• আজ শুক্রবার, ২ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

২১শে আগস্ট স্মরণে বাআবিঅফ-এর আলোচনা ও দোয়া মাহফিল

Dhaka news
❏ শুক্রবার, আগস্ট ২০, ২০২১ ঢাকা

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক: বাংলাদেশ আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় অফিসার্স ফেডারেশন (বাআবিঅফ)-এর উদ্যোগে ভয়াল-বিভীষিকাময় ২১শে আগস্ট স্মরণে গতকাল বৃহস্পতবিার, রাত ৮:০০ ঘটিকায় ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে “সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিপরীতে একটি আলোর মশাল” শীর্ষক আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে যুক্ত ছিলেন বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ-এর উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য জননেতা জনাব আলহাজ্ব আমির হোসেন আমু, এম. পি.।

বাংলাদেশ আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় অফিসার্স ফেডারেশনের সভাপতি মোঃ আমিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে, সহ-সভাপতি প্রকৌশলী সৈয়দ মোহাম্মদ ইকরামের সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে যুক্ত ছিলেন শ্রী সুজিত রায় নন্দী (ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ), শামসুন নাহার চাঁপা (শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ), মোঃ মাসুদুর রহমান, (সিনেট সদস্য, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ও উপদেষ্টা, বাআবিঅফ)।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন মীর মোঃ মোর্শেদুর রহমান, মহাসচিব, বাআবিঅফ। পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত এবং শহিদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় বিশেষ দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন ড. এ. এস. এম শোয়াইব আহমেদ, খতিব, কেন্দ্রীয় মসজিদ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া। পবিত্র গীতা পাঠ করেন অরুণ কুমার বালা, সাংগঠনিক সম্পাদক, বাআবিঅফ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আমির হোসেন আমু বলেন, “২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা ছিল ১৯৭৫-এর ১৫ আগস্ট কালরাতে বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যাকাণ্ডের ধারাবাহিকতা। আওয়ামী লীগ সভাপতি ও ওই সময়ের বিরোধী দলীয় নেতা শেখ হাসিনা এবং আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের হত্যার মাধ্যমে আওয়ামী লীগকে নেতৃত্বশূন্য করে অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করাই ছিল ষড়যন্ত্রকারীদের মূল উদ্দেশ্য। মুক্তিযুদ্ধবিরোধী প্রতিক্রিয়াশীল গোষ্ঠীর নীলনকশায় সংঘটিত হয় গ্রেনেড হামলা।”

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শ্রী সুজিত রায় নন্দী বলেন, “১৫ আগস্ট, ১৭ আগস্ট ও ২১ আগস্টের ঘটনা একই সূত্রেগাথা, এ মাস ষড়যন্ত্র, কলঙ্কময় ও বেদনাবিধুর মাস । এসব কর্মকান্ডের কুশীলবরা উন্নয়ন, শান্তি ও স্বস্তির বাংলাদেশ চায় না। ১৫ আগস্ট প্রাইম টার্গেট ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আর একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার প্রাইম টার্গেট ছিলেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা। নির্মমতার দিক থেকে এমন রাজনৈতিক হত্যাকান্ডের নজির পৃথিবীতে আর নেই।” শামসুন নাহার চাঁপা বলেন, “জননেত্রী শেখ হাসিনা যতদিন বেঁচে আছেন দেশ ও গণতন্ত্র ততদিন সুরক্ষিত। আলোর মশাল হয়ে তিনি জাতিকে সঠিক পথ দেখাবেন। এ আলো যারা নিভাতে চেয়েছিল তারা দেশ ও জাতির শত্রু।”

বাআবিঅফ সহ-সভাপতি-১, প্রকৌশলী সৈয়দ মোহাম্মদ ইকরামের সঞ্চালনায় এ আলোচনায় বাআবিঅফ নেতৃবৃন্দ, বাআবিঅফ অঙ্গসংগঠন বাংলাদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের কর্মকর্তা সমিতির নেতৃবৃন্দ এবং কর্মকর্তাগণ যুক্ত ছিলেন।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন