• আজ শুক্রবার, ২ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

রং–তুলির আঁচড়ে রোহিঙ্গা শিশুদের জলবায়ু পরিবর্তন

Cox's Bazar news
❏ বুধবার, আগস্ট ১৮, ২০২১ চট্টগ্রাম

শাহীন মাহমুদ রাসেল, কক্সবাজার প্রতিনিধি: ১৬ বছর বয়সী রোহিঙ্গা কিশোরী শাহিদা মনের মাধুরী মিশিয়ে রঙ পেন্সিলের আঁচড়ে সাদা কাগজে এঁকেছে বন্যায় বুক সমান পানি পেরিয়ে গৃহহীনদের আশ্রয়কেন্দ্রে ছোটার দৃশ্য। আর ১১ বছর বয়সী রোহিঙ্গা শিশু আবদুল ওয়াহেদ। রং–তুলির আঁচড়ে কচিহাতের ছোঁয়ায় ক্যানভাসে ফুটিয়ে তুলেছে ইটের ভাটা থেকে নির্গত ধোঁয়ায় বায়ু দূষণ, কল-কারখানার বর্জ্যতে নদীর পানির দূষণসহ প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের চিত্র।

মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) দুপুরে কক্সবাজার শহরের ফিশারিঘাটে সেভ দ্য চিলড্রেন কার্যালয়ে ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণকারীদের আঁকা ছবি থেকে বাছাই করা ৮২টি ছবি নিয়ে একটি প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করা হয়। সেখানে আবদুল ওয়াহেদসহ শিশু গ্রুপে ৪ জন ও শাহিদাসহ কিশোর গ্রুপে ৩ জনকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

ওদের মতো উখিয়া ও টেকনাফে ক্যাম্পে বসবাসরত দুই শতাধিক রোহিঙ্গা শিশুর হাতে রঙ তুলিতে ফুটে উঠেছে জলবায়ু পরিবর্তনে সৃষ্ট প্রাকৃতিক দুর্যোগের প্রতিচ্ছবি ।

সেভ দ্য চিলড্রেন আয়োজিত ‘জলবায়ু পরিবর্তনে শিশুদের ভাবনা’র অংশ হিসেবে রোহিঙ্গা শিশুরা এ ছবিগুলো এঁকেছে।

এ বিষয়ে সেভ দ্য চিলড্রেন এর মিডিয়া কমিউনিকেশন ম্যানেজার (কক্সবাজার) শহিদুল হক খান বলেন, ২ আগস্ট থেকে ১৪ আগস্ট পর্যন্ত ক্যাম্পেইনটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে দুই গ্রুপে ২ শতাধিক শিশু অংশ নেয়। তাদের মধ্য থেকে প্রাথমিকভাবে ৬ থেকে ১১ বছর বয়সী ৩৭ জন এবং ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী ৪৫ জনের ছবি নিয়ে প্রদর্শনীটি হয়। এতে দুই গ্রুপ থেকে ৭ জনকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে। বিজয়ীদের সনদ দেওয়া হবে এবং তাদের এই চিত্রগুলো কপ ২৭-এ প্রদর্শন করা হবে। এছাড়াও অংশগ্রহণকারী প্রতিটি শিশুই পাবে ছবি আঁকার সকল সরঞ্জাম।

ছোট ছোট এ শিশুদের আঁকা ছবির বিচারক ছিলেন শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের সহকারী কমিশনার আরিফ ফয়সাল খান, কক্সবাজার সিটি কলেজের অধ্যাপক শারমিন সিদ্দিকা লিমা, বাংলাদেশ শিশু একাডেমি কক্সবাজার জেলার চিত্রাংকন প্রশিক্ষক আবুল হাসনাত জিকু এবং সেভ দ্য চিলড্রেন কক্সবাজার জেলার শেল্টার কার্যক্রমের সিনিয়র ম্যানেজার আনিসুল ইসলাম।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন