• আজ শুক্রবার, ২ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

মনসুর আলীর আশা পুরণ করলো ছাত্রলীগ


❏ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ৯, ২০২১ রংপুর

অনিল চন্দ্র রায়,ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: অবশেষে গরীব-অসহায় পঙ্গু মনসুর আলীকে নতুন একটি হুইল চেয়ার দিয়ে স্বপ্ন পুরণ করলো ছাত্রলীগ।

বৃদ্ধ মনসুর আলী কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের পশ্চিম ধর্মপুর গ্রামে মৃত ফুরিদ শেখের ছেলে। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় মনসুর আলীর বাড়ীতে গিয়ে নতুন একটি হুইল চেয়ার ও নগদ অর্থ সহায়তা করেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান।

হুইল চেয়ার নগদ অর্থ পেয়ে খুশিতে আবেগে উৎফুল্ল হয়ে পড়েন পঙ্গু মনসুর আলী ও তার পরিবার। এ সময় ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসানসহ উপস্থিত সকল ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের অনেক অনেক ধন্যবাদ ও দোয়া কামনা করেন মনসুর আলীর পরিবার।

এর আগে পুঙ্গ মনসুর আলী গত এক বছর ধরে একটি হুইল চেয়ারের জন্য স্থানীয় চেয়ারম্যান-মেম্বারদের কাছে ধরনা দিলেও তার ভাগ্যে জোটেনি হুইল চেয়ার। তিনি গত ১ বছর আগে প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে তার দুটি পাঁ অচল হয়ে যায়। সেই থেকে বিছানায় পড়ে আছেন তিনি। গরীব অসহায় পরিবার হুইল চেয়ার কেনার সামর্থ্য না থাকায় ১ বছর ধরে বৃদ্ধ মনসুর আলীকে তার স্ত্রী গোলাপী বেগম ধরাধরি করে ঘর থেকে বাইরে বিছানায় সারাদিন কাটে যায়। অসুস্থ বৃদ্ধের চলাফেরার জন্য তার স্ত্রী চেয়ারম্যান-মেম্বারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও হুইল চেয়ার ভাগ্যে জোটেনি।

নতুন হুইল চেয়ার পেয়ে মনসুর আলী জানান, কোন রকমেই খেয়ে না খেয়ে বেঁচে আছি। তার উপর ঔষধপত্র কিনতে হয়। গত ১ বছর ধরে আমি অচল। আমার তিনি ছেলে-তিন মেয়ে। অনেক কষ্টে তিন মেয়েকে বিয়ে দিয়েছি। তিন ছেলের আলাদা সংসার। স্ত্রীর সামন্য আয় দিয়ে খেয়ে না খেয়ে বেঁচে আছি। অসুস্থ হওয়ায় ১ বছর থেকে হাটা চলা করতে পারিনা।

হুইল চেয়ার কেনারও সামর্থ নেই। আমার স্ত্রী একটি হুইল চেয়ারের জন্য চেয়ারম্যান-মেম্বারের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও আমার ভাগ্যে জোটেনি। ছাত্রলীগের বাবাজি আমার দুদর্শার কথা শুনে কয়েকদিন আগে আমার বাড়ীতে এসে একটি নতুন হুইল চেয়ার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। বাবাজি তার প্রতিশ্রুতি রেখেছেন। আজ ছাত্রলীগের বাবাজি আমার জন্য নতুন একটি হুইল চেয়ার নিয়ে আসায় আমি খুবেই খুশি হয়েছে। ছাত্রলীগ বাবাজির জন্য অনেক দোয়া রইলো। এই গরীব অসহায় মানুষটাকে সহযোগীতা করায় আল্লাহ যেন ছাত্রলীগ বাবাজিকে ভাল রাখেন এবং সুস্থ রাখেন আল্লাহের কাছে আমার এটাই চাওয়া।

উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান জানান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুুজিবুর রহমানের হাতে গড়া বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। তাই আমরা জাতির পিতার আদর্শে ছাত্রলীগ করি। ছাত্রলীগ গরীব-দুঃখী মানুষের পাশে আছে, থাকবেই। এই চাচা একটি হুইল চেয়ারের জন্য বহুদিন ধরে ঘুরছেন।

কিন্তু কেউ তাকে হুইল চেয়ার দেয়নি। এই ইউনিয়নের এক ছাত্রলীগের মাধ্যমে জানতে পারি চাচা খুবেই অসুস্থ। দু,পাঁ অচল। হাটতে পারে না। সব সময় বিছানায় শুয়ে থাবেন। এই খবর পেয়ে আমি অসুস্থ চাচাকে দেখতে যায় এবং নতুন একটি হুইল চেয়ার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়। সেই প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বৃহস্পতিবার নতুন হুইল চেয়ারসহ নগদ অর্থ সহায়তা করা হয়েছে। মেহেদী আরও জানান, কেউ বিপদে পড়লে ফুলবাড়ী ছাত্রলীগ সব সময় পাশে থাকবে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন