🕓 সংবাদ শিরোনাম

মকবুলের মরদেহ দেখতে হাসপাতালে মির্জা ফখরুল, স্ত্রী সন্তানকে আর্থিক সহায়তা * রাস্তা বন্ধ করে সমাবেশ করতে দেওয়া হবে না, আমরাও করব না: ওবায়দুল কাদের * নয়াপল্টন থেকে মির্জা ফখরুলকে ফিরিয়ে দিলো পুলিশ * বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে আরও ১,২৫০ কোটি টাকা ঋণ নিলো ২ ইসলামী ব্যাংক * দুই মামলায় হাজিরা দিলেন মির্জা ফখরুল-আব্বাস * থমথমে নয়াপল্টন, বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় অবরুদ্ধ * ফুলবাড়ীতে অপহরণের ২১ দিনেও উদ্ধার হয়নি নরসুন্দর বাবলু ! * বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের দেশে কোন মানুষ ঠিকানাহীন থাকবে না : প্রধানমন্ত্রী * ভারতকে টানা ২ সিরিজ হারাল বাংলাদেশ * ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আদালতে ভুল প্রতিবেদন দাখিলের অভিযোগ *

  • আজ বৃহস্পতিবার, ২৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৮ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

চাঁদপুরে স্বামীর যৌতুক মামলায় স্ত্রী কারাগারে

karagar
❏ বৃহস্পতিবার, আগস্ট ২৬, ২০২১ চট্টগ্রাম

মাহফুজুর রহমান, চাঁদপুর প্রতিনিধি: চাঁদপুরের মতলব উত্তরের এক যুবকের কাছে তার স্ত্রী যৌতুক দাবী করে চাপ দিচ্ছিলো। পরবর্তীতে এর প্রতিকার পেতে অসহায় স্বামী বাধ্য হয়ে আদালতে মামলা দেন। আর সেই মামলায় আদালত স্ত্রীকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

২৬ শে আগস্ট (বৃহস্পতিবার) আদালতে এ নির্দেশ দেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ও আমলী আদালত মতলব উত্তর এর বিচারক মোঃ কফিল উদ্দিন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গেলো ২ বছর আগে বিবাহ করেন নুর মোহাম্মদ ও মনি আক্তার মিতু। নুর মোহাম্মদ উত্তর গাজীপুর গ্রামের সিরাজ বাগের ছেলে এবং মনি আক্তার মিতু সুজাতপুর গ্রামের দুলাল মিজির মেয়ে। তারা উভয়েই চাঁদপুরের মতলব উত্তরের বাসিন্দা।

তাদের দুজনের ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা দেন মোহরে এই বিবাহ হয়েছিল। কিন্তু বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হওয়ার পরই শুরু হয়ে যায় যত বিপত্তি। মনি আক্তার মিতু ও তার পরিবার স্বামী নুর মোহাম্মদের কাছে ৩ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবি করে চাপ দিতে থাকে। পরবর্তীতে নুর মোহাম্মদ নিরুপায় হয়ে আদালতের শরনাপন্ন হলে আদালত মিতুকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।

মামলার বাদী নুর মোহাম্মদ জানান, আমার স্ত্রী মনি আক্তার মিতু ও তার পরিবার মিলে ৩ লাখ টাকা যৌতুক দাবী করে আমার জীবনটা তছনছ করে দিচ্ছিল। তাই এই ঘটনাটি আদালতকে অবহিত করি। পরে আদালত বিষয়টি আমলে নিয়ে আসামী মিতুর বিরুদ্ধে সমন জারি করেন। পরে আসামী মিতু আজ আদালতে জামিন নিতে আসলে আদালত জামিন না মঞ্জুর করে মিতুকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।