হবিগঞ্জে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নিহত ১, আহত অর্ধশতাধিক


❏ সোমবার, মে ২৪, ২০২১ সিলেট

মঈনুল হাসান রতন, হবিগঞ্জ প্রতিনিধি- হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে হামলা-পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় দিলাওর হোসেন (২৮) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন এবং আহত প্রায় অর্ধশতাধিক।

রবিবার দিবাগত রাত ৯টার দিকে উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নের কালাভরপুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ডালিম আহমদ জানান, গত শুক্রবার স্থানীয় মাঠে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে কালাভরপুর গ্রামের আকল মিয়ার পুত্র নবেল মিয়া ও একই গ্রামের আব্দুস শহীদের পুত্র ইসলাম উদ্দিনের মধ্যে বাক বিতন্ডার এক পর্যায়ে হাতা হাতির ঘটনা ঘটে। এরই জের ধরে রবিবার দিবাগত রাত ৯টায় স্থানীয় সারং বাজারে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ সময় স্থানীয় লোকজনের সহযোগীতায় সাংঘর্ষ থামলেও বাজার থেকে বাড়ীতে ফেরার পথে আবারও সংঘর্ষ ঘটে। এতে আব্দুস শহীদের পুত্র দিলাওর হোসেন (২৮) নিহত হন।

এছাড়াও দিলাওর হোসেনের ভাই রিপন মিয়া (৩২), গিয়াস উদ্দিন (২০), সুমন মিয়া (২৪), আব্দুল কাইয়ূমের পুত্র মালন মিয়া (২৪), আব্দুল মোমিন (২২), আব্দুল বারিকের পুত্র আব্দুল বাছিত ৩৫, আবুল কালাম (৪০), আব্দুল হামিদ (৪২), নবেল মিয়া, জাকির হোসেনসহ উভয় পক্ষের প্রায় অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

আহতদের মধ্যে রিপন মিয়া, গিয়াস উদ্দিন, আব্দুল বাছিত, আবুল কালাম, আব্দুল হামিদকে আশংকা জনক অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিহত দিলাওর হোসেনের ভাই সুমন মিয়া জানান, গত শুক্রবার ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে তার ভাই ইসলাম উদ্দিনের সাথে আকল মিয়ার পুত্র নবেল মিয়ার সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এ সময় নবেল মিয়ার চাচাত ভাই অলিউর রহমান বিষয়টির মধ্যস্থতা করেন। কিন্তু রবিবার দিবগাত রাতে স্থানীয় সারং বাজার থেকে বাড়ী ফেরার পথে হাজী আবুল কাছের পুত্র অলিউর রহমান ও আকল মিয়ার পুত্র নবেল মিয়ার নেতৃত্বে নানু মিয়ার পুত্র রুমেল মিয়া, অলিউর রহমানের তারেক মিয়াসহ প্রায় ২০-২৫ জন লোক তাদের উপর হামলা চালায়। এ ব্যপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান সুমন মিয়া।