• আজ মঙ্গলবার, ৬ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

ডুয়েটে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

DUET News
❏ শুক্রবার, আগস্ট ২০, ২০২১ শিক্ষাঙ্গন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সময়ের কণ্ঠস্বর: সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আজ (১৯ আগস্ট) বৃহস্পতিবার ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (ডুয়েট), গাজীপুর-এ অনলাইন প্লাটফর্ম (তড়ড়স) এর মাধ্যমে ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম. হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে বিকালে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব মো. জাহিদ আহসান রাসেল, এমপি এবং মূখ্য আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. আবদুল খালেক।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব মো. জাহিদ আহসান রাসেল, এমপি শোকাবহ ১৫ আগস্টে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের সকল শহীদসহ জাতীয় চার নেতা ও মুক্তিযুদ্ধের সকল শহীদদের স্মরণ করে গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও জীবনকর্ম তুলে ধরে বলেন, বাংলাদেশে অনেক নেতা জন্ম নিয়েছেন কিন্তু একমাত্র বঙ্গবন্ধুই বাঙালি জাতিকে স্বাধীনতার স্বাদ এনে দিতে পেরেছিলেন। তিনি শিক্ষা ও গবেষণার ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধুর দর্শন ও নীতি নিয়ে আলোকপাত করেন। তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে অনেক আগেই এ দেশ উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হতো। ৭৫ পরবর্তী দোসররা এদেশটাকে অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করতে চেয়েছিলো কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনা তাঁর দক্ষ নেতৃত্বে উন্নত বাংলাদেশ গড়ে তোলার ক্ষেত্রে চলমান উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখেছেন।

মূখ্য আলোচকের বক্তব্যে প্রফেসর ড. আবদুল খালেক বঙ্গবন্ধুর ঘটনাবহুল জীবন ও কর্ম তুলে ধরে বলেন, একদম শেকড় থেকে বা মাটির মানুষের মধ্য থেকে বঙ্গবন্ধু উঠে এসেছেন এবং সারা জীবন তৃণমূল মানুষের জন্য লড়াই-সংগ্রাম করে গেছেন। তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও দর্শনকে মুছে দিতে চেয়েছিলো। কিন্তু তারা এতে সফল হয়নি। তিনি ৭৫ এর হত্যাকান্ডের পেছনে খন্দকার মোশতাক ও জিয়ার মতো যারা ছিলো তাদের রাষ্ট্রীয় আদালতে মরণোত্তর বিচার দাবি করেন।

এ সময় সভাপতির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম. হাবিবুর রহমান শোকাবহ ১৫ আগস্টের শহীদদের স্মরণ করে গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। তিনি বঙ্গবন্ধুর জীবনীগ্রন্থ থেকে বিভিন্ন উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও স্বপ্নগুলো বান্তবায়ন করতে পারলেই বাংলাদেশ উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবে। তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু আজীবন শোষিত ও মুক্তিকামী মানুষের জন্য নিঃস্বার্থভাবে কাজ করে গেছেন। তাই আজ তাঁর আদর্শ ও দর্শন শুধু আমাদের জন্য নয় বরং সারাবিশ্বের মানুষের জন্য আধুনিক চিন্তাধারা তৈরির ক্ষেত্রে অমূল্য সম্পদে পরিণত হয়েছে।’ তিনি আরো বলেন, আজকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনা দীর্ঘ লড়াই-সংগ্রামের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর সেই আদর্শ ও দর্শন বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. মাজহারুল আলম। আলোচনা সভার শুরুতে বঙ্গবন্ধুর জীবনীর উপর একটি ডকুমেন্টারি প্রদর্শন করা হয়। আলোচনা সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

আরও পড়ুন :
school; স্কুল-কলেজে সাপ্তাহিক ছুটি হচ্ছে ‘দুই দিন’

❏ শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১

newsn ওমরাহ করতে গেলেন জাতীয় দলের ৭ ক্রিকেটার

❏ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২১

student এইচএসসির ফরম পূরণের সময় আবার বাড়ল

❏ বুধবার, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১

student wn34 দেড় বছর পর শ্রেণিকক্ষে ফিরল প্রাণ

❏ রবিবার, সেপ্টেম্বর ১২, ২০২১

sm news তীব্র জ্বরে জবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

❏ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ৯, ২০২১

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন