🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ বুধবার, ২ আষাঢ়, ১৪২৮ ৷ ১৬ জুন, ২০২১ ৷

সড়কে বৈদ্যুতিক খুঁটি রেখেই পাকাকরণ করছে এলজিইডি!

road
❏ বুধবার, জুন ২, ২০২১ রংপুর

নাজমুস সাকিব মুন, পঞ্চগড় প্রতিনিধি- জনদুর্ভোগ আর সড়ক দুর্ঘটনার বিষয়টি উপেক্ষা করে বৈদ্যুতিক খুঁটি না সরিয়ে বরং আরসিসি ঢালাই দিয়ে চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে সড়ক পাকাকরণের কাজ।

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ-ফুলবাড়ি পর্যন্ত নতুন সড়ক নির্মাণের কাজ চলমান আছে। সড়কের কালীগঞ্জ বাজার অংশে এলজিইডি আর ঠিকাদারের নির্বুদ্ধিতায় তিনটি বৈদ্যুতিক খুঁটি রেখেই হয়েছে সড়ক পাকাকরণ কাজ। এতে যানবাহন চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে। ফলে নিরাপদ সড়কের সুফল থেকে বঞ্চিত হবে সাধারণ মানুষ। ব্যস্ততম এই সড়কে যে কোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরণের দুর্ঘটনা।

ওই এলাকার বাসিন্দা নির্মল কুমার রায় জানান, পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা আর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের অবহেলায় কালীগঞ্জ বাজারের ব্যস্ততম রাস্তায় বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের খুঁটি রেখেই ঢালাইয়ের কাজ শেষ হয়েছে।

উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয় থেকে জানা যায়, ৩০ কোটি ৩২ লাখ টাকা ব্যয়ে দেবীগঞ্জ বটতলা মোড়-ফুলবাড়ি পর্যন্ত ২৬ কি.মি. দীর্ঘ এই সড়কের নির্মাণ কাজ চলমান আছে। এরমধ্যে কালীগঞ্জ বাজার অংশে ২০০ মিটার সড়কে পাকাকরণ হচ্ছে।

সড়কের নির্মাণ কাজের দায়িত্বে থাকা মেসার্স সাইফুল আলম নামের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সত্ত্বাধিকারী সাইফুল আলম জানান, আমি ব্যক্তিগতভাবে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে কথা বলিনি। এই ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলীর অফিস থেকে তাদের সাথে যোগাযোগ করার কথা।

এলজিইডি’র পক্ষ থেকে দায়িত্বরত উপ সহকারী প্রকৌশলী ওয়াজেদ আলী জানান, এখনো পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষের সাথে এই ব্যাপারে কথা হয়নি। তিনি আরো বলেন, ঢালাই হয়ে গেছে, এর জন্য আর খুঁটি অপসারণ করা যাবে না তা নয়। ঢালাই কেটে পরেও খুঁটি অপসারণ করা যাবে। উপজেলা প্রকৌশলী ছুটিতে আছেন। তিনি আসলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পল্লী বিদ্যুৎ দেবীগঞ্জ সাব জোনাল অফিসের এজিএম হাসানুল বান্নাহ বলেন, সড়ক নির্মাণ কাজ শুরুর আগেই আমাদের জানানো তাদের কর্তব্য ছিল। কিন্তু তারা সেটা করেননি। সড়কে আরসিসি ঢালাই শেষ হওয়ার পরও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ আমাকে জানায়নি। পরে বিষয়টি স্থানীয়দের মাধ্যমে আমার নজরে এসেছে। আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে আবেদন জমা দিতে বলেছি। আবেদন পেলে দ্রুত বৈদ্যুতিক খুঁটি তিনটি অপসারণ করা হবে।