• আজ মঙ্গলবার, ৬ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

ভূঁইফোঁড় গণমাধ্যমকে আইনের আওতায় আনা হবে: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

Sherpur minister
❏ শুক্রবার, আগস্ট ২০, ২০২১ জাতীয়

মিজানুর রহমান, শেরপুর প্রতিনিধি: গণমাধ্যমের নামে দেশে অবৈধ অনুমোদনহীন টেলিভিশন, অনলাইন নিউজ পোর্টাল চলছে। নাম সর্বস্ব ভূঁইফোঁড় কিছু গণমাধ্যম গজিয়ে উঠেছে, ভূয়া সাংবাদিকরা চাঁদাবাজি করছে। এতে করে মুলধারার গণমাধ্যম ও সাংবাদিকদের ইমেজ নষ্ট হচ্ছে।

দেশে কোন আইপি টিভির সরকারি অনুমোদন নেই। এসব আইপি টিভি ও নামধারি চাঁদাবাজ সাংবাদিকদের অচিরেই আইনের আওতায় আনা হবে। চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠলেই প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে এসব বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান এমপি। তিনি আরো বলেন, এ পর্যন্ত সাতশো আইপি টিভির আবেদন জমা পড়েছে, যাচাই বাচাই শেষে সরকার অনুমোদন প্রক্রিয়া শুরু করবে। এছাড়া অনলাইন পোর্টালের অনুমোদন কার্যক্রম চলমান আছে, বাকী গুলোরও পর্যায়ক্রমে দেয়া হবে।

শুক্রবার (২০ আগস্ট) দুপুরে শেরপুর প্রেসক্লাবের আয়োজনে সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের মাঝে কল্যান ট্রাস্টের প্রণোদনার চেক বিতরণ অনুষ্ঠানের আগে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় প্রতিমন্ত্রীর সাথে জাতীয় সংসদের হুইপ আতিউর রহমান আতিক, জেলা প্রশাসক মোঃ মোমিনুর রশীদ, পুলিশ সুপার হাসান নাহিদ চৌধুরী, শেরপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শরিফুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মেরাজ উদ্দিনসহ দলীয় নেতাকর্মী ও স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এরপর স্থানীয় শিল্পকলা একাডেমিতে মন্ত্রী ডাঃ মুরাদ হাসান ও হুইপ আতিক অন্যান্য অতিথিদের নিয়ে সাংবাদিকদের জন্য প্রধান মন্ত্রীর দেওয়া করোনা কালিন প্রণোদনার চেক প্রদান করেন। শেরপুর জেলার ৪৬ জন সাংবাদিক ১০ হাজার করে প্রণোদনার চেক গ্রহন করেন।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন