🕓 সংবাদ শিরোনাম

ইভ্যালিতে আরেকটা ‘ডেসটিনি চিত্র’র শঙ্কা রাব্বানীরসুবর্ণচরে স্বামীকে বেঁধে গৃহবধূকে ধর্ষণ, জড়িতদের গ্রেফতার দাবিতে মানববন্ধনটাঙ্গাইলে চুরিকৃত স্বর্ণালঙ্কারসহ আসামি আটকনোয়াখালীতে ২৪ ঘন্টায় ১১৫ জনের দেহে করোনা, শনাক্তের হার ২৮.৬ শতাংশসৌদিতে অবৈধভাবে প্রবেশ করলে ১৫ বছরের জেল ও জরিমানার ঘোষণামাদারীপুরে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত শ্রমিকলীগ সভাপতির মৃত্যুভয়ংকর হচ্ছে খুলনা বিভাগ, একদিনেই রেকর্ড ৩২ জনের মৃত্যুটাঙ্গাইলে নতুন করে ১৪৯ জন করোনায় আক্রান্ত, ৩ জনের মৃত্যুইভ্যালিসহ ১০ ই-কমার্সে কেনাকাটায় নিষেধাজ্ঞা দিলো ব্র্যাক ব্যাংকনওমুসলিম ওমর ফারুক হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন-সংবাদ সম্মেলন, ৬ দফা দাবি

  • আজ বুধবার, ৯ আষাঢ়, ১৪২৮ ৷ ২৩ জুন, ২০২১ ৷

হেফাজতের নতুন কমিটিতে জায়গা পেলেন যারা

nurul islam
❏ সোমবার, জুন ৭, ২০২১ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- জুনাইদ বাবুনগরীকে আমির এবং নুরুল ইসলাম জিহাদীকে মহাসচিব করে ৩৩ সদস্যের নতুন কমিটি ঘোষণা করেছে কওমি মাদরাসাভিত্তিক সংগঠন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ।

এতে বিলুপ্ত কমিটির যুগ্ম-মহাসচিব মামুনুল হক ও সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদীসহ কয়েকজন নেতাদের বাদ দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (০৭ জুন) সকাল ১১টায় ঢাকার আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া মাখজানুল উলুম খিলগাঁও মাদ্রাসায় সংবাদ সম্মেলন করে নতুন কমিটি ঘোষণা করেন নুরুল ইসলাম জিহাদী।

নতুন কমিটিতে ৯ জন রয়েছেন নায়েবে আমির। কমিটিতে সহকারী মহাসচিব করা হয়েছে সংগঠনটির সাবেক আমির আহমদ শফীর বড় ছেলে মাওলানা ইউসুফ মাদানীকে।

৩৩ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কমিটি

মুহতারাম আমীর হযরত আল্লামা হাফেজ জুনাইদ বাবুনগরী, নায়েবে আমীর হযরত মাওলানা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী, হযরত মাও. আবদুল হক, মোমেন শাহী, হযরত মাও. সালাহ উদ্দীন নানুপুরী, অধ্যক্ষ মীযানুর রহমান চৌধুরী (পীর সাহেব দেওনা), হযরত মাও. মুহিব্বুল হক (গাছবাড়ী, সিলেট), হযরত মাও. ইয়াহইয়া (হাটহাজারী মাদ্রাসা), হযরত মাও. আব্দুল কুদ্দুস (ফরিদাবাদ মাদ্রাসা), হযরত মাও. তাজুল ইসলাম (পীর সাহেব ফিরোজশাহ্), হযরত মাও. মুফতী জসিমুদ্দীন (হাটহাজারী মাদ্রাসা)।

মহাসচিব হযরত মাওলানা হাফেজ নূরুল ইসলাম (ঢাকা), যুগ্ম মহাসচিব হযরত মাওলানা সাজেদুর রহমান (ব্রাহ্মণবাড়িয়া), হযরত মাও. আব্দুল আউয়াল (নারায়ণগঞ্জ), হযরত মাও. লোকমান হাকীম (চট্টগ্রাম), হযরত মাও. আনোয়ারুল করীম (যশোর), হযরত মাও. আইয়ুব বাবুনগরী।

সহকারী মহাসচিব হযরত মাও. জহুরুল ইসলাম (মাখজান), হযরত মাও. ইউসুফ মাদানী (সাহেবজাদা, আল্লামা শাহ আহমদ শফি)।

সাংগঠনিক সম্পাদক হযরত মাও. মীর ইদ্রিস (চট্টগ্রাম), অর্থ সম্পাদক হযরত মাও. মুফতী মুহাম্মদ আলী (মেখল), সহ-অর্থ সম্পাদক হযরত মাও. মুফতী হাবিবুর রহমান কাসেমী (নাজিরহাট),

প্রচার সম্পাদক হযরত মাও. মুহিউদ্দীন রব্বানী (সাভার, ঢাকা), সহ-প্রচার সম্পাদক হযরত মাও জামাল উদ্দীন (কুড়িগ্রাম)।

দাওয়া বিষয়ক সম্পাদক হযরত মাও. আবদুল কাইয়ুম সোবহানী (উত্তরা, ঢাকা), সহকারী দাওয়া বিষয়ক সম্পাদক হযরত মাও. ওমর ফরুক (নোয়াখালী)।

সম্মানিত সদস্য হযরত মাও. মোবারাকুল্লাহ (ব্রাহ্মণবাড়িয়া), হযরত মাও. ফয়জুল্লাহ (পীর সাহেব, মাদানীনগর), হযরত মাও. ফোরকানুল্লাহ খলিল (দারুল মায়ারেফ, চট্টগ্রাম), হযরত মাও. মোশতাক আহমদ (খুলনা দারুল উলূম), হযরত মাও. রশিদ আহমদ (কিশোরগঞ্জ), হযরত মাও. আনাস (ভোলা), হযরত মাও. মাহমুদল হাসান (ফতেহপুরী), হযরত মাও. মাহমুদুল আলম (পঞ্চগড়)।

১৬ সদস্য বিশিষ্ট উপদেষ্টা কমিটি

প্রধান উপদেষ্টা আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী, উপদেষ্টা আল্লামা মুফতী আব্দুসসালাম (চাটগামী), আল্লামা সুলতান যওক নদভী, আল্লামা আব্দুল হালীম বোখারী (পটিয়া), আল্লামা নুরুল ইসলাম আদীব (ফেনী), আল্লামা আব্দুল মালেক হালীম, আল্লামা আব্দুর রহমান হাফেজ্জী (মোমেনশাহী), আল্লামা রশিদুর রহমান ফারুক বর্ণভী, আল্লামা নূরুল হক (বটগ্রাম, কুমিল্লা), আল্লামা আবুল কালাম (মুহাম্মদপুর), আল্লামা শিব্বির আহমাদ (নোয়াখালী), আল্লামা জালাল আহমাদ (ভূজপুর), আল্লামা আশেক এলাহী (উজানী), আল্লাম হা. হাবিবুল্লাহ বাবুনগরী, আল্লামা আব্দুর বাছীর (সুনামগঞ্জ), আল্লামা আফজালুর রহমান (ফেনী)।

৯ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় খাস কমিটি

আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী, আল্লামা হাফেজ জুনাইদ বাবুনগরী, আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী, আল্লামা হাফেজ নূরুল ইসলাম (ঢাকা), অধ্যক্ষ মিযানুর রহমান চৌধুরী (পীর সাহেব দেওনা), আল্লামা সাজেদুর রহমান (ব্রাহ্মণবাড়িয়া), আল্লামা মুহিব্বুল হক (গাছবাড়ী, সিলেট), আল্লামা আব্দুল আউয়াল (নারায়ণগঞ্জ), আল্লামা মুহিউদ্দীন রব্বানী (সাভার, ঢাকা)

খাস কমিটি ‘মজলিসে শুরা’ হিসাবে বিবেচিত হবে। হেফাজতের মূল পরিকল্পনাকারী হিসাবে বিবেচিত হবে। তাৎক্ষণিক প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারবে।

উল্লেখ্য, গত ২৫ এপ্রিল গ্রেপ্তার অভিযানের মুখে সরকারের সঙ্গে সমঝোতার চেষ্টা ব্যর্থ হওয়ার পর কওমি মাদ্রাসাকেন্দ্রিক সংগঠন হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত করা হয়। এর কয়েক ঘণ্টার মধ্যে পাঁচ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটির ঘোষণা দেয় কওমিভিত্তিক সংগঠনটি।

বিলুপ্ত কমিটির আমির জুনায়েদ বাবুনগরীকেই এই কমিটির প্রধান করা হয়। আগের কমিটির মহাসচিব নুরুল ইসলাম জেহাদীকে আহ্বায়ক কমিটির মহাসচিব আর সিনিয়র নায়েবে আমির মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরীকে করা হয় প্রধান উপদেষ্টা। সদস্য করা হয়েছে আল্লামা সালাহউদ্দীন নানুপুরী ও মিজানুর রহমানকে (পীরসাহেব দেওনা)।