🕓 সংবাদ শিরোনাম

টাঙ্গাইলে চুরিকৃত স্বর্ণালঙ্কারসহ আসামি আটকনোয়াখালীতে ২৪ ঘন্টায় ১১৫ জনের দেহে করোনা, শনাক্তের হার ২৮.৬ শতাংশসৌদিতে অবৈধভাবে প্রবেশ করলে ১৫ বছরের জেল ও জরিমানার ঘোষণামাদারীপুরে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত শ্রমিকলীগ সভাপতির মৃত্যুভয়ংকর হচ্ছে খুলনা বিভাগ, একদিনেই রেকর্ড ৩২ জনের মৃত্যুটাঙ্গাইলে নতুন করে ১৪৯ জন করোনায় আক্রান্ত, ৩ জনের মৃত্যুইভ্যালিসহ ১০ ই-কমার্সে কেনাকাটায় নিষেধাজ্ঞা দিলো ব্র্যাক ব্যাংকনওমুসলিম ওমর ফারুক হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন-সংবাদ সম্মেলন, ৬ দফা দাবিআ.লীগ অতীতে জনগণের সঙ্গে ছিল, ভবিষ্যতেও থাকবে : কাদের২৪ ঘন্টায় রাজশাহী মেডিকেলের করোনা ওয়ার্ডে ১৬ জনের মৃত্যু

  • আজ বুধবার, ৯ আষাঢ়, ১৪২৮ ৷ ২৩ জুন, ২০২১ ৷

নির্মাণাধীন ভূমি অফিসের একাংশে ধ্বস, নিম্নমানের কাজের অভিযোগ

Pabna news
❏ শুক্রবার, জুন ৪, ২০২১ রাজশাহী

আব্দুল লতিফ রঞ্জু, পাবনা প্রতিনিধি: পাবনার চাটমোহর উপজেলার ডিবিগ্রাম ইউনিয়ন ভূমি অফিসের নির্মাণাধীন ভবনের একটি অংশ (গাড়ি বারান্দা) ধ্বসে পড়েছে। তবে এ ঘটনা কেউ হতাহত হয়নি।

বৃহস্পতিবার (০৩ জুন) বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন। ঘটনা তদন্তে একটি কমিটি গঠন করেছেন তিনি। এই ভবন নির্মাণের কাজ করছেন চাটমোহরে ঠিকাদার সিরাজুল ইসলাম।  এলাকাবাসীর অভিযোগ, নিম্নমানের কাজের কারণে ধ্বসে পড়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা সুত্রে জানা গেছে, ডিবিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের সামনে ইউনিয়ন ভূমি অফিসের অবস্থান। অনেকদিন আগে নতুন ভবন নির্মাণকাজ শুরু হয়। কিন্তু জায়গার মালিকানা নিয়ে দ্বন্দ্বের কারণে নির্মাণকাজ বন্ধ থাকে। গেলো ঈদুল ফিতরের
কিছুদিন আগে আবারও নির্মাণকাজ শুরু হয়। বৃহস্পতিবার বিকেলে হঠাৎ করেই দোতলা ভবনের গাড়ি বারান্দা অংশটুকু ধ্বসে পড়ে। স্থানীয়দের অভিযোগ, ঠিকাদারের নিম্নমানের কাজের কারণে এ ঘটনা ঘটেছে।

এলজিইডি’র চাটমোহর উপজেলা প্রকৌশলী সুলতান মাহমুদ জানান, বিষয়টি আমার ভাল জানা নেই, আমি নতুন এসেছি। শুনেছি অনেক আগেই শার্টার লাগানো হয়েছিল। একটা কার্নিশ ভেঙ্গে পড়েছে। এটি তেমন কোনো বিষয় নয়। আমি পুরো বিষয় জানার জন্য উপ সহকারী প্রকৌশলী রফিককে পাঠিয়েছি। বিস্তারিত পরে জানানো যাবে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈকত ইসলাম জানান, খবর পাবার পরপরই আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছি। এটি পুরোটাই টেকনিক্যাল বিষয়। সেকারণে উপজেলাপ্রকৌশলীকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছি। তারা যত দ্রুত সম্ভব প্রতিবেদন জমা দেয়ার পর জানা যাবে, ঠিক কি কারণে ধ্বসে পড়েছে।

এদিকে, খোঁজ নিয়ে জানা গেলো এই ভবন নির্মাণকাজ করছেন ঠিকাদার সিরাজুল ইসলাম। এ বিষয়ে তার সাথে কথা বলার জন্য তার মুঠোফোনে কয়েকবার ফোন দেয়া হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।