• আজ মঙ্গলবার, ১২ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ২৭ জুলাই, ২০২১ ৷

করোনাভীতি উপেক্ষা করেই ঈদ কেনাকাটায় ব্যস্ত ভালুকাবাসী

Bhak Markt20-21
❏ মঙ্গলবার, জুলাই ২০, ২০২১ দেশের খবর, ময়মনসিংহ

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি: ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলায় হক মার্কেট, রায় মার্কেট, আসাদ মার্কেট, সরকার মেনশন, খান মার্কেট, আওয়াল শপিং কমপ্লেক্স, ভালুকা প্লাজা, তালুকদার মার্কেট  ঘুরে দেখা যায় নানা বয়সী ক্রেতার ভিড়। চলতি পথে পা ফেলার মতো জায়গা নেই। কেনাকাটা করতে আসা ক্রেতার মধ্যে নারীর সংখ্যা বেশি। রয়েছে শিশু-কিশোররাও।

কিছু কিছু মার্কেটে স্বাস্থ্যবিধি মানলেও অনেক মার্কেটে ক্রেতা-বিক্রেতাদের সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি মানতে দেখা যায়নি। অনেককে শপিং ব্যাগের মতো মাস্ক হাতে নিয়ে ঘুরতে দেখা যায়। কিছু বিক্রেতা মাস্ক মুখে না রেখে কানের এক পাশে ঝুলিয়ে রেখেছেন।

মার্কেট বা বিপনীবিতানগুলো খুলতে সরকারের নির্দেশনায় বলা হয়, কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে শপিংমল কিংবা দোকানপাটে যাতায়াত করতে হবে। কিন্তু ঈদ আনন্দে কেনাকাটার তোড়জোড় বাড়ায় উধাও স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব। করোনার ভীতি তো নেইই, বৃষ্টিও মানছে না মানুষ।

পৌর শহরের হক সুপার মার্কেটে কেনাকাটায় ব্যস্ত সজিব হোসেন বলেন, ‘মুখে মাস্ক নিয়েও তো কাজ হচ্ছে না। চারপাশে সবাই চেপে ধরেছে। স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে বিপদে পড়েছি। সামাজিক দূরত্ব তো দূরে থাক, মুখে মাস্কও নেই। বললে বলে আপনার মত করোনায় ভয় আমাদের নেই।’

শহরের জুতা ব্যবসায়ী হাবিব জানান, জুতার প্রচুর চাহিদা। দোকানে আগের ঈদের মত  চাপ না থাকলেও ভালই বিক্রি হচ্ছে। অনেক ক্রেতাই মাস্ক পরছেন না। কিছু বললে দোকান থেকে বের হয়ে যাচ্ছেন।

ব্যবসায়ীরা জানায়, এবারে অনেক দেরি করে কেনাকাটা শুরু হয়েছে। গত ঈদে করোনার কারণে খুব একটা কেনাকাটা হয়নি। বাজার দখল করেছে দেশীয় কাপড়। এছাড়া শিশুদের হরেক রকম পোশাকও বিক্রি হচ্ছে বেশি।

ভালুকার পৌর মেয়র ডা.এ.কে.এম মেজবাহ উদ্দিন কাইয়ুম বলেন, ‘মার্কেটগুলোতে সামাজিক দূরত্ব, মুখে মাস্ক পরা এসব নিয়ম মানছে না কেউ। ফলে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে নিজেদের বেঁচে থাকার স্বার্থে। তা না হলে আরও বড় বিপদ সামনে অপেক্ষা করছে।’

ভালুকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সালমা খাতুন বলেন, ‘সরকার ব্যবসায়ীদের কথা চিন্তা করেই শর্তসাপেক্ষে মার্কেট খুলে দিয়েছে। মাইকিং করে ক্রেতা-বিক্রেতাদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। এছাড়া, মার্কেট কমিটির লোকদেরও স্বাস্থ্যবিধি মেনে কেনাবেঁচা করা ও মাইকিং করে সবাইকে সতর্ক করার অনুরোধ করা হয়েছে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন