🕓 সংবাদ শিরোনাম

সুবর্ণচরে স্বামীকে বেঁধে গৃহবধূকে ধর্ষণ, জড়িতদের গ্রেফতার দাবিতে মানববন্ধনটাঙ্গাইলে চুরিকৃত স্বর্ণালঙ্কারসহ আসামি আটকনোয়াখালীতে ২৪ ঘন্টায় ১১৫ জনের দেহে করোনা, শনাক্তের হার ২৮.৬ শতাংশসৌদিতে অবৈধভাবে প্রবেশ করলে ১৫ বছরের জেল ও জরিমানার ঘোষণামাদারীপুরে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত শ্রমিকলীগ সভাপতির মৃত্যুভয়ংকর হচ্ছে খুলনা বিভাগ, একদিনেই রেকর্ড ৩২ জনের মৃত্যুটাঙ্গাইলে নতুন করে ১৪৯ জন করোনায় আক্রান্ত, ৩ জনের মৃত্যুইভ্যালিসহ ১০ ই-কমার্সে কেনাকাটায় নিষেধাজ্ঞা দিলো ব্র্যাক ব্যাংকনওমুসলিম ওমর ফারুক হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন-সংবাদ সম্মেলন, ৬ দফা দাবিআ.লীগ অতীতে জনগণের সঙ্গে ছিল, ভবিষ্যতেও থাকবে : কাদের

  • আজ বুধবার, ৯ আষাঢ়, ১৪২৮ ৷ ২৩ জুন, ২০২১ ৷

টাঙ্গাইলে আ.লীগের দুইগ্রুপের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি, সংঘর্ষের আশঙ্কা

tangail
❏ সোমবার, জুন ৭, ২০২১ ঢাকা

তোফাজ্জল, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি- টাঙ্গাইলে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের আশংঙ্কা করছে স্থানীয়রা। সোমবার (৭ জুন) সকাল ১১টায় মিথ্যা অভিযোগের প্রতিবাদ জানিয়ে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করবে সাবেক এমপি আমানুর রহমান খান রানার সমর্থকরা।

অপরদিকে সকাল সাড়ে ১০টায় আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদ হত্যা মামলায় অভিযুক্ত আমানুর রহমান খান রানাসহ আসামীদের আইনের আওতায় নিয়ে দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি ও দুপুর সাড়ে ১২টায় টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন ফারুক আহমেদ স্মৃতি সংসদ।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ, ডিবিসহ আইনশৃংঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

গত মঙ্গলবার (১ জুন) টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে সাবেক সংসদ সদস্য আমানুর রহমান খান রানার বিরুদ্ধে শহরের বেবীস্ট্যান্ড এলাকার তপন রবিদাস এক যুবককে রিভলবার ঠেকিয়ে হত্যার হুমকির অভিযোগ আনা হয়।

এর আগের দিন সোমবার (৩১ মে) হুমকির পর নিরাপত্তাহীনতায় কথা উল্লেখ করে রাতেই টাঙ্গাইল সদর থানায় তপন রবিদাস সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেছেন ওই যুবক। তপন রবিদাস জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক স্বপন চৌধুরীর কর্মী। ক্যান্সারে আক্রান্ত স্বপন চৌধুরী একা চলাফেরা করতে না পারায় তাকে তিনি দেখাশোনা করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তপন রবিদাস জানান, সোমবার (৩১ মে) সকাল ১০টার দিকে স্বপন চৌধুরীকে ফিজিওথেরাপী দিতে নিয়ে যাওয়ার জন্য শহরের কলেজ পাড়া এলাকায় তাদের বাসার সামনে যান। এ সময় আমানুর রহমান খান রানা দুটি গাড়ি ও মোটর সাইকেলের একটি বহর নিয়ে ওই পথ দিয়ে যাচ্ছিলেন। তিনি গাড়ি থেকে নেমে তপন এ এলাকায় কি করছে জানতে চান। তপন স্বপন চৌধুরীর কাজ করেন বলে সাবেক এমপি রানাকে জানান।

এতে রানা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে এক পর্যায়ে রিভলবার বের করে তপনের পেটে ঠেকিয়ে ২৪ ঘন্টার মধ্যে টাঙ্গাইল ছেড়ে চলে যেতে বলেন। পরবর্তীতে তাকে দেখলেই গুলি করে প্রাণে মেরে ফেলবেন বলে হুমকি দেন। পরে ধাক্কা দিয়ে রাস্তায় ফেলে দেন। এ সময় রানা তার সঙ্গীদের তপনকে এরপর যেখানে দেখা যাবে সেখানেই মেরে ফেলার নির্দেশ দিয়ে গাড়ি উঠে চলে যান।

নিহত ফারুক আহমেদের স্ত্রী নাহার আহমেদ বলেন, ‘ফারুক আহমেদের হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। যারা আমার সন্তানদের এতিম ও আমাকে বিধবা করেছে তাদের ফাঁসি দাবি করছি।’

রানার সমর্থক সাবেক সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্বাস আলী বলেন, ‘সাবেক এমপি রানার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে থানায় জিডি ও সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। তার প্রতিবাদ জানিয়ে সকাল ১১ টায় সংবাদ সম্মেলন করা হবে।’

টাঙ্গাইল সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মীর মোশারফ হোসেন জানান, স্বাস্থ্যবিধি না মেনে কেউ যাতে গেদারিং করতে না পারে সেই জন্য অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে আমানুর রহমান খান রানা আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদ হত্যা মামলায় জড়িত থাকার বিষয়টি পুলিশি তদন্তে বের হয়ে আসে। এরপরে তিনি আত্মগোপন করেন। দুই বছর পলাতক থাকার পর ২০১৬ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর আদালতে আত্মসমর্পন করেন। ২২ মাস হাজতবাসের পর ২০১৯ সালের ৯ জুলাই উচ্চ আদালত থেকে জামিনে মুক্ত হন। ফারুক হত্যা মামলায় সাবেক এমপি রানার ভাই সাবেক পৌর মেয়র সহিদুর রহমান খান মুক্তি এখনও কারাগারে আছেন। অপর দুই ভাই পলাতক রয়েছেন।

রানা ও তার ভাইয়েরা স্বপন চৌধুরীর বড় ভাই সাবেক পৌর কাউন্সিলর রুমি চৌধুরী হত্যা মামলার আসামি ছিলেন। ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর রাজনৈতিক বিবেচনায় রুমি চৌধুরী হত্যা মামলা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। অপরদিকে আমানুরের বড় ভাই আমিনুর রহমান খান বাপ্পী হত্যা মামলার আসামী ছিলেন রুমি চৌধুরী। মামলাটি টাঙ্গাইল আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।