• আজ শুক্রবার, ২ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

জাতীয় শোক দিবসে টুঙ্গিপাড়ায় নানা কর্মসূচী পালন

newset34
❏ রবিবার, আগস্ট ১৫, ২০২১ ঢাকা, দেশের খবর

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি- জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আজ রোববার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে সামরিক সচিব মেজর জেনারেল নকিব আহমদ চৌধুরী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধের বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পন করে শ্রদ্ধা জানান। এ সময় তিন বাহিনীর পক্ষে অনার গার্ড প্রদান করা হয়।

১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন উপলক্ষে টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধি সৌধ কমপ্লেক্সে নানা কর্মসূচি গ্রহন করা হয়। যদিও প্রতিবছর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এদিন জাতির পিতার সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে টুঙ্গিপাড়া এসে থাকেন। কিন্তু, এবছর করোনার কারনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচিতে যোগ দিতে টুঙ্গিপাড়া আসতে পারেননি।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের পক্ষে লেঃ কর্নেল (অবঃ) মুহাম্মদ ফারুক খান এমপি-র নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নেতারা বঙ্গবন্ধুর সমাধি সৌধের বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পন ও শ্রদ্ধা জানান। এ সময় পররাষ্ট্র মন্ত্রী একেএম আব্দুল মোমেন, প্রেসিডিয়াম সদস্য শাজাহান খান এমপি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, মির্জা আজম এমপি, আফম বাহাউদ্দিন নাসিম, এস এম কামাল হোসেন, আনিছুর রহমান, সাহাবুদ্দিন ফরাজী প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

এরপর জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগি সংগঠন, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, টুঙ্গিপাড়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিট কমান্ডসহ শতাধিক সংগঠনের পক্ষে বঙ্গবন্ধুর সমাধি সৌধের বেদীতে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

পরে সমাধি সৌধ কমপ্লেক্স মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। মিলাদ মাহফিলে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতা-কর্মিরা যোগ দেন। এরপর সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার মানুষকে শ্রদ্ধা জানাতে বঙ্গবন্ধু সমাধি সৌধ কমপ্লেক্স উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। সমাধিস্থল ফুলে ফুলে ভরে যায় বঙ্গবন্ধু প্রেমিদের ভালবাসায়।

এদিকে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬-তম শাহাদৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে টুঙ্গিপাড়ার বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কালো পতাকা টাঙানো হযেছে। জেলার বিভিন্ন সড়কে কালো কাপড় দিয়ে তৈরী তোরন দিয়ে শোকের আবহো সৃস্টি করা হয়েছে।

এছাড়া, এদিন জেলার সব মসজিদ, মন্দির, গীর্জায় জাতির পিতার আত্মার শান্তি কামনায় বিশেষ দোয়া করা হয়। ইউনিয়নে ইউনিয়নে কাঙ্গালী ভোজের আয়োজন করা হয়।

আরও পড়ুন :

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন