• আজ শুক্রবার, ১৫ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ৩০ জুলাই, ২০২১ ৷

আজমিরীগঞ্জে অবাধে পোনা মাছ শিকার, নির্বিকার মৎস্য অফিস

Sylhet news
❏ শনিবার, জুলাই ১০, ২০২১ সিলেট

মঈনুল হাসান রতন, হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে কালনী, কুশিয়ারা, বশিরা নদীতে অবাধে চলছে জাটকা ইলিশ ও বিভিন্ন রকমের পোনা মাছ নিধন। সারাদেশে লকডাউন কার্যকর করতে মাঠে কাজ করছে প্রশাসন। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে একশ্রেণীর অসাধু জেলেরা নদীতে বিভিন্ন রকমের অবৈধ জাল দিয়ে নিধন করছে জাটকা ইলিশ ও বিভিন্ন দেশীয় প্রজাতির ছোট মাছ।

শনিবার সকালে বদলপুর ইউনিয়নের পাহাড়পুর বাজারে উপজেলার সদর চরবাজার, কাকাইলছেও বাজারে দেখা যায় বেশ কয়েক জন মৎস্য বিক্রেতা জাটকা ও ছোট প্রজাতির দেশীয় মাছের পোনা হেটে হেটে বিক্রি করছেন। এ সময় তাদের সাথে আলাপকালে জানা যায় কালনী, কুশিয়ারা, বছিরা নদী থেকে এই মাছ শিকার করছেন তারা। এজন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের উদাসীনতাকে দায়ী করছেন এলাকার সচেতন জনগণ।

জানা যায়, চলতি মৌসুমে উপজেলার বদলপুর ইউনিয়নের পাহাড়পুর থেকে শুরু করে কাকাইলছেও ইউনিয়নের ভাটী অঞ্চল পর্যন্ত কালনী, কুশিয়ারা, বছিরা নদীতে দিনে কিংবা রাত্রে অবৈধ ভীম, কারেন্ট, খুনা ও চায়না জাল দিয়ে চলছে নিষিদ্ধ জাটকা সহ দেশীয় প্রজাতির ছোট মাছ নিধন।

সরেজমিনে উপজেলার সদরবাজার সহ বিভিন্ন বাজারে দেখা যায় প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে অভিনব কায়দায় চলে অবৈধ জাল বেচাকেনা। প্রশাসনের অভিযান থেকে বাঁচতে দোকানের পরিবর্তে জাল রাখা হয় বিভিন্ন জায়গায়। বর্তমান সময়ে সরকার ঘোষিত সর্বাত্মক লকডাউন নিশ্চিতে মাঠে রয়েছে প্রশাসন। এই সুযোগকেই কাজে লাগাচ্ছে এক শ্রেণীর অসাধু জাল বিক্রেতা। প্রতি বছর গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়, মিলে অভিযানের আশ্বাস ও কিন্তু কর্মকর্তা বদলী হন নতুন কর্মকর্তার মুখেও মিলে অভিযানের আশ্বাস। অভিযানের আশ্বাস দিলেও এখন পর্যন্ত জোরালো কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়নি বলে দাবী উপজেলার সচেতন মহলের।

এ বিষয়ে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আনিছুর রহমান বলেন- করোনা পরিস্থিতির কারণে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করতে পারছি না। তবে শীঘ্রই আমরা অভিযানে নামবো।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন