• আজ শুক্রবার, ২ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

মির্জাপুরে সমাজ নিয়ে দ্বন্দ: নিরাপত্তা চেয়ে প্রবাসী পরিবারের থানায় জিডি

mirjapur 532
❏ বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১২, ২০২১ ঢাকা

মো. সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি- টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ঈদুল আযহার গরু কোরবানির সমাজ নিয়ে দ্বন্দের জেরে হত্যার হুমকিসহ সামাজিকভাবে হেনস্তার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বাঁশতৈল ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামে। প্রতিপক্ষের কাছে গুম, হত্যা হওয়ার আশঙ্কায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সম্প্রতি মির্জাপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী আলহাজ্ব নাজিম উদ্দিন।

বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) জিডি’র বিষয়টি নিশ্চিত করেন মির্জাপুর থানার এসআই আরিফ তালুকদার।

ভুক্তভোগী নাজিম উদ্দিন জানান, তার তিন ছেলে দীর্ঘদিন যাবৎ প্রবাসে থেকে জীবিকা নির্বাহ করছেন। প্রতিবছরই একাধিক কোরবানি করে থাকেন। বাড়িতে নাজিম উদ্দিন ও তার স্ত্রী ব্যতিত কেউ বসবাস না করায় বিগত বছরগুলোতে নিজ বাড়িতেই কোরবানি করে স্বেচ্ছাসেবীদের মাধ্যমে মাংস বন্টন করে দেয়া হয়।

কিন্তু এ বছর এলাকার কয়েকজন এর বিরোধিতা করে তাদের একঘরা করার চেষ্টা করেন এবং তাদের বাদ রেখেই সমাজের কার্যক্রম চালায়। বিভিন্ন সময়ে সামাজিক কর্মকান্ডসহ দুঃস্থ, অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানোর চেষ্টা করে থাকেন কিন্তু এলাকার কিছু অসাধু ব্যক্তি তাদের কর্মকান্ডে ঈর্ষান্বিত হয়ে বিভিন্নভাবে তাদের হেনস্তা করার চেষ্টা চালায়।

সেখানেই থেমে নেই, পরবর্তীতে নাজিম উদ্দিন ও তার ছেলেদের নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা অপপ্রচার চালায়। নানা ভয়ভীতিসহ প্রতিনিয়তই হত্যা ও গুম করার হুমকি দিয়ে আসছে বাঁশতৈল গ্রামের বাসিন্দা লুৎফর রহমান কলিম (৩৫), সাদ্দাম হোসেন (৩০), আব্দুর রউফ (৪২), আব্দুল মালেক (৫৫), সেলিম (৩৫), বাবুল মিয়া (৩০), শামীম (২৫), ইব্রাহীম (৩৫), মোয়াজ্জেম (৩৫), হোসেন আলী (৪০), বাজের উদ্দিন (৫৫), আজহারুল ইসলাম (৪৮), হাবিব সিকদার (৩২) ও মঞ্জুরুল কাদের বাবুল (৫০)।

রাজনীতি দলের নেতাকর্মী হওয়ায় প্রভাব খাটিয়ে বিনা কারণে তাদের একঘরা করে দেয়ার পায়তারা করছে কিছু কুচক্র মহল। এ জন্য সংশ্লিষ্ট পুলিশ- প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন ভুক্তভোগী নাজিম উদ্দিন।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার উপ-পরিদর্শক মো. আরিফ হোসেনের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, সাধারণ ডায়েরী করার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি এবং ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। পরবর্তীতে তদন্ত স্বাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন