• আজ মঙ্গলবার, ৬ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

একইদিনে দুই পুত্রবধু ‘উধাও’, পুলিশের দ্বারস্থ শ্বশুর

news52n342
❏ মঙ্গলবার, আগস্ট ৩১, ২০২১ চট্টগ্রাম, দেশের খবর

শাহীন মাহমুদ রাসেল, কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজারের চকরিয়ার সাহারবিলে একই পরিবারের দুই গৃহবধু নিরুদ্দেশ হয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। নিখোঁজের তিনদিন পেরিয়ে গেলেও তাদের কোন সন্ধান মিলেনি। একজনের কোলে এক বছরের একটি শিশুও রয়েছে।

একইদিনে দুই পুত্রবধু নিখোঁজ হয়ে যাওয়ায় শশুর নিখোঁজ পুত্রবধুদ্বয়ের শ্বশুর জাকের আহমদ বাদী হয়ে শুক্রবার (২৭ আগস্ট) চকরিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী জমা দেন। এটি শনিবার (২৮ আগস্ট) থানায় সাধারণ ডায়েরী হিসেবে লিপিবদ্ধ হয়। যার নং- ১২০৩ (২৮/০৮/২১ইং)।

জিডি সূত্রে জানা গেছে, চকরিয়ার সাহারবিল ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড রামপুর কাজলিবাপেরচর গ্রামের বাসিন্দা জাকের আহমদের তৃতীয় ছেলে ওসমান গণির সাথে উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড বানিয়াছড়া এলাকার মৃত আবছার আহমদের মেয়ে সার্জিনা আক্তার (২২) এর কাবিননামামূলে বিবাহ কার্যক্রম সম্পন্ন হয়। তাদের তিন বছরের সংসারে রয়েছে জাওয়াত আফরান ওবাইদুল্লা নামের এক বছরের (১৫ মাস) শিশু সন্তান। ছেলে ওসমান গণি চাকুরির সুবাধে চট্টগ্রামেই থাকেন।

জাকের আহমদ জানান, চলতি বছরের গত ৫ জুন কনিষ্ট ছেলে মো. ইউনুছ (২৭) সাহারবিলের ২নং ওয়ার্ড নয়াপাড়া এলাকার মৃত মাওলানা আবু শোয়াইবের মেয়ে জন্নাতুল বকেয়া তায়িন (১৮) এর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়।

তিনি বলেন, ওসমান গণির স্ত্রী পুত্রবধু সার্জিনা আক্তার বিভিন্ন সময় বিভিন্ন অজুহাতে ঘর থেকে বেরিয়ে যেতেন। সর্বশেষ গত মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) সকাল ১১টার দিকে সার্জিনা আক্তার এক বছরের শিশু সন্তান জাওয়াত আফরান ওবাইদুল্লাকে টিকা দিতে যাওয়ার কথা বলে আরেক পুত্রবধু ইউনুছের স্ত্রী জন্নাতুল বকেয়া তায়িনকেও সাথে নিয়ে যায়।

তিনি জিডিতে দাবি করেন, যাওয়ার সময় বাড়ি থেকে সবধরনের স্বর্ণালংকার ও টাকা পয়সা সাথে করে নিয়ে যায়। এরপর থেকে আর বাড়িতে ফিরে আসেনি তারা। পরে উভয়ের বাবারবাড়িতেও যোগাযোগ করেও তাদের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

পুত্রবধু সার্জিনা আক্তারের হাতে (০১৮৮০………) নাম্বারের একটি মোবাইল রয়েছে। এতে যোগাযোগ করা হলে রিং পড়লে রিসিভ হয়না। রিসিভ করলে ওই প্রান্ত থেকে কথা শোনা যায়না এমনটি উল্লেখ করা হয় সাধারণ ডায়েরীতে।

জিডির বাদী জাকের আহমদ ধারণা করছেন, দুই পুত্রবধু কোন দুষ্ট চক্রের পাল্লায় পড়েছেন। ওই চক্রের পাতানো ফাঁদে পা দিয়ে নতুন পুত্রবধু জন্নাতুল বকেয়া তায়িনকেও ফুসলিয়ে নিয়ে যায় পুত্রবধু সার্জিনা আক্তার। তাই তিনি তাদের কোন অ ঘটন ঘটতে পারে এমন আশংকা থেকে নিখোঁজ সংক্রান্ত একটি জিডি থানায় জমা দিয়েছেন বলে দাবি করা হয়।

আরও পড়ুন :

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন