🕓 সংবাদ শিরোনাম

শাহজাদপুরে একটি সেতুর অভাবে ঘুরে যেতে হয় ১০ কিলোমিটারস্কুল কলেজে ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়াভাই’ দেখাতে নির্দেশচাঁদাবাজির মামলায় গ্রেপ্তার ঢাবি ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কারসরকারি গুদামে খাদ্যশস্য মজুদ আছে ১৬.৬৯ লাখ মেট্রিক টনসেচের অভাবে ত্রিশালে আমন চারা রোপণে দুশ্চিন্তায় কৃষকরাবিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবনে ২৭৬ টি রয়েল বেঙ্গল টাইগারের হদিস নেই!শেরপুরে ব্রক্ষপুত্র নদীর ভাঙ্গন, বিলীন হচ্ছে ফসলি জমিব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত মাকে বাঁচাতে ছেলে ইনজেকশন খুঁজে হয়রান!ফরিদপুরে গায়ে পচনধরা রোগীকে বাঁশ ঝাড়ে ফেলে দিলো স্বজনরা, উদ্ধারে পুলিশলকডাউনে বিয়ের আয়োজন করায় বর ও কনের পরিবারকে জরিমানা

  • আজ বৃহস্পতিবার, ১৪ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ২৯ জুলাই, ২০২১ ৷

ইলিশের টানে পদ্মার পাড়ে ছুটছে মানুষ, জমজমাট ‘প্রজেক্ট হিলসা’

hilsa
❏ সোমবার, জুন ১৪, ২০২১ ঢাকা

সময়ের কণ্ঠস্বর, মুন্সিগঞ্জ- পদ্মার আভিজাত্য আর ঐতিহ্যের প্রতীক জাতীয় মাছ ইলিশ। পদ্মাপাড়ের জেলা মুন্সিগঞ্জের মাওয়া শিমুলিয়া ঘাটে এই ইলিশের স্বাদ উপভোগে ভোজন রসিকদের ভিড় হরহামেশা লেগেই থাকে। এবার সেই ঘাটের অদূরে ‘প্রজেক্ট হিলসা’ নামে নির্মিত হয়েছে দেশের প্রথম ইলিশ মাছের আদলে রেস্টুরেন্ট।

নান্দনিক স্থাপনাটিকে ঘিরে একদিকে বেড়েছে এলাকার সৌন্দর্য, অন্যদিকে পরিণত হয়েছে বিনোদনের নতুন স্পটে। নতুন এ আয়োজন দেখতে রাজধানী ঢাকাসহ দূর-দূরান্ত থেকে প্রতিদিন ছুটে আসছে হাজারও মানুষ।

রাজধানীর খুব কাছে মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া ঘাটের সামনে গত ২৬ মে থেকে চালু হয়েছে প্রজেক্ট হিলশা রেস্তোরাঁটি।

প্রজেক্ট হিলশার মূল আকর্ষণ হলো, এখানে খেতে বসলে মনে হবে যেন ইলিশের পেটের ভেতরে বসেই ইলিশ খাওয়া। পদ্মার তাজা ইলিশ দিয়েই এখানে চলে অতিথি আপ্যায়ন। আবার কেজি হিসেবে বিক্রি করা হয় ইলিশ।

সরেজমিনে দেখা যায়, দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ওই রেস্তোরাঁয় ছুটে এসেছে শত শত মানুষ। তাদের মধ্যে রাজধানী ঢাকা থেকেই ছুটে এসেছেন অধিকাংশ মানুষ। খাবারের পাশাপাশি সেলফি তোলা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। খাবারের পাশাপাশি ওই রেস্তোরাঁয় রাখা হয়েছে শিশুদের জন্য বিভিন্ন ইনডোর মোটরবাইক রাইড খেলাও। তাই রেস্তোরাঁয় এসে খেলাধুলা করতে পেরে খুশি শিশুরাও।

রেস্তোরাঁর ভেতর আন্তর্জাতিক মানের ফার্নিচারে সাজানো হয়েছে। রেস্তোরাঁর সামনে ও পেছনে রয়েছে বিশাল গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা। বাড়তি মানুষের চাপে খাবার সরবরাহ করতে অনেক সময় কর্তৃপক্ষকে হিমশিম খেতে হয়। গ্রাহকরা দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করলেও খাবারের মান নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন।

প্রজেক্ট হিলশায় আসা অধিকাংশ গ্রাহক জানান, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে দেখে এই রেস্তোরাঁয় ছুটে এসেছেন তারা।

বিশ্বমানের এই রেস্টুরেন্ট সম্পর্কে জানতে চাইলে “প্রজেক্ট হিলসার” ম্যানেজার ইনচার্জ প্রসনজিৎ রায় বলেন, আমাদের এই রেস্টুরেন্টটি বিশ্বমানের তাতে কোনো সন্দেহ নেই। এখানে একসাথে ৩’শ প্লাস মানুষ বসে খেতে পারবে। কাস্টমার সার্ভিসের জন্য আমাদের স্টাফ রয়েছে ৮০জন প্লাস। রয়েছে ফ্রী গাড়ি পার্কিং-এর সুব্যবস্থা। আপাতত আমরা বেলা ১২টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত সার্ভিস চালু রেখেছি। তবে সামনে আমাদের প্লানিং রয়েছে ওভার নাইট করার। কেননা ঢাকা থেকে বহু মানুষ রাতের বেলা ইলিশ খেতে মাওয়া ঘাটে আসেন।

ইলিশ ছাড়া আর কি কি খাবার এখানে পাওয়া যায় এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ইলিশের আইটেম ছাড়াও আমাদের এখানে রয়েছে ইন্ডিয়ান, থাই আন্ড চাইনিজ ও কন্টিনেন্টাল ফুড। যা অন্যান্য সব রেস্টুরেন্ট থেকে ভালো করার চেষ্টা করেছি আমরা।

খাবারের দাম কেমন? উত্তরে তিনি বলেন, বাইরে থেকে দেখে অনেকই ভাববে এখানে খাবারের দাম অনেক বেশি। বাস্তবে মোটেও তা না। আমাদের খাবারের দাম রিজনেবল। মাওয়া ঘাটে অন্যান্য হোটেলে যেমন দামে সবাই খায় আমাদেরও সেই রকম। আমাদের এখানে ১৫’শ থেকে ১৮’শ টাকায় ইলিশ রয়েছে। আর এই দামের মধ্যেই আমরা ভেজে দিচ্ছি বা ভর্তা করে দিচ্ছি। যা বাইরেও একি রকম। তাই দামের কথা না ভেবে পরিবার পরিজন নিয়ে চলে আসুন প্রোজেক্ট হিলসায়। আর চাইলে আমাদের আগে থেকেও কল করে বুকিং দিতে পারেন এ জন্য কোনো পে করতে হবে না। তবে নির্দিষ্ট সময়ের চাইতে সর্বোচ্চ আধা ঘণ্টা আমরা ওয়েট করবো। আধা ঘণ্টা অতিবাহিত হলে আপনার বুকিং ক্যানসেল করে দেয়া হবে।

যেভাবে যাবেনঃ ঢাকার মিরপুর ১০, ফার্মগেট, শাহবাগ থেকে রয়েছে স্বাধীন পরিবহন। এ ছাড়া ঢাকার গুলিস্তান থেকে সারাদিনই পাবেন মাওয়া যাওয়ার বাস ইলিশ, গাঙচিল, বিআরটিসির এসি বাস। যাত্রাবাড়ী থেকেও বাস যোগে আসতে পারবেন।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন