• আজ মঙ্গলবার, ১৯ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ৩ আগস্ট, ২০২১ ৷

ফেসবুকে প্রেম, বিয়ের ৬ মাস না যেতেই একসাথে ফাঁস দিয়ে স্বামী-স্ত্রীর আত্মহত্যা!

স্বামী-স্ত্রীর আত্মহত্যা
❏ রবিবার, জুলাই ১১, ২০২১ আলোচিত, দেশের খবর

চাঁদপুর প্রতিনিধি, সময়ের কণ্ঠস্বরঃ ফেসবুকে প্রেমের সুত্র ধরে মাত্র ছয়মাস আগেই বিয়ে করেছিলেন মানিক মোল্লা (২২) ও লাইলী আক্তার (২০)।

কিন্তু বিয়ের ছয় মাস না যেতেই দাম্পত্য কলহের জেরে একঘরে একইসাথে আত্মহত্যা স্বামী-স্ত্রী করেছেন। রোববার (১১ জুলাই) দুপুরে পাবনার ফরিদপুর উপজেলার বিলচন্দক গ্রামে ঐদম্পত্তির ঘর থেকে দুজনের ফাস দেয়া মরদেহ উদ্ধার করা হয় ।

মানিক ওই গ্রামের খাইরুল মোল্লার ছেলে আর লাইলী আক্তারের বাড়ি চাঁদপুর জেলায়।

প্রাথমিক তদন্তের বরাত দিয়ে পাবনার সহকারী পুলিশ সুপার (চাটমোহর সার্কেল) সজীব শাহরীন বলেন, পারিবারিক কলহের জেরে স্বামী-স্ত্রী গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে জানতে পেরেছি। এ বিষয়ে তদন্ত করে পরবর্তীতে বিস্তারিত জানানো হবে।

স্থানীয় রহমান আলী ঐ পরিবারের বরাত দিয়ে জানান, মানিক মোল্লা রাজধানী ঢাকায় একটি গার্মেন্টসে চাকরি করতেন। সম্প্রতি ফেসবুকে লাইলীর সঙ্গে পরিচয় ও প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ছয় মাস আগে লাইলী আগের স্বামী সংসার ফেলে মানিককে বিয়ে করেন। মুলত বিয়ের পর কাজ কর্ম না থাকায় মানিক স্ত্রীকে নিয়ে গ্রামের বাড়ি বিলচান্দক চলে আসেন।

এখানে এসে মানিক কৃষিশ্রমিক ও ভ্যানচালক হিসেবে কাজ শুরু করেন। পারিবারিক সুত্র জানিয়েছে, চলমান লকডাউনে বেকার হয়ে পড়ায় স্ত্রীর সঙ্গে কলহ লেগেই থাকতো।

রোববার সকালে মানিক মোল্লার বাবা-মা সাংসারিক কাজে বাইরে যান। দুপুরে বাড়ি ফিরে ঘরের দরজা বন্ধ দেখতে পান। পরে ঘরে কারো সাড়া-শব্দ না পেয়ে দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে তাদের ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পান। পরে পুলিশকে খবর দিলে তারা মরদেহ উদ্ধার করে।

পাবনার ফরিদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ রানা বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন