হত্যাকাণ্ডে জড়িত কিশোর গ্যাংয়ের ৬ সদস্য আটক

Keranigonj news
❏ শুক্রবার, মে ২৮, ২০২১ ঢাকা

কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি: ছোট ছোট অপরাধ থেকে শুরু করে হত্যাকাণ্ড, রাস্তায় উৎপাত, ধর্ষণ, এবং ছিনতাই থেকে মাদকাসক্তি। গত কয়েক বছর ধরে কিশোর গ্যাংদের এ রকম অনেক সংবাদ গণমাধ্যমে শিরোনাম হয়েছে। এবার সিনিয়র-জুনিয়র দ্বন্দ্বের জের ধরে এক কিশোরকে হত্যা করে পালিয়ে যাওয়ার সময় কিশোর গ্যাংয়ের ৬ সদস্যকে আটক করেছে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানাপুলিশ।

জানা গেছে, গতকাল বৃহস্পতিবার (২৭ মে) রাতে ঢাকার কদমতলী থানার শনির আখড়া এলাকার বর্ণমালা স্কুলের গলিতে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

হত্যাকাণ্ডে নিহত কিশোরের নাম ইয়াসিন আরাফাত সায়েম (১৮)। সে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ থানার কুতুবপুর গ্রামের আব্দুল আলীর ছেলে।

হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটিয়ে এলাকা ছেড়ে অন্যত্র পালিয়ে যাওয়ার সময় মধ্যরাতে রাজেন্দ্রপুরে কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে থেকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার একটি টহল টিম তাদের আটক করে।

আটককৃতরা হলো- তানজিল শেখ, মো. শাহরিয়ার ইসলাম শুভ, মো. শাহরিয়ার নাফিজ জয়, মো. হাবিবুর রহমান, মো. বাবুল হোসেন টুটুল ‍এবং মো. মাহমুদ বলে জানা যায়।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার এসআই স্বপন কুমার দাস বলেন, কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে টহলের সময় ৬ কিশোরকে একসাথে তড়িঘড়ি করে যেতে দেখে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের সময় তিন জনের শরীরে মারামারি আলামত ও এক জনের রক্তমাখা শার্ট দেখে পুলিশের সন্দেহ হলে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে সায়েম নামে এক কিশোরের সাথে তাদের মারামারি হলে সায়েম মারা যায় শুনে তারা মাওয়া হয়ে শরীয়তপুরের দিকে পালিয়ে যাচ্ছিল বলে স্বীকার করে।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমাদের টহল টিম তাদের আটক করে থানায় নিয়ে এলে পরবর্তীতে কদমতলী থানায় যোগাযোগ করে জানতে পারি এই ৬ জন কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য ‍এবং তারা সায়েম হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত। পরবর্তীতে তাদের সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।