🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ বুধবার, ১৪ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

কক্সবাজারে পৃথক ঘটনায় ৪ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু

অস্বাভাবিক মৃত্যু
❏ শনিবার, আগস্ট ১৪, ২০২১ চট্টগ্রাম, দেশের খবর

শাহীন মাহমুদ রাসেল, কক্সবাজার প্রতিনিধি:

কক্সবাজারে শুক্রবার (১৩ আগস্ট) ৮ ঘন্টার ব্যবধানে চারজনের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। এদের মাঝে দুজন পৃথক দুর্ঘটনায় মারাযান। একজন আত্মহত্যা ও নিখোঁজের ৩ দিন পর আরেক কিশোরের বস্তাবন্দি মরদেহ মিলেছে। মরদেহগুলো উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

জানা যায়, নিখোঁজ হওয়ার তিন দিন পর সায়মন (১৩) নামের এক কিশোরের বস্তাবন্দী অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে কক্সবাজার সদরের ভারুয়াখালী ইউনিয়নের ধলির ছড়ার একটি পাহাড় থেকে বস্তাবন্দী মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে স্থানীয়রা বস্তাবন্দী লাশটি দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে কক্সবাজার সদর মডেল থানার পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।

সে পেশায় একজন অটোরিক্সার চালক। সায়মন রামু রশিদ নগরের ৩নং ওয়ার্ড বড় ধলিরছড়া গ্রামের হতদরীদ্র ছাবের আহমদের ছেলে। তার অটোরিক্সাটি লুণ্ঠন করতে সায়মনকে অপহরণ করে নির্মম ভাবে খুন করা হয়েছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারায় লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সের সাথে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মো. জসিম উদ্দিন (৩০) নামের এক মোটরসাইকেল চালকের মৃত্যু হয়।

শুক্রবার (১৩ আগস্ট) বেলা ১২টার দিকে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের ডুলাহাজারা রিংভং ছগিরশাহ গেট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত জসিম উপজেলার কৈয়ারবিল ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড নয়াপাড়ার খলিল আহমদের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বেলা সোয়া ১১টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে একটি লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্স মহাসড়কের উপজেলার ডুলাহাজারা ছগিরশাহকাটা রিংভং এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এসময় মোটরসাইকেল আরোহী গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে মালুমঘাট খ্রীষ্টান হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে বেলা ১টার দিকে তিনি মারা যান।

একইদিন চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারায় জুমার নামাজের প্রস্তুুতি নিতে গিয়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে হাফেজ মোঃ শাহাজাহান (২৩) নামের যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড উলুবনিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত মোঃ শাহাজাহান ওই এলাকার আলতাজ আহমদের দ্বিতীয় ছেলে।
তিনি খুটাখালী তমিজিয়া মাদ্রাসার আলিম প্রথম বর্ষের মেধাবী ছাত্র।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, জুমার নামাজের প্রস্তুুতি নিতে শাহজাহান নিকটস্থ ধোপার দোকান থেকে পায়জামা পাঞ্জাবি নিয়ে বাড়িতে আসে। এসময় বাড়িতে আলো জ্বালাতে একটি বৈদ্যুতিক বাল্বের হোল্ডার লাগাতে যায়।

পরে বাড়ির লোকজন এসে দেখতে পায় শাহাজাহান বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে পড়ে রয়েছে। তাৎক্ষণিক সুইস বন্ধ করে তাকে উদ্ধার করে এবং বুঝতে পারে মোঃ শাহাজাহান আর বেঁচে নেই।

এদিকে কক্সবাজার শহরের আলীর জাহাল এলাকায় এক ব্যক্তির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে মডেল থানা পুলিশ।

শুক্রবার বেলা দুইটার দিকে একটি স্ক্রাপের দোকান থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তবে এখনো যুবকের পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ।

ওই ব্যক্তি শফি নামে এক ব্যক্তির স্ক্রাপের দোকানে কাজ করতেন বলে জানিয়েছেন ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাহাব উদ্দিন।

তিনি বলেন, বেলা একটার দিকে কয়েকজন ব্যবসায়ী ফোন করে আমাকে ঝুলন্ত মরদেহের কথা অবগত করলে আমি দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে মডেল থানাকে খবর দিই। পুলিশ এসে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে কাউন্সিলর আরো বলেন, বারোটা থেকে সাড়ে বারোটার মাঝামাঝি সময় লোকটি আত্মহত্যা করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কিশোরের বস্তাবন্দী লাশসহ চারজনের মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রফিুকুল ইসলাম।

তিনি বলেন, মরদেহ গুলো উদ্ধার করে মর্গে রাখা হয়েছে। পরিচয় শনাক্তের পাশাপাশি তদন্ত পূর্বক আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন