🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ বুধবার, ২ আষাঢ়, ১৪২৮ ৷ ১৬ জুন, ২০২১ ৷

ত্রিশালে কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় প্রবাসী নারীকে নির্যাতনের অভিযোগ

rape
❏ বুধবার, জুন ৯, ২০২১ ময়মনসিংহ

মামুনুর রশিদ ত্রিশাল, ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি- কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় প্রবাসী এক নারীকে নির্মম নির্যানের অভিযোগ করেছেন ভূক্তভোগী। এ ঘটনায় ওই নারী বাদী হয়ে ত্রিশাল থানা ও ইউএনও বরাবরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার বইলর ইউনিয়েনের কাজির শিমলা বাজারে।

অভিযোগ সূত্র জানায়, উপজেলার ধানীখোলা চরকুমারিয়া গ্রামের শাহজান মিয়ার বড় মেয়ে ২০২০ সালে সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরে পিত্রালয়ে বসবাস করছিল। প্রায় ৫ মাস পূর্বে ওই নারীর মোবাইলে ফোন দিয়ে নানা ধরণের অশালীন কথার মাধ্যমে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল উপজেলার কাজীর শিমলা গ্রামের দেওয়ানিয়া বাড়ীর বখাটে সুজন মিয়া (৩৬)। সুজন মিয়া কাজীর শিমলা বাজারের টিন ও সিমেন্ট ব্যবসায়ী। কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় প্রাবসী ওই নারীকে প্রতিনিয়তই বিভিন্ন লোকের মাধ্যমে নজরদারি রাখতো সুজন। প্রয়োজনের তাগিদে বাড়ি থেকে বের হলেই ওই স্থানে হাজির হয়ে উত্ত্যক্তসহ নানা প্রকার অঙ্গভঙ্গি প্রদর্শন করতো সুজন।

ভুক্তভোগী জানান, দফায় দফায় কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল সুজন। তাতে সায় না দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে গত ৩০ মে সকালে কাজির শিমলা বাজারে আমাকে ও আমার বোনের পথরোধ করে বাজার থেকে জোড়পূর্বক ডেকে নিয়ে যায় তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মেসার্স সুজন এন্টারপ্রাইজে। সেখানে নিয়ে নির্জন স্থানে যাওয়ার কুপ্রস্তাব দিলে আমি তাতে রাজি না হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে তুলে নেওয়ায় চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে প্রকাশ্যে কিল ঘুষিসহ শারীরিক নির্যাতন করে এবং আমার শ্লীলতাহানি করে। আমার বোন এর প্রতিবাদ করলে তাকেও মারধর করে। এ ঘটনাটি স্থানীয় আরো কয়েকজন বখাটে যুবক ভিডিও ধারণ করে। তিনি নির্যাতনকারীর দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেন।

অভিযুক্ত সুজনের ভাই জানান, আমার ভাই তাকে পিটিয়েছে সত্য, কিন্ত দুজনেই ভালো না। তাদের বিচার হওয়া দরকার বলে তিনি দাবী করেন।

ত্রিশাল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন জানান, ওই প্রবাসী নারীর দায়ের করা অভিযোগটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।