🕓 সংবাদ শিরোনাম

টাঙ্গাইলে চুরিকৃত স্বর্ণালঙ্কারসহ আসামি আটকনোয়াখালীতে ২৪ ঘন্টায় ১১৫ জনের দেহে করোনা, শনাক্তের হার ২৮.৬ শতাংশসৌদিতে অবৈধভাবে প্রবেশ করলে ১৫ বছরের জেল ও জরিমানার ঘোষণামাদারীপুরে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত শ্রমিকলীগ সভাপতির মৃত্যুভয়ংকর হচ্ছে খুলনা বিভাগ, একদিনেই রেকর্ড ৩২ জনের মৃত্যুটাঙ্গাইলে নতুন করে ১৪৯ জন করোনায় আক্রান্ত, ৩ জনের মৃত্যুইভ্যালিসহ ১০ ই-কমার্সে কেনাকাটায় নিষেধাজ্ঞা দিলো ব্র্যাক ব্যাংকনওমুসলিম ওমর ফারুক হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন-সংবাদ সম্মেলন, ৬ দফা দাবিআ.লীগ অতীতে জনগণের সঙ্গে ছিল, ভবিষ্যতেও থাকবে : কাদের২৪ ঘন্টায় রাজশাহী মেডিকেলের করোনা ওয়ার্ডে ১৬ জনের মৃত্যু

  • আজ বুধবার, ৯ আষাঢ়, ১৪২৮ ৷ ২৩ জুন, ২০২১ ৷

নির্জন ভুট্টাক্ষেতের ভেতরে সদ্যজাত ফুটফুটে কন্যা শিশুর আর্তনাদ!

নবজাতক উদ্ধার
❏ শনিবার, মে ২২, ২০২১ স্পট লাইট

লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি, সময়ের কণ্ঠস্বরঃ  গ্রামের নির্জন ভুট্টাক্ষেতের ভেতর থেকে ক্ষীণস্বরে ভেসে আসছিলো  শিশুর কান্না! দীর্ঘক্ষন কান্নার ফলে মৃতপ্রায় শিশুটি যেন বেঁচে থাকার সর্বশেষ চেষ্টাই করে যাচ্ছিলো!

গ্রামের রাস্তা ধরে স্থানীয় বাজার যাবার পথে শিশুটির কান্না শুনে চমকে উঠেন কয়েকজন পথচারি। উৎসুক পথচারীরা কান্নার উৎস খুঁজতে গিয়ে ভুট্টাক্ষেতের ভেতরে দেখতে পায় কাপড়ে মোড়ানো সদ্যজাত ফুটফুটে এক নবজাতক শিশুকে!

ঘটনাস্থল, লালমনিরহাটে জেলার পাটগ্রাম উপজেলার জগতবেড় ইউনিয়নের মুন্সীরহাট গুরুপাড়া গ্রাম।

শুক্রবার (২১ মে) সকালে জগতবেড় ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডে সবেতুল্লা এলাকার ভুট্টাক্ষেতের চিকন আইলের (রাস্তা) মধ্যে নবজাতককে দেখতে পান মিনা বেগমসহ কয়েকজন স্থানীয় বাসিন্দা।

ঘটনার আকস্মিকতায় হতবাক পথচারীরা শিশুটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় গ্রামে। এরপর আশেপাশের গ্রাম থেকে শত শত লোকজন শিশুটিকে একনজর দেখতে ছুটে আসেন গ্রামে। বিষয়টি এলাকায় বেশ কৌতূহল ও চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, নবজাতকের পোষাক পরিচ্ছেদ ও সাজগোজ দেখে মনে হচ্ছে মা তাঁর শিশুকে জন্মের পর হতে যত্নে রেখে ছিল। কিন্তু পরবর্তীতে পরিবারের চাপে ও লোকলজ্জার ভয়ে শিশুটিকে ফেলে রেখে গেছে। ঘটনাটি গ্রামটিতে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। এই ঘটনাটিকে মানবিকতার নিষ্ঠুর উদাহরণ বলে দেখছেন স্থানীয় সচেতন মহল।

জগতবেড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ দবিবর রহমান জানান, শিশুটিকে পুলিশ এসে গ্রাম্য মহিলার কাছ হতে উদ্ধার করে পাটগ্রাম উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়েছে। সদ্যজাত শিশুটি সেখানে নার্স ও আয়াদের পরিচর্চায় রয়েছে।

পাটগ্রাম থানার ওসি সুমন্ত মোহন মন্ডল জানান,  শুক্রবার ভোররাতে কে বা কারা নবজাতক শিশুটিকে নির্জন ভূট্টা ক্ষেতে ফেলে রেখে গেছে। পুলিশ শিশুটির স্বজনদের সনাক্তে কাজ করছে।

স্থানীয় শিক্ষিত মহল বলছেন, এই ঘটনাটি একটি মানবিক বিপর্যয়

তিনি আরও জানান, থানা পুলিশ বিষয়টি জানতে পেয়ে নবজাতকসহ মিনা বেগমকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। শিশুটির স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে থানার নারী ও শিশু সেলে রাখা হয়েছে তাদের।

পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হাফিজুল ইসলাম নবজাতক উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘নবজাতককে জরুরি পরিচর্যার প্রয়োজনে উদ্ধারকারীর জিম্মায় রাখা হয়েছে। নবজাতকের বিষয়ে আইনি প্রক্রিয়া চলছে। উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে। রোববার কোর্ট খুললে সমাজসেবা আইনি প্রক্রিয়ায় ব্যবস্থা নেয়া হবে।’