🕓 সংবাদ শিরোনাম

শাহজাদপুরে একটি সেতুর অভাবে ঘুরে যেতে হয় ১০ কিলোমিটারস্কুল কলেজে ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়াভাই’ দেখাতে নির্দেশচাঁদাবাজির মামলায় গ্রেপ্তার ঢাবি ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কারসরকারি গুদামে খাদ্যশস্য মজুদ আছে ১৬.৬৯ লাখ মেট্রিক টনসেচের অভাবে ত্রিশালে আমন চারা রোপণে দুশ্চিন্তায় কৃষকরাবিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবনে ২৭৬ টি রয়েল বেঙ্গল টাইগারের হদিস নেই!শেরপুরে ব্রক্ষপুত্র নদীর ভাঙ্গন, বিলীন হচ্ছে ফসলি জমিব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত মাকে বাঁচাতে ছেলে ইনজেকশন খুঁজে হয়রান!ফরিদপুরে গায়ে পচনধরা রোগীকে বাঁশ ঝাড়ে ফেলে দিলো স্বজনরা, উদ্ধারে পুলিশলকডাউনে বিয়ের আয়োজন করায় বর ও কনের পরিবারকে জরিমানা

  • আজ বৃহস্পতিবার, ১৪ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ২৯ জুলাই, ২০২১ ৷

অসদাচরণের দায়ে আবারো নিষিদ্ধ সাকিব

shakib
❏ শনিবার, জুন ১২, ২০২১ খেলা, ফিচার

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক- বিতর্ককে সঙ্গী করে পথচলা সাকিব আল হাসানের ক্যারিয়ারে লাগলো আরেকটি দাগ। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) ম্যাচে অশোভন আচরণের জন্য চার ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

ক্রিকেট কমিটি অফ ঢাকা মেট্রোপলিস (সিসিডিএম) ম্যাচ রেফারি ও আম্পায়ারের কাছ থেকে পাওয়া প্রতিবেদনের ভিত্তিতে এই শাস্তি দিয়েছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের অধিনায়ক সাকিবকে। ডিপিএলের বাই লজের লেভেল ফোরের দুটি ধারা ভঙ্গের জন্য চার ম্যাচ খেলতে পারবেন না তিনি।

শনিবার (১২ জুন) বিকালে মোহামেডানের ক্রিকেট কমিটির চেয়ারম্যান মাসুদুজ্জামান এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার মিরপুরে আবাহনীর বিপক্ষে ম্যাচে আউট না দেয়ার প্রতিবাদে লাথি দিয়ে স্ট্যাম্প ভেঙে দেন সাকিব আল হাসান। এছাড়া ক্ষিপ্ত হয়ে এসে তিনটি স্ট্যাম্পই তুলে নিয়ে মাটিতে আছাড় মারেন তিনি। এমন ঔদ্ধত্বপূর্ণ আচরণের কারণে সাকিবকে কী শাস্তি দেয়া হয়, সে দিকে তাকিয়ে ছিল সবাই।

অবশেষে ২৪ ঘণ্টা পার না হতেই প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ নিয়ন্ত্রক কমিটি সিসিডিএমের (ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিশ) পক্ষ থেকে চার ম্যাচের নিষেধাজ্ঞার শাস্তি আরোপ করা হলো বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারের ওপর।

ঘটনার সূত্রপাত গতকাল ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে মোহামেডান-আবাহনী ম্যাচে। মোহামেডানের ছুঁড়ে দেওয়া ১৪৫ রানের চ্যালেঞ্জে তখন ব্যাট করছে আবাহনী। পঞ্চম ওভারে আবাহনীর মুশফিকুর রহিমকে করা সাকিবের বলটা লেগেছিল তার পায়ে। দুই হাত তুলে আবেদন করেন সাকিব। আম্পায়ার ইমরান পারভেজ নাকচ করেন ওই আবেদন। কয়েক সেকেন্ড না যেতেই সাকিব মেজাজ হারিয়ে বসেন। স্টাম্পে লাথি মেরে ভেঙে ফেললেন। এরপর ক্ষিপ্ত হয়ে কথা বললেন আম্পায়ার ইমরান পারভেজের সঙ্গে। এরপর সতীর্থরা এসে সাকিবকে টেনে নেন।

পরের ওভারে আবারও মেজাজ হারান তিনি। পঞ্চম বলের পর বৃষ্টি আসায় খেলা বন্ধ করেন আম্পায়ার। মাঠকর্মীদের দিকে ইশারায় কভার আনতে বলেন আম্পায়ার মাহফুজুর রহমান। তখন হঠাৎই রেগে যান সাকিব। মুখোমুখি হন আম্পায়ারের, ক্ষিপ্ত ভঙ্গিতে আম্পায়ারকে শাসান তিনি। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সাকিবের রাগের চূড়ান্ত রূপ দেখা যায়। নন স্ট্রাইকিং প্রান্তের তিনটি স্টাম্পই উপড়ে ফেলেন তিনি। দেন আছাড়ও। এরপর তিনি ধীরে ধীরে যেতে থাকেন ড্রেসিং রুমের দিকে।

মাঠ ছাড়ার সময় আবাহনীর ড্রেসিং রুমের বাইরে থেকে সাকিবের দিকে কিছু বলতে বলতে এগিয়ে যান আবাহনীর কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন। তখন সাকিবও ছিলেন উত্তেজিত। একজন আরেকজনের দিকে মারমুখী হয়ে তেড়ে যান। মোহামেডানের ক্রিকেটাররা তখন থামান সাকিবকে। মাঠ ছাড়ার শামসুর দৌড়ে আবাহনীর ড্রেসিং রুমের দিকে গিয়ে থামান সুজনকে!

এমন কাণ্ডের পর অবশ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভক্ত আর ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন সাকিব। জানিয়েছেন ভবিষ্যতে এমনটা আর হবে না। তারপরও অবশ্য শাস্তি থেকে রক্ষা পেলেন না।

অবশ্য কদিন আগেও ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের জৈব সুরক্ষাবলয় ভেঙে ক্ষমা চেয়েছিলেন সাকিব। এর আগেও ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাকিবের একাধিকবার শৃঙ্খলাভঙ্গের ঘটনা আছে। সেগুলোর জন্য তিনি বিভিন্ন সময় শাস্তিও পেয়েছেন।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন