসী নারীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগব্র্যাক-এশিয়ার পর ঢাকা ব্যাংক থেকেও নিষিদ্ধ ইভ্যালি!বগুড়ায় করোনা আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা একদিনে সব রেকর্ড ভেঙেছেসন্ধ্যা হলেই সৌর বিদ্যুতে আলোকিত হবে মির্জাপুর পৌরসভা২৪ ঘন্টায় শনাক্ত ছাড়াল ৬ হাজার, মৃত্যু ৮১ জনেরচুয়াডাঙ্গায় করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাওয়ার আশঙ্কাদেশে খাদ্যের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে: খাদ্যমন্ত্রীসিনহা হত্যা মামলার পলাতক আসামি কনস্টেবল সাগর দেবের আত্মসমর্পন

  • আজ শুক্রবার, ১১ আষাঢ়, ১৪২৮ ৷ ২৫ জুন, ২০২১ ৷

কোটালীপাড়ায় জমিজমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষে নারীসহ আহত ২৫

kotalipara thana
❏ শুক্রবার, মে ২১, ২০২১ ঢাকা

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় জমিজমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষে নারীসহ ২৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার বিকেলে উপজেলার কুশলা ইউনিয়নের লাখিরপাড় গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

জানাগেছে, লাখিরপাড় গ্রামের বেলায়েত হাওলাদারের সাথে দীর্ঘদিন ধরে একই গ্রামের লায়েক হাওলাদারের জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এরই সুত্রে ধরে আজ শুক্রবার বিকেলে বেলায়েত হাওলাদার লোকজন দিয়ে বিরোধপূর্ণ জমি দখল নিতে গেলে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

সংঘর্ষে নারীসহ ২৫ জন আহত হয়। গুরুতর আহত বেলায়েত হাওলাদার(৩৫), দেলোয়ার হাওলাদার (৪৫), তারিক হাওলাদার ( ১৭), খায়রুন বেগম (৪০), হাসিনা বেগম ( ৪৫), সাফিয়া বেগম (৩৬), খায়রুল হাওলাদার (১৭), ইব্রাহিম হাওলাদার (১৫), রাবেয়া বেগম ( ৭০), কে কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। অপরদিকে লায়েক হাওলাদার (৫২), ফায়েক হাওলাদার (৪৮ ), জায়েদ হাওলাদার (৪৩), লিটন হাওলাদার (৪০), হাচিবুর হাওলাদার (১৮), খাদিজা বেগম (৩৫), আসমানী খানম (১৬) কে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বেলায়েত হাওলাদার বলেন, আমার ক্রয়কৃত জায়গায় কাজ করতে গেলে লায়েক হাওলাদার লোকজন নিয়ে বাঁধা দিয়ে আমাদের মারধর করে।

এ বিষয়ে লায়েক হাওলাদারের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, আমাদের একটি পৈত্রিক জমি নিয়ে বেলায়েতের সাথে আদালতে মামলা রয়েছে। বেলায়েত আজ লোকজন নিয়ে এই জমি দখল করতে এলে আমরা বাঁধা দেই। বেলায়েত তখন তার লোকজন নিয়ে আমাদেরকে মারধর করে।

কোটালীপাড়া থানার ওসি মো: আমিনুল ইসলাম সংঘর্ষের ঘটনা স্বীকার করে বলেন, এলাকার পরিবেশ বর্তমানে শান্ত রয়েছে। এখন পর্যন্ত কোন পক্ষ থেকে অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।