🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ বুধবার, ১৪ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

ময়মনসিংহে মিল্ক ভিটা বন্ধ কেন্দ্রটি চালুর দাবি খামারীদের

milk vita
❏ বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১২, ২০২১ ময়মনসিংহ

মামুনুর রশিদ, ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি- ময়মনসিংহ অঞ্চলের দুগ্ধ খামারিদের জন্য মিল্ক ভিটার একমাত্র দুগ্ধ শীতলীকরণ কেন্দ্রটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে দুবছর আগে। এতে দুধ নিয়ে বিপাকে পড়েছেন খামারিরা। বন্ধ হয়ে যাওয়া কেন্দ্রটি চালু করার দাবি জানিয়েছেন খামারীরা।

জানা গেছে, তৎকালীন মিল্ক ভিটার সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা দুধ না পাওয়ার অজুহাত দেখিয়ে কেন্দ্রটি বন্ধ করার সুপারিশ করলে কার্যক্রম গুটিয়ে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ ভুক্তভোগীদের।

স্থানীয় খামারি এবং প্রাণিসম্পদ অফিস জানায়, এখানে পর্যাপ্ত দুগ্ধ খামার রয়েছে। এক মাস আগেও এ অঞ্চলের খামারিরা তাঁদের দুধ বিক্রি করতে না পেরে রাস্তায় ফেলে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। কেন্দ্রটি বন্ধ হয়ে যাওয়ার জন্য মিল্ক ভিটার তৎকালীন কর্মকর্তাকে দুষছেন তাঁরা।

ত্রিশাল উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা হারুনুর রশীদ জানান, উপজেলায় এ বছর ছোট-বড় মিলিয়ে প্রায় ১৫ হাজার খামারি আছে। এখানে চাহিদার তুলনায় প্রচুর দুধ উদ্বৃত্ত থাকে।

দুধ উৎপাদনের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা জানান, এক উপজেলাতেই ২০ থেকে ৩০টির মতো সমিতি ছিল। সেখান থেকে নিয়মিত দুধ সংগ্রহ করে কারখানায় নিয়ে আসা হতো। কিন্তু কেন্দ্রটির দায়িত্বপ্রাপ্তদের অসহযোগিতায় সমিতি বন্ধ হয়ে যায়।

সরেজমিনে জানা যায়, ময়মনসিংহ অঞ্চলের খামারের দুধ সংগ্রহের জন্য ত্রিশালের বৈলরে একমাত্র খামার মিল্ক ভিটার ওই কেন্দ্রটি ছিল। প্রতিদিন ৩ হাজার লিটার দুধ সংগ্রহ করে পাস্তুরিত করার সক্ষমতা ছিল কেন্দ্রটির। কিন্তু এটি বন্ধের ফলে দুধ সংগ্রহ দুই বছর বন্ধ রয়েছে। এতে লোকসানের শিকার হচ্ছেন খামারিরা। ওই প্রতিষ্ঠানটিও এখন জরাজীর্ণ অবস্থায় রয়েছে।

ত্রিশাল মিল্ক ভিটা সমবায় সমিতির সদস্য আলী মিয়া, চয়ন মিয়া ও হাকিম মিয়াসহ কয়েকজন বলেন, তাঁরা মিল্ক ভিটায় দুই বেলা দুধ দিতেন।

তখন উপকেন্দ্র থেকে গাভির জন্য বিনা মূল্যে অথবা স্বল্পমূল্যে চিকিৎসা, প্রজনন, খাবার, ঘাসের বীজ, ওষুধ ও টিকা দেওয়া হতো।

কেন্দ্রটির নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা মামুনুর রশিদ বলেন, আমি আসার কয়েক দিন পর রাতে দুধ সংগ্রহের পাস্তুরিত মেশিন, ফ্রিজারসহ সব নিয়ে যায়। আর কিছু বলতে পারব না।

এ বিষয়ে ত্রিশাল মিল্ক ভিটার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ডা. মোস্তফা সারোয়ার কিছু বলতে অস্বীকৃতি জানান। তিনি বলেন, ‘আমি চলে এসেছি প্রায় দেড় বছর হলো। এটা অফিসের সিদ্ধান্ত। আমি এ বিষয়ে কোনো বক্তব্য দেব না।

ত্রিশাল মিল্ক ভিটায় অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করা দিদারুল ইসলাম বলেন, ‘এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই। আমি দায়িত্ব পাওয়ার আগেই উপকেন্দ্রটি বন্ধ হয়েছে।’ তবে এ অঞ্চলে দুধের স্বল্পতা থাকার কথা নয় বলেও জানান তিনি।

ত্রিশাল উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে আমি অবগত ছিলাম না। বিষয়টি খতিয়ে দেখব। মিল্ক ভিটার চেয়ারম্যানের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলব।

আরও পড়ুন :
news n234 জামালপুরে ৯ ব্যক্তি জীবিত থেকেও ‘মৃত’

❏ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২১

news n34 ময়মনসিংহের নান্দাইলে ধানক্ষেতে রক্তাক্ত মরদেহ

❏ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২১

atok n342 নিজের মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে বাবা গ্রেপ্তার!

❏ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২১

ত্রিশালের নতুন ইউএনও আক্তারুজ্জামান

❏ বুধবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২১

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন