• আজ মঙ্গলবার, ৬ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

‘সেদিন আর্জেন্টিনার সঙ্গে ব্রাজিল যা করেছে, লাতিন ফুটবলের জন্য তা লজ্জার’

martinej 534
❏ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ৭, ২০২১ খেলা

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক- ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচ মানে বিশ্বব্যাপী এক উন্মাদনা, রোমাঞ্চ। রোববার তেমনই এক লড়াইয়ের অপেক্ষা ছিল বিশ্বের তামাম ফুটবলপ্রেমীদের। কিন্তু সেটি দেখা সম্ভব হয়নি কোয়ারেন্টাইনজনিত ঝামেলায়। ইংল্যান্ডের ক্লাব ফুটবল খেলা আর্জেন্টিনার ৪ ফুটবলারকে নিয়ে দেখা দেয়া জটিলতায় ৫ মিনিটের বেশি মাঠে গড়ায়নি খেলা।

পরে সুপার ক্লাসিকো ম্যাচটি স্থগিতই করে দিয়েছে লাতিন অঞ্চলের ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থা কনমেবল। আর্জেন্টিনা দলও রাতের মধ্যেই ফিরে গেছে দেশে। আর আজ ক্লাবে যোগ দিতে ইউরোপে চলে যাচ্ছেন তাদের দলের সেই চার ফুটবলারের দুজন এমিলিয়ানো মার্টিনেজ ও এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া।

আর্জেন্টিনা ছাড়ার আগে বিমানবন্দরে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন দলের কোপা আমেরিকা জয়ের অন্যতম নায়ক গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজ। তার কাছে পুরো বিষয়টি এখনও পরিষ্কার নয়।

বললেন, ‘সেদিন কী ঘটেছিল, তা আমরা এখনো বুঝতে পারছি না। এমন কিছু ফুটবলেই দেখিনি কখনো। দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবলের জন্য লজ্জার ব্যাপার এটা। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে এমন একটা বড় ম্যাচ শুরুর পরও স্থগিত হয়ে গেল, এটা কখনোই কারো বোধগম্য হওয়ার কথা নয়।’

তিন দিন ব্রাজিলে ছিল আর্জেন্টিনা দল, প্রস্তুতি নিচ্ছিল ভালোভাবে। কিন্তু ম্যাচ শুরুর পর এলো কর্তৃপক্ষের বাগড়া। এ কারণেই বিষয়টা গোলমেলে লাগছে এমিলিয়ানোর কাছে। বললেন, ‘ব্রাজিলের মাটিতে আমরা তিন দিনের জন্য ম্যাচের প্রস্তুতি নিয়েছি। তারপর যখন ম্যাচটা শুরু হলো, তখন তারা আসলেন একে বাতিল করতে। এটা একটা তিক্ত অভিজ্ঞতা। জয়ের জন্য আমাদের পর্যাপ্ত রসদ ছিল, কিন্তু রাজনৈতিক কারণে ম্যাচটা স্থগিত হয়ে গেল, আর আমাদের এখন ফিরে যেতে হচ্ছে।’

আর্জেন্টাইন এই গোলরক্ষক জানালেন, ম্যাচটা বাতিল হয়ে যাওয়ার আধঘণ্টা পরও লকার রুমে ছিল আর্জেন্টিনা দল। যদি ম্যাচটা মাঠে গড়ায় এই আশায়। কিন্তু সে আশা বাস্তবতায় রূপ নেয়নি আর। এমিলিয়ানো বলেন, ‘আমরা লকার রুমে প্রায় ৩০ মিনিটের মতো ছিলাম, ম্যাচটা শুরু হয় কিনা তার অপেক্ষায়। তারা যখন আমাদেরকে চলে যেতে বললো, তার পরও। তারপর ইংল্যান্ড থেকে যারা এসেছি, তাদের সেখানে ১৪ দিন থাকতে হবে কিনা, সে বিষয়টা উঠে এলো। সবকিছুতে অনিশ্চয়তা ভর করেছিল। চিকি (ক্লদিও তাপিয়া) সাহায্য করেছিলেন আমাদের। তাকে আর ছেলেদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

ব্রাজিলের স্বাস্থ্য নীতিমালাকে আরও একবার ধুয়ে দিয়ে শেষে আফসোস ঝড়ে পড়েছে তার কণ্ঠে। বললেন, ‘আমি বুঝি না ব্রাজিলের নীতিমালা কী। পুরো বিশ্ব দেখেছে সেখানে কী হয়েছে। ম্যাচটা উপভোগ্য হতে পারত।’

অথচ দলের প্রতি ভালোবাসা থেকেই ইংল্যান্ড থেকে ছুটে এসেছিলেন এমিলিয়ানো সহ আর্জেন্টাইন দলের আরও তিন খেলোয়াড়। বললেন, ‘দলের জন্য ভালোবাসা থেকেই ইংল্যান্ড থেকে আমরা চার জন দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছিলাম। প্রিমিয়ার লিগের দলগুলোর অনুমতি ছিল না, তারপরও। কোপা আমেরিকা জেতার পর থেকে সবাই এই দলের সঙ্গে থাকতে উন্মুখ ছিল। এটা খুবই সুন্দর একটা বিষয়। আমরা যারা এসেছিলাম, তারা সম্ভাব্য পরিণাম মাথায় রেখেই এসেছিলাম।’

শেষ ম্যাচে তিনি থাকবেন না, থাকবেন না তার অন্য তিন সতীর্থও। তবে আর্জেন্টিনা ছাড়ার আগে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করলেন, শেষ ম্যাচেও তাদের ছাড়াই জিতবে দল। বললেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে এই দুটো ম্যাচ খেলাটা, দলকে নিজের সবটুকু চেষ্টা দেওয়াটা প্রয়োজন ছিল আমার। এটা (খেলা স্থগিত হওয়াটা) লজ্জার। আশা করছি (বৃহস্পতিবারের ম্যাচে) জিতব।’

আরও পড়ুন :
tamim n234n ২০২৩ বিশ্বকাপ জিততে চান তামিম

❏ সোমবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২১

messi n3 অভিষেক রাঙাতে পারলেন না মেসি

❏ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২১

malinga 4 সব ধরণের ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা মালিঙ্গার

❏ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২১

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন