• আজ বুধবার, ৯ আষাঢ়, ১৪২৮ ৷ ২৩ জুন, ২০২১ ৷

যুদ্ধবিরতির জন্য যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ধর্না দিয়েছিলেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী

neta
❏ রবিবার, জুন ৬, ২০২১ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস এবং ইসলামি জিহাদ আন্দোলনের ভয়াবহ রকেট হামলার মুখে যুদ্ধবিরতির জন্য আমেরিকার কাছে ধর্ণা দিয়েছিলেন ইহুদিবাদী ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।

ইসরাইলি পত্রিকা ইয়েদিয়োথ অহরোনথ এ খবর দিয়েছে। পত্রিকাটির সঙ্গে ইসরাইলের সামরিক বাহিনীর বিশেষ সম্পর্ক রয়েছে বলে মনে করা হয়। খবর পার্সটুডের

পত্রিকাটি বলেছে, ১১ দিনের যুদ্ধে হামাসের রকেট হামলার মুখে নিরুপায় হয়ে ইসরাইল যুদ্ধবিরতির ক্ষেত্রে আমেরিকার মধ্যস্থতা কামনা করে।

যুদ্ধের বিষয়ে যা ধারণা করা হয় এক্ষেত্রে বাস্তবতা ছিল তার বিপরীতে। অর্থাৎ ইসরাইল এই যুদ্ধ করার জন্য এবং যুদ্ধবিরোধী অর্জনের জন্য প্রচেষ্টা চালিয়েছে।

পত্রিকাটির তথ্য অনুসারে, ইহুদিবাদী ইসরাইল জো বাইডেন প্রশাসনের সঙ্গে যুদ্ধবিরতির জন্য বারবার যোগাযোগ করেছে যাতে আমেরিকা মিশর এবং আরো কয়েকটি দেশের উপর চাপ সৃষ্টি করে যুদ্ধবিরতির ব্যবস্থা করে।

তবে জো বাইডেন প্রশাসন এ ব্যাপারে তেমন একটা আগ্রহ দেখায় নি। ফলে মিশরকে ইসরাইল বার্তা পাঠায় এবং মার্কিন অনুমোদন নিয়ে মিশর যেন হস্তক্ষেপ করে।

এদিকে, হামাসের গাজা উপত্যকার প্রধান ইয়াহিয়া সিনওয়ার বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে আরেকটি যুদ্ধ হলে মধ্যপ্রাচ্যের অবয়ব পাল্টে যাবে। তিনি বলেন, সম্প্রতি যুদ্ধের মাধ্যমে এটি প্রমাণিত হয়েছে যে, আল-আকসা মসজিদের একটি শক্তিশালী প্রতিরক্ষা বাহিনী রয়েছে এবং পবিত্র এই মসজিদ রক্ষা করা হচ্ছে কৌশলগত লক্ষ্য।

গত ২১ মে মিসরের মধ্যস্ততায় গাজায় ইসরাইলের ১১ দিনের আগ্রাসন বন্ধ হয়। গাজা ও পশ্চিম তীরে মধ্য এপ্রিল থেকে ইসরাইলি হামলায় শিশু ও নারীসহ অন্তত ২৮৯ জন নিহত হয়। এছাড়া বিপুলসংখ্যক স্থাপনাও ধ্বংস হয়। ইসরাইলি হামলায় এমনকি স্বাস্থ্যকেন্দ্র, মিডিয়া অফিস, স্কুলও ক্ষতিগ্রস্ত হয়।