• আজ মঙ্গলবার, ১৯ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ৩ আগস্ট, ২০২১ ৷

অনেক শান্তি লাগছে: পরীমনি


❏ সোমবার, জুন ১৪, ২০২১ বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক- ঢাকা বোট ক্লাবে ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টার মামলায় ক্লাবটির বহিষ্কৃত নির্বাহী সদস্য নাসির উদ্দিন মাহমুদ গ্রেফতার হওয়ার স্বস্তি প্রকাশ করেছেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। সোমবার রাতে তার বনানীর বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনে তার অভিব্যক্তি তুলে ধরেন।

পরীমনি বলেন, আমাকে ক্যামেরার সামনে এভাবে দাঁড়াতে হবে। আমি এভাবে দাঁড়িয়ে ইউজটু না। আমার কাজ নিয়ে সবসময় দাঁড়িয়েছে। আমি ৫ মিনিট ফিল করলাম। আমাকে এভাবেও দাঁড়াতে হয়েছে। আজকে আমি অনেক খুশি। আজকে শান্তি লাগতেছে। যখন দেখছি যে এত তাড়াতাড়ি জিনিসগুলো হইছে। এতোটাও আশা করতে ছিলাম না। আমি সবার প্রতি কৃতজ্ঞ। আমি চেয়েছি কোনোভাবেই কাঁদব না।

এ সময় উপস্থিত সাংবাদিকরা নাসির উদ্দিনের সঙ্গে পরীমনির পরিচয় কিভাবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নাসিরের সঙ্গে ওখানেই দেখা হয়েছে। ওনার নাম যে নাসির উদ্দিন আমি নামই জানি না।

মদ নিতে বাধা দেওয়ায় আপনার সঙ্গে থাকা ছেলেগুলো মারধর করেছে এমন প্রশ্নে পরীমনি বলেন, এটা তো কেমন বাচ্ছা সুলভ আচরণ হয়ে গেলো না। ১৫ সেকেন্ডের ভিডিও শোনেন। এটা আপনার কান নিতে পারবে না। তারপরেও এটা, কিছু বলার নেই আমার।

সেখানে কেন গিয়েছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, সেখানে ইনভাইটেও যাইনি। ওটা যে ক্লাব; আমি জানতাম না। আমাদের সঙ্গে যে অমি ভাইয়া ছিল তার একটা কাজ ছিল। আমি বলিনি অমি ভাইয়া আমাকে প্ল্যান করে নিয়ে গেছে। সে আমাকে আগেও বলেনি ওখানে চলো।

সেখানে গাড়ি থেকে নামার বিষয়ে অমিকে উদ্ধৃত করে তিনি বলেন, তোমরা এখানে সিকিউরড। তখন রাত ১২টা প্রায়। ওখানে সিকিউরিটি ঢুকতে দিচ্ছিল না। পরে কাউকে ফোন করেছিল।

ওই ব্যক্তি আইজিপির বন্ধু আপনি জানেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে পরীমনি বলেন, ওখানে যে ছিলেন সে বারবার বলেছেন উনি (নাসির উদ্দিন) আইজিপির বন্ধু। আমার ক্যারিয়ার, নায়িকা মানুষ এসব উল্লেখ করে বলেন, আমার সঙ্গে অন্যায় হলে বিচার চাব না। একজনেরও নাম জানি না, তাই বলে কি ঘটনা পুলিশকে বলব না। ইজ্জত তো আমার হানি হয়েছে ভাই। সেটার বিচার চাওয়া কি ইজ্জত যাওয়ার ব্যাপার।

চলচ্চিত্রের নায়িকা পরীমনিকে ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টা মামলায় ব্যবসায়ী নাসির ইউ মাহমুদকে সোমবার গ্রেফতার করা হয়েছে। উত্তরার একটি বহুতল ভবনের ফ্ল্যাট থেকে নাসির ও অমিসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় নাসিরের সঙ্গে থাকা অল্পবয়সী তিন নারীকেও গ্রেফতার করা হয়। এদের মধ্যে অমির গার্লফ্রেন্ড স্নিগ্ধা ও নাসিরের সঙ্গী লিপি ও সুমি রয়েছেন। গোয়েন্দা পুলিশ অভিযান পরিচালনার সয়ম ফ্ল্যাট থেকে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বিদেশি মদ-বিয়ার ও এক হাজার পিচ ইয়াবা উদ্ধার করে।

এর আগে পরীমণিকে ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টার ঘটনাটি কারও নাম উল্লেখ না করে ফেসবুকে এক দীর্ঘ স্ট্যাটাস দেন তিনি। সেখানে এই ঘটনার বিচার চান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে। এর পরের দিন রোববার তিনি বনানীর বাসায় সাংবাদিক সম্মেলন করেন। সেখানে ঢাকা বোট ক্লাবের নির্বাহী সদস্য ও ব্যবসায়ী নাসির ইউ মাহমুদের নাম উল্লেখ করেন।

এদিকে ঢাকা বোট ক্লাবের আলোচিত ঘটনায় নির্বাহী সদস্যের পদ থেকে নাসির উদ্দিন মাহমুদকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন