🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ শুক্রবার, ১৫ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ৩০ জুলাই, ২০২১ ৷

ঈদ যাত্রার শেষ দিনে নাড়ির টানে বাড়ি ফিরতে হাজারও মানুষ শিমুলিয়ায়

Mowa Gat
❏ মঙ্গলবার, জুলাই ২০, ২০২১ ঢাকা

মোঃ রুবেল ইসলাম তাহমিদ, মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি: নাড়ির টানে ছুটছে মানুষ, ঢাকা হচ্ছে  ফাঁকা । গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির পাশাপাশি ভ্যাপসা গরম, আর তীব্র যানজটও বাধা হতে পারেনি শেষ মুহূর্তের ঈদযাত্রায়।

দিতে হচ্ছে বাড়তি ভাড়া, বাসে কিংবা ট্রাকে যে যেভাবে পারছেন নাড়ির টানে বাড়ি ছুটছেন। যাত্রীচাপে গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি উধাও। গাড়িতে ভিড় কম থাকলেও স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা নেই যাত্রীদের।

গত কয়েকদিনে দক্ষিন বঙ্গের প্রায় অর্ধকোটি মানুষ রাজধানী ছেড়েছেন শিমুলিয়া ঘাট হয়ে। বাস, স্পিডবোট, লঞ্চে মাসুষের উপচে পড়া ভিড় ছিল থরেথরে। গত কয়েকদিনের ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে ধারণা করা যাচ্ছে আজ মঙ্গবার (২০ জুলাই) ৯ –  ১০ লাখ মানুষ ঢাকা ছাড়তে পারে শিমুলিয়া ঘাট হয়ে দক্ষিন বঙ্গে।

ঢাকার রাস্তাঘাট এখন অনেকটাই ফাঁকা হয়ে গেছে। রাত পেরুলেই ঈদ। প্রতিটি স্টেশনে, কাউন্টারে মানুষের ভিড়। করোনা সংক্রমণের ভয়াবহতার মধ্যেই যাত্রীরা গন্তব্যে ছুটছেন গাদাগাদি করে। এক সিট খালি রাখা তো দূরে থাক! ইঞ্জিনের ওপর বসিয়েও সকালের দিকে নেওয়া হচ্ছে যাত্রী। আবার মহাসড়কে যানজটের কারণে বাসের জন্য অপেক্ষা করতে হচ্ছে ঘণ্টার পর ঘণ্টা। যানজটের কারণে বাড়তি ভাড়া আদায় করছেন পরিবহন সংশ্লিষ্টরা এমন অভিযোগ করেন যাত্রীরা। শিমুলিয়া ঘাট হয়ে যশোর যাবেন এমন একজনের সাথে কথা বললে তিনি জানান, অন্য সময়ে ভাড়া সাড়ে তিন শ টাকা। এখন সাড়ে ৮শ  টাকা দিয়ে যেতে হচ্ছে।

অভিযোগ পাওয়া যায়। গণপরিবহনে যাত্রী পরিবহনে এমন নৈরাজ্য চললেও দুপুরে বাস টার্মিনাল পরিদর্শনে বিআরটিএর চেয়ারম্যান দাবি করলেন এখন পর্যন্ত পাননি কোনো অভিযোগ। এদিকে শেষ মুহূর্তের ঈদযাত্রায় মটরসাইকেলের চাপে ফেরিতে উঠতে পারছে না যাত্রীবাহী গাড়ি মোটরসাইকেল নিয়ে ফেরিতে উঠছেন যাত্রীরা-  আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২৩ জেলার অন্যতম প্রবেশপথ শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ঘরমুখো যাত্রীর উপচেপড়া ভিড় আজ ঈদ যাত্রার শেষ দিনে ।

বিআইডব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) সাফায়েত আহমেদ জানান,  শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ১৫টি ফেরি দিয়ে চলাচল স্বাভাবিক রেখেছে ঘাট কর্তৃপক্ষ। ১৫টি ফেরি, ৮৭ টি লঞ্চ  চলাচল করছে  দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলগামী মানুষ ছুটছেন দুপুরের দিকে দ্বীগুন। পদ্মায় স্রোতের কারণে পদ্মা পাড়ি দিতে ফেরিতে অতিরিক্ত সময় লাগছে।  শিমুলিয়া ঘাটের ট্রাফিক পরিদর্শক হাফিজুল ইসলাম জানান, শিমুলিয়া ঘাটের পার্কিং ইয়ার্ড ও ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়েতে পাঁচ শতাধিক যানবাহন পদ্মা পারের অপেক্ষায় রয়েছে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন